ঘোষনা:
শিরোনাম :
পদ্মা সেতু হওয়ায় বিএনপি উদভ্রান্তের মত কথা বলছে,চট্টগ্রামে তথ্য ও সম্প্রচারমন্ত্রী বানভাসি মানুষের পাসে লিয়ন চৌধুরী নীলফামারীতে মধ্য রাতে মাতলামি; প্রতিবাদ করায় গুরুতর রগকাটা জখম, থানায় এজাহার। নীলফামারীতে এক মাস ব্যাপি পুনাক তাঁত শিল্প ও পণ্য মেলার শুভ উদ্বোধন পাহাড়ে সন্ত্রাস দমনে এপিবিএন’র টহল শুরু শিক্ষক হত্যা ও কলেজ অধ্যক্ষকে নির্যাতনের প্রতিবাদে নীলফামারীতে মানববন্ধন ও স্মারকলিপি প্রদান। আওয়ামীলীগ হিন্দুদের দল, ভারতের চর এসব ট্যাবলেটে এখন আর কাজ হয়না,তথ্যমন্ত্রী হলি আর্টিজানে জঙ্গি হামলায় ৬ বছর পূর্তিতে,কূটনীতিকরা নিহতদের প্রতি গভীর শ্রদ্ধা বিকেএসপিতে ব্লু খেতাব অর্জন,দেশসেরা নারী আরচার নীলফামারীর দিয়া সিদ্দিকী জাতি হিসেবে আমাদের সক্ষমতাকে সবসময় অবমূল্যায়ন করে সমালোচকরা বললেন,প্রধানমন্ত্রী
সৈয়দপুরে জসিমের গা জুড়ে ঘা অর্থাভাবে হচ্ছেনা চিকিৎসা।

সৈয়দপুরে জসিমের গা জুড়ে ঘা অর্থাভাবে হচ্ছেনা চিকিৎসা।

 সৈয়দপুর (নীলফামারী) প্রতিনিধি,
মানুষের জীবন যে কতটা অসহায় তা এখন হারে হারে টের পাচ্ছেন জসিম। এইতো মাস দুয়েক আগেও তিনি সুস্থ্য সবল ছিলেন। অন্য সবার মতো কাজেকর্মে ব্যস্ত ছিলেন। স্ত্রী সন্তান নিয়ে ভালোই দিন কাটাচ্ছিলেন। কিন্তু হঠাৎ জসিমের শরীরের বিভিন্ন জায়গায় ঘা দেখা যায়। ধীরে ধীরে তার এই ঘায়ের বিস্তার সারা শরীরে ছড়িয়ে পড়ে। ঘা ফেটে পুজও বের হয়। এ কারণে তীব্র ব্যথার যন্ত্রনায় ছটফট করে বর্তমানে দিন পাড় করছে জসিম।
নীলফামারীর সৈয়দপুর উপজেলার নীচুকলোনীর বাসিন্দা জসিম উদ্দিন (৩৪) দুর্লভ রোগে আক্রান্ত হয়ে নিদারুণ কষ্টে দিন পাড় করছেন। অজানা কারণে তার গোটা শরীরে ঘা দেখা দিয়েছে। কোথাও কোথাও পচনও ধরেছে। গলে পড়ছে শরীরের মাংস। এমতাবস্থায় অর্থনৈতিক দৈন্যদশায় ঠিকমতো চিকিৎসাও করাতে পারছেন না। যার দরুন দিনকে দিন জসিমের শারীরিক অবস্থা অবনতির দিকে ধাবিত হচ্ছে।
নিম্নবিত্ত পরিবারের উপার্জনক্ষম স্বামীর করুণ পরিনতিতে ভেঙ্গে পড়েছেন স্ত্রী নাজমুন নাহার। কি করবেন, কিভাবে স্বামীর চিকিৎসা করাবেন এসব ভেবেই তিনি দিশেহারা হয়ে পড়েছেন। এমন অবস্থায় কোন কূলকিনারা না পেয়ে তিনি সাহায্যের জন্য আত্মীয়-স্বজন ও প্রতিবেশীদের দ্বারে দ্বারে ছুটছেন। মৃত্যু যন্ত্রণায় কাতরানো স্বামীর স্বাভাবিক জীবন ফিরে চাইছেন।
দুই সন্তানের জনক জসিম সৈয়দপুরে মেকানিকের কাজ করতেন। দিন আনতেন দিন খেতেন। টানাপোড়েনে সংসার চলে যেতো। তাদের সঞ্চয় বলতে নেই কিছু। দুরহ এই পরিস্থিতিতে সংসারের হাল ধরতে নাজমুন নাহার কয়েক মাস থেকে রান্না করা খাবার হোম ডেলিভারি করে সন্তানের মুখে দুবেলা দুমুঠো খাবার তুলে দিচ্ছেন।
দূর্লভ রোগে আক্রান্ত জসিম এখন ঠিকভাবে নড়াচড়া করতে পারেননা। খাওয়া-দাওয়াতেও অনীহা। সারাক্ষণ স্থীর হয়ে বসে থাকেন। তীব্র ব্যথার যন্ত্রনায় কাতরাতে থাকেন। জসিমের এ ভয়াবহ অবস্থা দেখে তার মেয়েরাও কাছে আসতে ভয় পায়। অস্বাভাবিকভাবে বেড়ে যাওয়া জসিমের ঘা নির্মলে এখনই সুচিকিৎসার প্রয়োজন। এজন্য দেশবাসীর নিকট আর্থিক সহযোগিতা কামনা করেছেন জসিমের স্ত্রী নাজমুন নাহার।
জসিমের স্ত্রী নাজমুন নাহার জানান, ‘প্রথমদিকে শরীরের দুই এক জায়গায় ঘা দেখা দিয়েছিলো। ধীরে ধীরে সেটা গোটা শরীরে বিস্তার লাভ করেছে। এখন শরীরে কাপড়ও রাখতে পারেননা। চিত হয়ে শুয়ে থাকতেও পাননা। আমরা ডাক্তারকেও দেখিয়েছি। কিন্তু অবস্থার উন্নতি হয়নি।’
স্বামীর জীবন বাচাতে অশ্রæসিক্ত চোখে তিনি আরো জানান, ‘ আমাদের দেয়ালে পিঠ ঠেকে গেছে। এখন আমাদের সম্বল বলতে কিছু নেই। আপনাদের সহিযোগিতায় একমাত্র ভরসা। আমাদের ছোটছোট মেয়ে দুইটির মুখপানে চেয়ে হলেও সবাই সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দিন।’
জসিমের চিকিৎসার জন্য সহযোগিতা পাঠানোর ঠিকানাঃ নাজমুন নাহার, নীচু কলোনী (০৮ নং ওয়ার্ড), উপজেলাঃ সৈয়দপুর, জেলাঃ নীলফামারী। বিকাশ নাম্বারঃ ০১৭৮৫০৩০৭০০ (জসিমের স্ত্রী)]





@২০১৯ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত । গ্রামপোস্ট২৪.কম, জিপি টোয়েন্টিফোর মিডিয়া লিমিটেডের একটি প্রতিষ্ঠান।
Design BY MIM HOST