ঘোষনা:
লিবিয়ায় নিহত ২৬ জন বাংলাদেশির পরিবারকে ক্ষতিপূরণের দাবি।

লিবিয়ায় নিহত ২৬ জন বাংলাদেশির পরিবারকে ক্ষতিপূরণের দাবি।

স্টাফ রিপোর্টার,
লিবিয়ায় নিহত ২৬ জন বাংলাদেশির পরিবারকে ক্ষতিপূরণের দাবি।লিবিয়ার মিজদা শহরে মানবপাচারকারী চক্রের হাতে ২৬ জন বাংলাদেশিসহ ৩০ অভিবাসীকে নির্মমভাবে গুলি করে হত্যার ঘটনায় তীব্র নিন্দা জানিয়ে হত্যাকাণ্ডের শিকার ব্যক্তিদের শোকসন্তপ্ত পরিবারের প্রতি গভীর সমবেদনা প্রকাশ করেছে এশিয়া মানবাধিকার সংস্থা।
সংস্থার নেতৃবৃন্দ বলেছেন, লিবিয়ায় ২৬ বাংলাদেশিসহ অভিবাসীদের ওপর ঠান্ডা মাথায় গণহত্যা চালানো হয়েছে। এ ঘৃণ্য হত্যাকাণ্ডে জড়িত মানবপাচারকারীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দিতে হবে। একই সাথে নিহতদের পরিবারকে উপযুক্ত ক্ষতিপূরণ প্রদান করতে হবে।
রোববার (৭ জুন) জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে এক মানববন্ধন কর্মসূচি থেকে এই দাবি জানানো হয়।এশিয়া মানবাধিকার সংস্থার ভাইস চেয়ারম্যান মো. হাসমত উল্লাহর সভাপতিত্বে ও মহাসচিব নজরুল ইসলাম বাবলুর সঞ্চালনায় সংহতি প্রকাশ করে বক্তব্য রাখেন বিশিষ্ট রাজনৈতিক বিশ্লেষক এম. গোলাম মোস্তফা ভুইয়া। আরও বক্তব্য রাখেন সংগঠনের ভাইস চেয়ারম্যান আবু মোজাফ্ফর মো. আনাছ, হুমায়ুন কবির বেপারী, সালমান ওমর রুবেল, বাবু সুরঞ্জন ঘোষ, শেখ জামাল উদ্দিন, রাইসুল ইসলাম চন্দন প্রমুখ।
তারা বলেন, ২৬ জন নিহতের ঘটনায় বেঁচে যাওয়া এক বাংলাদেশি ঘটনার যে বিবরণ দিয়েছেন এবং গণমাধ্যমের খবরেও সেসব কথা উঠে এসেছে। ৩৭ জন বাংলাদেশিসহ ৪০-৪২ জন মানুষকে জিম্মি করে মুক্তিপণ আদায়ের জন্য জড়ো করেছিল মানবপাচারকারী চক্র। এই চক্রকে গ্রেফতার করে বিচারের আওতায় আনার পাশাপাশি এর সঙ্গে জড়িতদের সবাইকে খুঁজে বের করতে বিভিন্ন দেশকে প্রয়োজনে একসঙ্গে কাজ করতে হবে। লিবিয়া থেকে বিভিন্ন সময় ফিরে আসা বাংলাদেশিরা জিম্মি ও মুক্তিপণ আদায়সহ নিপীড়নের নানা ঘটনার বর্ণনা দিয়েছেন।
তারা আরও বলেন, অভিবাসী শ্রমিকদের স্বার্থ ও নিরাপত্তা বিধানের ক্ষেত্রে বাংলাদেশের প্রবাসী ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয় এবং পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ও দায়িত্বহীন ও অকার্যকরী ভূমিকা পালন করে এসেছে। বাংলাদেশের সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়, দূতাবাসসহ শ্রমিকদের বিদেশে পাঠানোর সঙ্গে যুক্ত প্রতিষ্ঠান ও মানবপাচারকারীদের কারণে এখন কয়েক লাখ বাংলাদেশি অভিবাসী শ্রমিক এক ভয়াবহ মানবিক বিপর্যয়ের মুখে পতিত হয়েছে।
একই সাথে নেতৃবৃন্দ লিবিয়ায় নিহতদের জন্য গভীর শোক জানিয়ে আহতদের উপযুক্ত চিকিৎসা এবং তাদের পরিবারের পুনর্বাসনেরও দাবি জানিয়েছেন।





@২০১৯ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত । গ্রামপোস্ট২৪.কম, জিপি টোয়েন্টিফোর মিডিয়া লিমিটেডের একটি প্রতিষ্ঠান।
Design BY MIM HOST