ঘোষনা:
শিরোনাম :
জলঢাকায় অসুস্থ ব্যক্তিদের হাতে চিকিৎসা সহায়তা চেক চট্টগ্রামে সড়কের দু’পাশে ঝুঁকিপূর্ণ ৩ শতাধিক ঘর উচ্ছেদ করেছে প্রশাসন । ডোমারে ট্রাক্টরের চাপায় বৃদ্ধার মৃত্যু ভোলায় ৩ সন্তানের জননীকে জোরপূর্বক ধর্ষণ ঢালিউডের জনপ্রিয় নায়িকাকে ধর্ষণ ও হত্যাচেষ্টার প্রধান আসামিসহ ৫ জন গ্রেফতার মানিকগঞ্জে বিদেশগামী প্রশিক্ষণার্থীদের মাঝে সনদপত্র বিতরন। টেকনাফের নাফ নদীর তীর থেকে আরো দুই রোহিঙ্গার লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ ডোমার গোমনাতী সঃ প্রাঃ বিদ্যাঃ প্রধান শিক্ষক দুলু আর নেই নীলফামারীর ডোমারে পুকুর খননকালে পাওয়া গেল কৃষ্ণ মূর্তি। পঞ্চগড় পৌর মার্কেট নির্মাণ কাজের উদ্বোধন
বৌভাতে অতিথি সুবিধাবঞ্চিত শতাধিক শিশু।

বৌভাতে অতিথি সুবিধাবঞ্চিত শতাধিক শিশু।

মোঃহারুন উর রশিদ,স্টাফ রিপোর্টার, বিয়ে মানে নতুন বন্ধন বা সম্পর্কের শুরু।বিয়ে মানেই উৎসব, বিয়ে মানেই আনন্দ। কিন্তু করোনার কারণে হারিয়ে গিয়েছে সেই উৎসব ও আনন্দ।করোনা কালিন পরিস্থিতিতে স্বাস্থ্যবিধি মেনে নতুন বন্ধনে যুক্ত হয়েছেন নব দম্পত্তি নিরাদ আল আশরাফি ও নববধু ফারজানা ইয়াসমিন।নতুন দম্পতির বৌভাত অনুষ্ঠানে আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে শুধুমাত্র সুবিধাবঞ্চিত শিশুদের। অনুষ্ঠানে প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সুবিধাবঞ্চিত শতাধিক শিশু পেট পুরে খাওয়ার সুযোগ পেয়েছে।
নীলফামারী সদর উপজেলার কচুকাটা ইউনিয়নের কোরানী পাড়ায় সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে এবং স্বাস্থ্য বিধি মেনে প্রাথমিকে অধ্যয়নরত দরিদ্র পরিবারের শিশুদের খাওয়ানোর ব্যতিক্রমী এ উদ্যোগ নেন নিরাত আল আশরাফি।

রোববার (২৩ আগস্ট) দুপুর ১২টা থেকে বিকেল ৩টা পর্যন্ত এলাকার আমন্ত্রিত শিশুদের খাওয়ানো হয় উন্নতমানের খাবার। তালিকায় ছিলো পোলাও, ভাত, ডাল, ডিম, সালাদ, সবজি, মাছ, মাংস, মিষ্টি, কোমল পানীয় প্রভৃতি।

স্থানীয় শিক্ষক আয়েশা সিদ্দিকা সুমি বলেন, দু’টি বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের খাওয়ানোর জন্য আমরা যোগাযোগ করি সেইফ ফাউন্ডেশনে। তারা আমাদের আহ্বানে সাড়া দেন এবং প্রস্তুতি নেন। সে হিসেবে ওই যুবকের বিয়ের বৌভাত অনুষ্ঠান এখানে আয়োজন করেন এবং দরিদ্র পরিবারের এসব শিশুকে খাওয়ানোর উদ্যোগ নেন।

স্থানীয় বাসিন্দা আয়েশা খাতুন বলেন, আমরা সচরাচর দেখি বৌভাতে আত্মীয়-স্বজন, প্রতিবেশী ও বন্ধু-বান্ধবদের আমন্ত্রণ জানিয়ে খাওয়ানো হয়, কিন্তু এখানে ব্যতিক্রমী একটা অনুষ্ঠান হয়েছে। এলাকার শিশুরা খেয়েছে, এতেই আমি খুশি।

সেইফ ফাউন্ডেশনের প্রধান স্বেচ্ছাসেবক রাসেল আমিন স্বপন বলেন, সদ্য বিবাহিত নিরাতকে হতদরিদ্র শিশুদের জন্য কিছু করার প্রস্তাব দিলে তিনি বৌভাতে শুধু তাদের খাওয়ানোর উদ্যোগ নেন। তারই উদ্যোগে এবং সেইফ ফাউন্ডেশনের প্রচেষ্টায় শহর ছেড়ে গ্রামের একশ’ সুবিধাবঞ্চিত শিশুকে বিয়ের উৎসবে দুপুরে খাওয়ানো হয়েছে। এজন্য কৃতজ্ঞ নিরাতের কাছে।

নিরাত আল আশরাফী ও ফারজানা ইয়াসমিন দম্পতি টেবিল ঘুরে ঘুরে খাবার পরিবেশন তদারকি করেছেন।

নিরাত আল আশরাফী বলেন, গেল ১৪ আগস্ট বিয়ে হয়েছে আমার। অনুষ্ঠান করা হয়নি। করোনার সময়ে অনেকে কষ্টে রয়েছেন। বিশেষ করে দরিদ্র পরিবারের শিশুরা। সেইফ ফাউন্ডেশনের প্রস্তাবের পর বিয়ের আয়োজন হিসেবে বৌভাত দরিদ্র পরিবারের শিশুদের সঙ্গে করার উদ্যোগ নেই। এখানে শিশু ছাড়া কাউকে বলা হয়নি।





@২০১৯ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত । গ্রামপোস্ট২৪.কম, জিপি টোয়েন্টিফোর মিডিয়া লিমিটেডের একটি প্রতিষ্ঠান।
Design BY MIM HOST