ঘোষনা:
শিরোনাম :
পদ্মা সেতু হওয়ায় বিএনপি উদভ্রান্তের মত কথা বলছে,চট্টগ্রামে তথ্য ও সম্প্রচারমন্ত্রী বানভাসি মানুষের পাসে লিয়ন চৌধুরী নীলফামারীতে মধ্য রাতে মাতলামি; প্রতিবাদ করায় গুরুতর রগকাটা জখম, থানায় এজাহার। নীলফামারীতে এক মাস ব্যাপি পুনাক তাঁত শিল্প ও পণ্য মেলার শুভ উদ্বোধন পাহাড়ে সন্ত্রাস দমনে এপিবিএন’র টহল শুরু শিক্ষক হত্যা ও কলেজ অধ্যক্ষকে নির্যাতনের প্রতিবাদে নীলফামারীতে মানববন্ধন ও স্মারকলিপি প্রদান। আওয়ামীলীগ হিন্দুদের দল, ভারতের চর এসব ট্যাবলেটে এখন আর কাজ হয়না,তথ্যমন্ত্রী হলি আর্টিজানে জঙ্গি হামলায় ৬ বছর পূর্তিতে,কূটনীতিকরা নিহতদের প্রতি গভীর শ্রদ্ধা বিকেএসপিতে ব্লু খেতাব অর্জন,দেশসেরা নারী আরচার নীলফামারীর দিয়া সিদ্দিকী জাতি হিসেবে আমাদের সক্ষমতাকে সবসময় অবমূল্যায়ন করে সমালোচকরা বললেন,প্রধানমন্ত্রী
আগামীকাল চিলাহটি-হলদিবাড়ি রেলপথ চালু ।

আগামীকাল চিলাহটি-হলদিবাড়ি রেলপথ চালু ।

রেজা মাহমুদ,স্টাফ রিপোর্টার,
নীলফামারীবাসীর দীর্ঘ অপেক্ষার পালা শেষ। অগামীকাল বৃহস্পতিবার (১৭ডিসেম্বর) ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে দু’দেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও নরেন্দ্র মোদি চিলাহাটি হলদিবাড়ী রেলপথ চালুর ঘোষণা দেবেন। আর এই ঘোষনার মধ্য দিয়ে দীর্ঘ ৫৫ বছর পর এ রুটে পূনরায় ভারত-বাংলাদেশে ট্রেন চলাচল শুরু হবে। এ রেলপথ চালুসহ অবকাঠামো নির্মাণ ব্যয়ে হয়েছে ৮০ কোটি টাকা ।
আনুষ্ঠানিক উদ্বোধনের জন্য সকল প্রস্তুতি সম্পন্ন করেছে রেলপথ বিভাগ। নতুন সাঁজে সেঁজেছে নীলফামারীর চিলাহাটি রেলস্টেশন। উদ্বোধনী দিনের জন্য ৩০টি এমটি র‌্যাকসহ ইঞ্জিনকে বর্ণিল সাজে সাজানো হয়েছে। সুষ্ঠুভাবে আনুষ্ঠানিকতা সম্পন্নের জন্য চলছে মহড়াও। চিলাহাটি জিরো পয়েন্ট পর্যন্ত ৭ কিলোমিটার নতুন রেলপথ স্থাপন করাসহ ভিআইপি গেস্ট হাউস নির্মাণ করা হয়েছে। ইতোমধ্যে উদ্বোধনের সকল প্রস্তুতি পরিদর্শন করেছে রেলপথ মন্ত্রী নূরুল ইসলাম সুজন। ব্যস্ত পশ্চিমাঞ্চল রেলওয়ের কর্মকর্তারাও।
এদিকে, আংশিক বাকি থাকলেও জোরেশোরেই এগিয়ে চলেছে অবকাঠামো নির্মাণ কাজ। এতে রয়েছে অত্যাধুনিক হাইটেক মডেলের রেলস্টেশন, দোতলা টিএক্স আর অফিস কক্ষ, স্টাফদের থাকার ২০টি রুম, কাস্টম অফিস ও ওভারব্রিজ। এ ছাড়া ইয়ার্ডে বসবে আরও ৫টি লাইন ।
নীলফামারীর জেলার শীর্ষ পুলিশ কর্মকর্তা (পুলিশ সুপার) মো. মোখলেছুর রহমান জানালেন, উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের দিন সব ধরনের নিরাপত্তা ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে। সেখানে ইউনিফর্ম পরা পুলিশ ছাড়াও সাদা পোশাকের পুলিশ ও গোয়েন্দা টিমের কড়া নজরদারি থাকবে।
রেলওয়ের পশ্চিমাঞ্চলের মহাব্যবস্থাপক মিহির কান্তি গুহ বলেন, ১৯৬৫ সালে পাক ভারত যুদ্ধের পর বাংলাদেশের উত্তর সীমান্তে নীলফামারী চিলাহাটি এবং ভারতের হলদিবাড়ী হয়ে দার্জিলিং পর্যন্ত রেলপথ বন্ধ হয়ে যায়। তবে আবারো নতুন করে এ রেলপথ চালু হওয়ার বিষয়টি ইতিবাচক। ওইদিন থেকে শুধুমাত্র মালবাহি ট্রেন পার্বতীপুর জংশন পর্যন্ত চলাচল করবে। এ পথে ভারতের শিলিগুড়ি থেকে পাথর ও অন্যান্য মালামাল আসবে। ফলে এ অঞ্চলে অর্থনৈতিক সচ্ছলতা আসবে। তিনি আরো জানান, আগামী ২৬ মার্চ স্বাধীনতা দিবস থেকে ঢাকা থেকে ভারতের শিলিগুড়ি যাত্রীবাহী রেল চালুরও সিদ্ধান্ত আছে। এতে পর্যটনের একটা প্রাণকেন্দ্র হবে অঞ্চলটি।





@২০১৯ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত । গ্রামপোস্ট২৪.কম, জিপি টোয়েন্টিফোর মিডিয়া লিমিটেডের একটি প্রতিষ্ঠান।
Design BY MIM HOST