ঘোষনা:
শিরোনাম :
শিক্ষক হত্যা ও কলেজ অধ্যক্ষকে নির্যাতনের প্রতিবাদে নীলফামারীতে মানববন্ধন ও স্মারকলিপি প্রদান। আওয়ামীলীগ হিন্দুদের দল, ভারতের চর এসব ট্যাবলেটে এখন আর কাজ হয়না,তথ্যমন্ত্রী হলি আর্টিজানে জঙ্গি হামলায় ৬ বছর পূর্তিতে,কূটনীতিকরা নিহতদের প্রতি গভীর শ্রদ্ধা বিকেএসপিতে ব্লু খেতাব অর্জন,দেশসেরা নারী আরচার নীলফামারীর দিয়া সিদ্দিকী জাতি হিসেবে আমাদের সক্ষমতাকে সবসময় অবমূল্যায়ন করে সমালোচকরা বললেন,প্রধানমন্ত্রী খাগড়াছড়িতে ৭ম টিআরসি ব্যাচের প্রশিক্ষণ সমাপনী নীলফামারীর ডিমলায় মাদকদ্রব্যের রোধকল্পে কর্মশালা ঢাকা-সিলেট মহাসড়কে রায়পুরায় কাভার্ডভ্যান চাপায় নিহত,৩ আহত ৫ চট্টগ্রামে করোনা আক্রান্ত ৭০ জন  জলঢাকা পৌরসভার ৭৯ কোটি ৭৯ লক্ষ ১ হাজার ৭ শত ৩০টাকার বাজেট ঘোষনা
নীলসাগর গ্রুপের অফিসে হামলা,তিন কোটি টাকা লুট।

নীলসাগর গ্রুপের অফিসে হামলা,তিন কোটি টাকা লুট।

মোঃ হারুন উর রশিদ,স্টাফ রিপোর্টার,
শিল্প উন্নয়ন প্রতিষ্ঠান নীলসাগর গ্রুপের অফিসে হামলার ঘটনা ঘটেছে। গতকাল শনিবার সকালে নীলফামারীর মাস্টারপাড়ায় অবস্থিত ইয়োথ এগ্রো ফার্মের অফিসে লাঠিসোটা ও ধারালো অস্ত্র নিয়ে দুদকের মামলার পলাতক আসামি মারুফ জামান কোয়েলের নেতৃত্বে এ হামলার ঘটনা ঘটে। এ সময় হামলাকারীরা অফিসে থাকা কর্মচারীদের মারধর করে বের করে দেয়। লুট করা হয় কর্মচারীদের বেতন বোনাসের জন্য রাখা তিন কোটি টাকা। এ ছাড়াও ভাঙচুর করা হয় আসবাবপত্র, বিলবোর্ড ও অন্যান্য জিনিসপত্র।

নীলসাগর গ্রুপের মাস্টারপাড়া লোকাল অফিসের সহকারী ব্যবস্থাপক নূরে আলম সিদ্দিক অভিযোগ করে বলেন, শনিবার বেলা ১১টার দিকে মারুফ জামান কোয়েল, মমিনুর রহমান রঞ্জু, আব্দুর রশিদ মুক্তি ও জিয়াউর রহমান জিয়ার নেতৃত্বে ৫০ থেকে ৬০ জনের একদল সন্ত্রাসী লাঠিসোটা নিয়ে অফিসে অতর্কিত হামলা চালায়। এ সময় তারা অফিসের বিভিন্ন আসবাবপত্র ভাঙচুর করে এবং কর্মচারীদের বের করে দিয়ে অফিসে রাখা তিন কোটি টাকা লুট করে নেয়।

তবে মারুফ জামান কোয়েল বলেন, প্রতিষ্ঠানটি টিকিয়ে রাখার স্বার্থে আমরা অফিসে বসেছি এবং যথাযথভাবে দায়িত্ব পালন করছি। হামলা, ভাঙচুর, টাকা লুটের অভিযোগ মিথ্যা। নিজের প্রতিষ্ঠানে আমরা কেন এমন কাজ করব। নীলসাগর কর্তৃপক্ষ জানায়, সীমাহীন দুর্নীতি ও অনিয়মের অভিযোগে সম্প্রতি মারুফ জামান কোয়েলসহ বেশকয়েক কর্মকর্তাকে প্রতিষ্ঠান থেকে বরখাস্ত করেন নীলসাগর গ্রুপের চেয়ারম্যান প্রকৌশলী আহসান হাবীব লেলিন। এর জের ধরেই এ হামলার ঘটনা ঘটেছে।

এদিকে রাতে শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত নীলসাগর গ্রুপের মাস্টারপাড়া লোকাল অফিসের সহকারী ব্যবস্থাপক নূরে আলম সিদ্দিক এ হামলার ঘটনায় বাদী হয়ে গতকাল রাতে সদর থানায় একটি মামলা দায়েরের প্রস্তুতি নিচ্ছিলেন।

থানা সূত্রে জানা যায়, মামলার অভিযোগে আসামি হিসেবে নাম উল্লেখ করা হয়েছে মারুফ জামান কোয়েল, মমিনুর রহমান রঞ্জু, আব্দুর রশিদ মুক্তি, জিয়াউর রহমান জিয়া, মো. আজাদ ও মো. শিমুলের। এছাড়াও অজ্ঞাত আরও ৬০-৭০ জনকে আসামি করা হয়েছে। রাতে এ খবর লেখার সময় থানায় মামলা দায়েরের প্রক্রিয়া চলছিলো।

এ ব্যাপারে নীলফামারী সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. মমিনুল ইসলাম বলেন, হামলার ঘটনায় অভিযোগ পেয়েছি। দাপ্তরিক আনুষ্ঠানিকতা শেষে এ ব্যাপারে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। অতর্কিত এ হামলার ঘটনায় নিন্দা জানিয়েছেন নীলফামারীর বিশিষ্টজনরা। হামলাকারীদের দ্রুত আইনের আওতায় এনে বিচারের দাবি জানান তারা।





@২০১৯ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত । গ্রামপোস্ট২৪.কম, জিপি টোয়েন্টিফোর মিডিয়া লিমিটেডের একটি প্রতিষ্ঠান।
Design BY MIM HOST