ঘোষনা:
শিরোনাম :
নরসিংদীর রায়পুরায় গোলাগুলিতে এক কিশোর নিহত।আহত ৭জন। বাংলাভিশনের গাজীপুর প্রতিনিধির ব্যক্তিগত প্রাইভেটকারে ট্রাকের ধাক্কায় গাড়ি ক্ষতিগ্রস্ত । খুলনার ভৈরব নদ থেকে কিশোরের লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। পটুয়াখালীর কলাপাড়ায় পানিতে ডুবে এক শিশুর মৃত্যু হয়েছে। নীলফামারীর ডোমারে করোনা প্রতিরোধে ভ্রাম্যমান প্রচারণার উদ্বোধন । বাগেরহাট সদরের তালশাস কাটাকে কেন্দ্র করে সংঘর্ষে নিহত -১ চাঁপাইনবাবগঞ্জ পৌর এলাকায় ইয়াবাসহ মাদক ব্যবসায়ীকে গ্রেফতার করেছে র‍্যাব-৫। চট্টগ্রামে মিতু হত্যা মামলায় আরও দুই আসামিকে গ্রেপ্তার দেখানো হয়েছে ১৪ দিন পর ঢাকায় ফেরার অনুরোধ ২৩ মে পর্যন্ত লকডাউনে নতুন দুটি প্রজ্ঞাপন জারি।
সাতক্ষীরায় আম ভাঙা শুরু, গুনগত মান বজায় রাখতে কঠোর প্রশাসন।

সাতক্ষীরায় আম ভাঙা শুরু, গুনগত মান বজায় রাখতে কঠোর প্রশাসন।

সাতক্ষীরা প্রতিনিধি ,
সাতক্ষীরায় আম ভাঙা শুরু হয়েছে। প্রথমেই ভাঙা হচ্ছে গোপালভোগ ও গোবিন্দভোগ আম। পর্যায়ক্রমে ভাঙা হবে আম্রপালি ও ল্যাংড়া আম। উৎপাদন মোটামুটি ভাল হলেও দামে খুশী নন চাষিরা। তবে আমের মান বজায় রাখতে তৎপর প্রশাসনিক কর্মকর্তারা। আজ রোববার থেকে আম ভাঙা শুরু হয়েছে।
কৃষি অফিস সূত্রে জানা যায়, জেলায় এবার ৫ হাজারেরও বেশি বাগানে আম চাষ হয়েছে। ১৩ হাজার ১শ’ জন চাষি এই আম চাষ করেছেন। এবার উৎপাদনের লক্ষ্যমাত্রা ধরা হয়েছে ৪০ হাজার মেট্রিকটন। আর ৫শ’ হেক্টর জমিতে গোপালভোগ ও গোবিন্দভোগ আম চাষ করা হয়েছে। আম উৎপাদনের টার্গেট পূরণ হবে বলে আশা করছেন কৃষি বিভাগের কর্মকর্তারা।
আবহাওয়া ও মাটির গুনে অন্যান্য স্থানের তুলনায় সাতক্ষীরার আম আগে পাকে। দাম পাওয়ার আশায় অনেকেই তাই কাঁচা আম পাড়েন। প্রশাসনিক কর্মকর্তারা আগে থেকেই আম ভাঙার তারিখ নির্ধারণ করে দিয়েছিলেন। নির্ধারণ করে দেয়া তারিখ অনুযায়ী রোববার থেকে গোপালভোগ ও গোবিন্দভোগ আম ভাঙা হচ্ছে। তবে প্রথম দিনে আমের দামে সন্তুষ্ট নন চাষিরা। সুলতানপুর বড়বাজারে গোপালভোগ ও গোবিন্দভোগ আমের দাম গড়পড়তায় মণপ্রতি ১ হাজার ৮ শ’ থেকে ২ হাজার ২শ’ টাকায় বিক্রি হয়েছে। তবে, চাষীরা বলছেন ন্যুনতম মলপ্রতি দাম ২ হাজার ৮ শ’ টাকা বিক্রি না হলে তাদের লোকসান হবে।
সাতক্ষীরা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক কৃষিবিদ নূরুল ইসলাম বলেন,বাইরে থেকে যারা আম কিনতে আসবেন,তাদেরকে কমপক্ষে তিন দিন কোয়ারেন্টিনে থাকতে হবে। এছাড়া আম চাষিদের সুবিধার্থে ২১ মে হিমসাগর, ৪ জুন আম্রপালি ভাঙার তারিখ নির্ধারণ করা হয়েছে। তিনি আরো জানান, এবছর এখনো সাতক্ষীরায় ঝড়-বর্ষা হয়নি। তাপদাহে আম কিছুদিন আগে থেকে পরিপক্ক হয়েছে। তাই ভাঙার তারিখও এগিয়ে আনা হয়েছে।
সাতক্ষীরার জেলা প্রশাসক এস এম মোস্তফা কামাল জানান, সুলতানপুর বড়বাজারসহ বিভিন্ন আমের মোকামে প্রশাসনিক নজরদারি রাখা হয়েছে। রাসায়নিক দ্রব্য দিয়ে আম পাঁকালে তাদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেয়া হবে। এছাড়া আম সিন্ডিকেট যাতে গড়ে উঠতে না পারে,সে বিষয়েও নজরদারি রয়েছে।





@২০১৯ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত । গ্রামপোস্ট২৪.কম, জিপি টোয়েন্টিফোর মিডিয়া লিমিটেডের একটি প্রতিষ্ঠান।
Design BY MIM HOST