ঘোষনা:
শিরোনাম :
নীলফামারীতে বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের ৭২ তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উদযাপন। খুলনায় স্বাস্থ্যবিধি না মানায় অর্থদণ্ড ও কারাদণ্ড প্রদান । জলঢাকায় হরিজন পল্লীতে তুরিন আফরোজ কিশোরগঞ্জে ভাতাভোগীদের টাকা হাতিয়েছে প্রতারক চক্রটি জলঢাকায় আনসার ও গ্রাম প্রতিরক্ষা বাহিনীর বৃক্ষ রোপন ও চারাগাছ বিতরণ নীলফামারীতে মুজিববর্ষ ও স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উপলক্ষে বৃক্ষরোপন করেছে আনসার ওভিডিপি। সৈয়দপুরে রেলের তদন্ত প্রতিবেদন,নিজেকে বাঁচাতে উপজেলা চেয়ারম্যানের সংবাদ সম্মেলন । পঞ্চগড়ের দেবীগঞ্জে করোনা আক্রান্ত মাদ্রাসা শিক্ষিকার মৃত্যু। বাংলাদেশ স্কাউটস এর স্ট্রাটেজিক প্ল্যান ও গ্রোথ মূল্যায়ন ওয়ার্কশপ বরিশালের গৌরনদী উপজেলায় নির্বাচনী সহিংসতায় নিহত ১, আহত ২
বরগুনায় ওসির লাঞ্ছনার শিকার সেই এএসআইকে ডিএসবিতে পদায়ন।

বরগুনায় ওসির লাঞ্ছনার শিকার সেই এএসআইকে ডিএসবিতে পদায়ন।

বরগুনা জেলা প্রতিনিধি,
ওসির লাঞ্ছনার শিকার সেই এএসআইকে ডিএসবিতে পদায়ন করা হয়েছে।শত শত মানুষের সামনে বরগুনার বামনায় ওসির হাতে লাঞ্ছনার শিকার সেই সহকারী উপ-পরিদর্শককে (এএসআই) পুলিশের বিশেষ গোয়েন্দা শাখায় (ডিএসবি) পদায়ন করা হয়েছে। মঙ্গলবার (১১ আগস্ট) বিকেলে বরগুনা জেলা পুলিশের বিশেষ গোয়েন্দা শাখায় তাকে পদায়ন করা হয়।

এর আগে পেশাগত দায়িত্ব পালনের অনুকূল পরিবেশ না থাকায় রোববার (৯ আগস্ট) রাতে বামনা থানা থেকে তাকে বরগুনার পুলিশ লাইন্সে সংযুক্ত করা হয়।

এ বিষয়ে বরগুনার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. মফিজুল ইসলাম বলেন,দায়িত্বপালনরত অবস্থায় প্রকাশ্যে লাঞ্ছনার শিকার হওয়ায় এএসআই’র বামনা থানায় দায়িত্ব পালনের অনুকূল পরিবেশ নষ্ট হয়ে যায়। এ কারণে একটি সুন্দর পরিবেশে কাজ করার সুযোগ দেয়ার জন্য আমরা ওই এএসআইকে বামনা থানা থেকে সরিয়ে বরগুনার পুলিশ লাইন্সে সংযুক্ত করি।

তিনি আরও বলেন, রোববার রাতে ওই এএসআইকে বরগুনার পুলিশ লাইন্সে সংযুক্ত করার পর আজ তাকে বরগুনা জেলা পুলিশের বিশেষ গোয়েন্দা শাখায় (ডিএসবি) পদায়ন করা হয়।

কক্সবাজারে পুলিশের গুলিতে মেজর (অব.) সিনহা মোহাম্মদ রাশেদের মৃত্যুর পর গ্রেফতার ও কারাবন্দি শাহেদুল ইসলাম সিফাতের মুক্তির দাবিতে মানববন্ধন পণ্ড করার সময় শনিবার (৮ আগস্ট) কর্তব্যরত ওই এএসআইকে প্রকাশ্যে চড় মারেন বরগুনার বামনা থানা পুলিশের ওসি মো. ইলিয়াস হোসেন।

চড় মামার ভিডিওটি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়লে ওসি মো. ইলিয়াস হোসেনের সমালোচনা করে অসংখ্য মানুষ। এতে ভাবমূর্তি নষ্ট হয় খোদ পুলিশেরও।

ঘটনার দিনই বরগুনার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. মফিজুল ইসলামকে প্রধান করে তিন সদস্যবিশিষ্ট একটি তদন্ত কমিটি গঠন করে পুলিশ। তিন দিনের মধ্যে এ ঘটনার তদন্ত শেষে বামনা থানা পুলিশের ওসি মো. ইলিয়াস আলী তালুকদারকে অভিযুক্ত করে তাকে প্রত্যাহারের পাশাপাশি বিভাগীয় ব্যবস্থা গ্রহণের সুপারিশ করে তদন্ত কমিটি।

তদন্ত কমিটির সুপারিশ অনুযায়ী মঙ্গলবার (১১ আগস্ট) দুপুরে বরিশাল রেঞ্জের ডিআইজি অফিস বামনা থানা পুলিশের ওসি মোহাম্মদ ইলিয়াছ আলী তালুকদারকে প্রত্যাহার করে বরগুনার পুলিশ লাইন্সে সংযুক্ত করে।





@২০১৯ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত । গ্রামপোস্ট২৪.কম, জিপি টোয়েন্টিফোর মিডিয়া লিমিটেডের একটি প্রতিষ্ঠান।
Design BY MIM HOST