ঘোষনা:
শিরোনাম :
পদ্মা সেতু হওয়ায় বিএনপি উদভ্রান্তের মত কথা বলছে,চট্টগ্রামে তথ্য ও সম্প্রচারমন্ত্রী বানভাসি মানুষের পাসে লিয়ন চৌধুরী নীলফামারীতে মধ্য রাতে মাতলামি; প্রতিবাদ করায় গুরুতর রগকাটা জখম, থানায় এজাহার। নীলফামারীতে এক মাস ব্যাপি পুনাক তাঁত শিল্প ও পণ্য মেলার শুভ উদ্বোধন পাহাড়ে সন্ত্রাস দমনে এপিবিএন’র টহল শুরু শিক্ষক হত্যা ও কলেজ অধ্যক্ষকে নির্যাতনের প্রতিবাদে নীলফামারীতে মানববন্ধন ও স্মারকলিপি প্রদান। আওয়ামীলীগ হিন্দুদের দল, ভারতের চর এসব ট্যাবলেটে এখন আর কাজ হয়না,তথ্যমন্ত্রী হলি আর্টিজানে জঙ্গি হামলায় ৬ বছর পূর্তিতে,কূটনীতিকরা নিহতদের প্রতি গভীর শ্রদ্ধা বিকেএসপিতে ব্লু খেতাব অর্জন,দেশসেরা নারী আরচার নীলফামারীর দিয়া সিদ্দিকী জাতি হিসেবে আমাদের সক্ষমতাকে সবসময় অবমূল্যায়ন করে সমালোচকরা বললেন,প্রধানমন্ত্রী
নীলফামারীতে পালিত হয়েছে ৪৯তম মহান বিজয় দিবস।

নীলফামারীতে পালিত হয়েছে ৪৯তম মহান বিজয় দিবস।

মোঃ হারুন উর রশিদ, স্টাফ রিপোর্টার,

করোনা ভাইরাসের কারণে সীমিত কর্মসূচীর মধ্য দিয়ে নীলফামারীতে পালিত হয়েছে ৪৯তম মহান বিজয় দিবস। বুধবার (১৬ ডিসেম্বর) দিবসটি উপলক্ষে ৩১ বার তপোধ্বনির মাধ্যমে দিনের সূচনা করা হয়।

সকাল ৭টা ১০ মিনিটে স্বাধীনতা স্মৃতি অম্লান চত্বরে শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে পুষ্পস্তবক অর্পন করেন জেলা প্রশাসক মোঃ হাফিজুর রহমান চৌধুরী ও পুলিশ সুপার মোহাম্মদ মোখলেছুর রহমান।

এরপর স্বাস্থ্যবিধি মেনে জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি দেওয়ান কামাল আহমেদ ও সাধারণ সম্পাদক মমতাজুল হকের নেতৃত্বে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে ও স্বাধীনতা স্মৃতি অম্লানে পুষ্পমাল্য অর্পন করা হয়। একে একে শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করেন মুক্তিযোদ্ধা কমান্ড কাউন্সিল, জেলা পরিষদ, পৌরসভা, সরকারী কর্মকর্তা-কর্মচারী সহ সর্বস্তরের জনতা।

এরপর সকাল সাড়ে ৮টায় জেলা সার্কিট হাউজ চত্বরে শহীদদের আত্মার মাগফেরাত কামনায় এক মিনিট নিরাবতা পালন, দোয়া মোনাজাত করা হয়। মোনাজাত শেষে আনুষ্ঠানিক ভাবে জাতীয় সঙ্গীতের সাথে জাতীয় পতাকা উত্তোলন করা হয়।

অপরদিকে এবারের বিজয় দিবসে স্বাধীনতার যুদ্ধে অংশ নেয়া মুক্তিযোদ্ধাদের বাড়িতে বাড়িতে গিয়ে মিষ্টি আর ফুল দিয়ে শুভেচ্ছা জানিয়েছেন জেলা প্রশাসক।

বেলা ১১টায় জেলা শিল্পকলা একাডেমিতে ভার্চুয়ালি ও সরাসরি ভাবে “জাতির পিতার স্বপ্নের সোনার বাংলা বিনিমর্য়ে মুক্তিযুদ্ধের চেতনা ধারণ ও ডিজিটাল প্রযুক্তির সর্বোত্তম ব্যবহারের মাধ্যমে জাতীয় সম্পৃদ্ধি অর্জন” শীর্ষক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।

দুপুরে শিশু পরিবার, এতিমখানা, বৃদ্ধাশ্রম, হাসপাতাল, জেলখানায় উন্নতমানের খাবার পরিবেশন করা হয়। এসময় জেলা প্রশাসক সহ বিভিন্ন দপ্তরের উর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন। সন্ধ্যায় পিঠা উৎসব ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করেন জেলা প্রশাসক ও শিল্পকলা একাডেমি।





@২০১৯ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত । গ্রামপোস্ট২৪.কম, জিপি টোয়েন্টিফোর মিডিয়া লিমিটেডের একটি প্রতিষ্ঠান।
Design BY MIM HOST