ঘোষনা:
শিরোনাম :
কিশোরগঞ্জে পবিত্র ঈদ-উল ফিতরের আগে সরকারী আর্থিক সহায়তা না পাওয়ার শংকায়  সুবিধাভোগীরা। নীলফামারীর কিশোরগঞ্জে ইফতার কিনতে যাওয়া হলনা শরিফুদ্দিনের । ডোমারে শিক্ষার্থীদের জন্য অভিভাবকদের মাঝে খাবার বিতরণ। যশোরের বেনাপোল কাস্টমস হাউস দেশের প্রথম ডিজিটাল কাস্টমস হাউসে উন্নীত। স্বেচ্ছাসেবক লীগের ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটির সদস্যদের স্বাস্থ্য সুরক্ষা সামগ্রী প্রদান। করোনা কালীন পরিস্থিতি ও পবিত্র মাহে রমজান উপলক্ষে দুই শতাধিক অসহায় পরিবারের মাঝে ত্রাণ বিতরণ। কিশোরগঞ্জে সিটিজেন চার্টার না থাকায় মৎস্য চাষীরা সেবা বঞ্চি। নীলফামারীতে প্রধানমন্ত্রীর শুভেচ্ছা ইফতার উপহার পেলেন অসহায় ও দরিদ্র মানুষ। নীলফামারীতে ভুল চিকিৎসায় পঙ্গু জাহিদুল, পরিবার বাঁচাতে প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনা। চট্টগ্রামে করোনায় আরো ৫ জনের মৃত্যু ।
অপরাধের সাজা পেয়েছেন কুষ্টিয়ার ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের চার শিক্ষক।

অপরাধের সাজা পেয়েছেন কুষ্টিয়ার ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের চার শিক্ষক।

ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় সংবাদদাতা,

বিভিন্ন অপরাধের সাজা পেয়েছেন কুষ্টিয়ার ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের চার শিক্ষক। এ ছাড়া এক বাসচালককে সাজা দেওয়া হয়েছে। শুক্রবার বিশ্ববিদ্যালয়ের ২৪৪তম সিন্ডিকেট সভায় তাঁদের সাজা দেওয়ার সিদ্ধান্ত হয়েছে বলে নিশ্চিত করেছেন রেজিস্ট্রার (ভারপ্রাপ্ত) এস এম আবদুল লতিফ।সাজাপ্রাপ্তদের মধ্যে রয়েছেন ইংরেজি বিভাগের অধ্যাপক শাহাদাৎ হোসেন আজাদ ও বাংলা বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক বাকী বিল্লাহ বিকুল। এই দুজনের বিরুদ্ধে নিয়োগ–বাণিজ্যের অডিও ফাঁসের অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ায় যথাক্রমে অধ্যাপক থেকে সহযোগী অধ্যাপক ও সহযোগী অধ্যাপক থেকে সহকারী অধ্যাপক পদে পদাবনতি করা হয়েছে।সাজাপ্রাপ্ত অপর দুই শিক্ষক হলেন আইন বিভাগের অধ্যাপক গাজী ওমর ফারুক ও ইনফরমেশন অ্যান্ড কমিউনিকেশন ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক তারেকুজ্জামান। তাঁদের বিরুদ্ধে বিভাগে অনিয়মিত ও অননুমোদিত ছুটির অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ায় ওমর ফারুককে বাধ্যতামূলক অবসর ও তারেকুজ্জামানকে চাকরিচ্যুত করা হয়েছে। তবে ওমর ফারুকের বিরুদ্ধে নাগরিকত্বের জটিলতা ও তারেকুজ্জামানের বিরুদ্ধে আদেশ অমান্যের অভিযোগও রয়েছে।এদিকে ফিন্যান্স অ্যান্ড ব্যাংকিং বিভাগের শিক্ষক সঞ্জয় কুমারের বিরুদ্ধে নিজ বিভাগের ছাত্রীকে হেনস্তার অভিযোগ প্রমাণিত না হওয়ায় তাঁকে অভিযোগ থেকে অব্যাহতি দেওয়া হয়েছে। তবে ওই ছাত্রীর কোনো কোর্সের ক্লাস বা পরীক্ষা নিতে পারবেন না তিনি। এ ছাড়া তেল জালিয়াতির অভিযোগে মনসুর নামে এক বাসচালককে অবসর দেওয়া হয়েছে। একই সঙ্গে তাঁকে ১৩ লাখ টাকা জরিমানা করা হয়েছে।সাজার বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক হারুন উর রশিদ আসকারী গ্রামপোস্টকে বলেন, ‘আমরা বিচারহীনতার সংস্কৃতি থেকে বেরিয়ে এসেছি এবং দুর্নীতির বিরুদ্ধে জিরো টলারেন্স নীতি গ্রহণ করেছি। সিন্ডিকেটের সব সদস্যের সর্বসম্মতিতে এবং মতামতের ভিত্তিতে সাজার বিষয়ে এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।’





@২০১৯ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত । গ্রামপোস্ট২৪.কম, জিপি টোয়েন্টিফোর মিডিয়া লিমিটেডের একটি প্রতিষ্ঠান।
Design BY MIM HOST