ঘোষনা:
শিরোনাম :
শিক্ষক হত্যা ও কলেজ অধ্যক্ষকে নির্যাতনের প্রতিবাদে নীলফামারীতে মানববন্ধন ও স্মারকলিপি প্রদান। আওয়ামীলীগ হিন্দুদের দল, ভারতের চর এসব ট্যাবলেটে এখন আর কাজ হয়না,তথ্যমন্ত্রী হলি আর্টিজানে জঙ্গি হামলায় ৬ বছর পূর্তিতে,কূটনীতিকরা নিহতদের প্রতি গভীর শ্রদ্ধা বিকেএসপিতে ব্লু খেতাব অর্জন,দেশসেরা নারী আরচার নীলফামারীর দিয়া সিদ্দিকী জাতি হিসেবে আমাদের সক্ষমতাকে সবসময় অবমূল্যায়ন করে সমালোচকরা বললেন,প্রধানমন্ত্রী খাগড়াছড়িতে ৭ম টিআরসি ব্যাচের প্রশিক্ষণ সমাপনী নীলফামারীর ডিমলায় মাদকদ্রব্যের রোধকল্পে কর্মশালা ঢাকা-সিলেট মহাসড়কে রায়পুরায় কাভার্ডভ্যান চাপায় নিহত,৩ আহত ৫ চট্টগ্রামে করোনা আক্রান্ত ৭০ জন  জলঢাকা পৌরসভার ৭৯ কোটি ৭৯ লক্ষ ১ হাজার ৭ শত ৩০টাকার বাজেট ঘোষনা
৮ ফেব্রুয়ারি থেকে সারাদেশে ২৭ জানুয়ারি থেকে ঢাকার পাঁচটি হাসপাতালে করোনার টিকা দেয়া হবে।

৮ ফেব্রুয়ারি থেকে সারাদেশে ২৭ জানুয়ারি থেকে ঢাকার পাঁচটি হাসপাতালে করোনার টিকা দেয়া হবে।

৮ ফেব্রুয়ারি থেকে সারাদেশে ২৭ জানুয়ারি থেকে ঢাকার পাঁচটি হাসপাতালে ৭ হাজার ৩৪৪টি হাসপাতাল কেন্দ্রে করোনার টিকা দেয়া হবে। এ ক্ষেত্রে ছয় ধরনের নাগরিক এই মুহূর্তে টিকা পাবেন না।
আজ সোমবার (২৫ জানুয়ারি) প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে কোভিড-১৯ ভ্যাকসিন ম্যানেজমেন্ট সিস্টেম সুরক্ষা অবহিতকরণ সভায় এ তথ্য জানানো হয়।
সভায় বলা হয়, ‘সুরক্ষা’ ওয়েবসাইট ও অ্যাপে নিবন্ধন করে সব নাগরিক পর্যায়ক্রমে করোনা টিকা পাবেন। তবে ছয় শ্রেণির নাগরিককে এই মুহূর্তে টিকা দেয়া হবে না। তারা হলেন- গর্ভবতী নারী, উচ্চ ডায়াবেটিসে আক্রান্ত, ১৮ বছরের নিচে শিশু, করোনা আক্রান্ত হওয়ার চার সপ্তাহের মধ্যে, হাসপাতালে ভর্তি গুরুতর অসুস্থ এবং নিবন্ধনের বাইরে থাকা নাগরিকরা টিকা পাবেন না। তবে পরিস্থিতির পরিবর্তন হলে এ সিদ্ধান্তও পরিবর্তন হতে পারে।

জানা গেছে, ২৭ জানুয়ারি প্রধানমন্ত্রীর আনুষ্ঠানিক উদ্বোধনের পর থেকে নাগরিকরা কোভিড-১৯ ভ্যাকসিন পাবেন। এজন্য সরকারের সুরক্ষা অ্যাপ ও সুরক্ষা ওয়েবসাইটে নিবন্ধন ও পরবর্তী প্রক্রিয়া অনুসরণ করতে হবে।

করোনা টিকার জন্য যে ধাপ দিয়ে আবেদন করবেনঃ
সুরক্ষা কোভিড-১৯ ভ্যাকসিন ম্যানেজমেন্ট সিস্টেম যেভাবে কাজ করবে-

১। www.surakkha.gov.bd ওয়েব পোর্টালে প্রবেশ করতে হবে।
২। নিবন্ধন বাটনে ক্লিক করে নাগরিক শ্রেণি (সরকারি স্বাস্থ্যকর্মী, বেসরকারি স্বাস্থ্যকর্মী, বীর মুক্তিযোদ্ধা, আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী, সামরিক-আধা সামরিক প্রতিরক্ষা বাহিনী, রাষ্ট্রীয় বিভিন্ন কার্যালয়, গণমাধ্যমকর্মী, জনপ্রতিনিধি, সিটি ও পৌর কর্মী, ধর্মীয় প্রতিনিধি ইত্যাদি) সিলেক্ট করে জাতীয় পরিচয়পত্র নম্বর এবং জন্ম তারিখ দিতে হবে।

তারপর যাচাই বাটনে ক্লিক করে স্বয়ংক্রিয়ভাবে পরিচয় নিশ্চিত করতে হবে। পরিচয় নিশ্চিত হলে বাংলা ও ইংরেজিতে নাম ফর্মে দেখা যাবে। দীর্ঘ মেয়াদি রোগ, কোমরবিডি আছে কি-না হ্যাঁ অথবা না সিলেক্ট করতে হবে।

৩। নিবন্ধনকারী নাগরিকের পেশা এবং সরকারি কোভিড-১৯ কাজের সঙ্গে জড়িত কি-না তা নির্বাচন করতে হবে।

৪। যে মোবাইলে ভ্যাকসিনের তথ্য ও ভেরিফিকেশন এসএমএস পেতে চান তা নিবন্ধনের সময় দিতে হবে।

৫। ফরমে বর্তমান ঠিকানা ও টিকাদান কেন্দ্র নির্বাচন করতে হবে।

৬। সব শেষে মোবাইলে প্রাপ্ত OTP দিয়ে নিবন্ধন সম্পন্ন করতে হবে।

৭। নিবন্ধন সম্পন্ন হয়ে গেলে ‘টিকা কার্ড সংগ্রহ’ বাটনে ক্লিক করে কার্ড সংগ্রহ করতে হবে।

৮। নিবন্ধিত মোবাইল নম্বরে নির্ধারিত সময়ে এসএমএসে টিকা গ্রহণের তারিখ ও কেন্দ্র জানানো হবে।

৯। টিকা কেন্দ্রে যাওয়ার সময় প্রিন্টেড টিকা কার্ড ও জাতীয় পরিচয়পত্রের কপি সঙ্গে নিতে হবে।

অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন তথ্য-প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক, প্রধানমন্ত্রীর মুখ্য সচিব আহমদ কায়কাউস, প্রধানমন্ত্রী কার্যালয়ের সচিব তোফাজ্জল হোসেন, স্বাস্থ্য সেবা বিভাগের সচিব আবদুল মান্নান ও স্বাস্থ্য অধিদফতরের মহাপরিচালক এবিএম খুরশিদ আলম প্রমুখ।





@২০১৯ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত । গ্রামপোস্ট২৪.কম, জিপি টোয়েন্টিফোর মিডিয়া লিমিটেডের একটি প্রতিষ্ঠান।
Design BY MIM HOST