ঘোষনা:
শিরোনাম :
চট্টগ্রামে একদিনে করোনায় হাজার পেরিয়ে শনাক্ত নীলফামারীর সৈয়দপুরে কিশোরীর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার ডিমলায় গাড়ী চালক শ্রমিকদের মাস্ক পড়তে সচেতনতামুলক মতবিনিময় নীলফামারীতে ট্রাকের চাকায় পিষ্টে,নারী পোশাক কর্মীর মৃত্যু চট্টগ্রামে গনধর্ষণের পর হত্যা, মামলায় ১ জনের মৃত্যুদন্ড চট্টগ্রামে দুদকের মামলায় দুই রাজস্ব কর্মকর্তা কারাগারে নীলফামারীতে শীতের তীব্রতায় দুর্ভোগ,সূর্যের দেখা মিলবেনা সারাদিন বাংলাদেশের অগ্রগতির অদম্য গতি কেউ থামাতে পারবে না : প্রধানমন্ত্রী গভীর রাতে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে ছাত্রলীগের দুই গ্রুপের সংঘর্ষ, আহত দুই নীলফামারীতে মাইক্রোবাসের ধাক্কায় শিশু নিহত
পরিবার পরিকল্পনার স্থায়ী পদ্ধতিতে অর্থ বরাদ্দ দেবে ডিএসসিসি সংস্থা।

পরিবার পরিকল্পনার স্থায়ী পদ্ধতিতে অর্থ বরাদ্দ দেবে ডিএসসিসি সংস্থা।

ঢাকা প্রতিবেদক,
আগামীতে পরিবার পরিকল্পনার স্থায়ী পদ্ধতিতে দক্ষিণ সিটি করপোরেশন (ডিএসসিসি) অর্থ বরাদ্দ দেবে বলে জানিয়েছেন সংস্থাটির মেয়র ব্যারিস্টার শেখ ফজলে নূর তাপস।

রোববার (৩০ মে) বিকেলে নগর ভবনের মেয়র হানিফ অডিটরিয়ামে ‘আরবান প্রাইমারি হেলথ কেয়ার সার্ভিসেস ডেলিভারি প্রকল্প (২য় পর্যায়)’ এর ‘পরিবার পরিকল্পনা কার্যক্রম জোরদারকরণ’ সংক্রান্ত দ্বিমাসিক পর্যালোচনা সভায় তিনি এ কথা জানান।

তাপস বলেন, পরিবার পরিকল্পনা অধিদপ্তরের কিছু আর্থিক অপ্রতুলতা রয়েছে। কিন্তু আমরা চাই ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশন সবকিছুতেই স্বয়ংসম্পূর্ণ হবে। যেহেতু আমরা স্বয়ংসম্পূর্ণতার দিকে এগিয়ে যাচ্ছি, সেক্ষেত্রে আমরা পরিবার পরিকল্পনা কার্যক্রমেও আরো বেশি সম্পৃক্ত থাকতে চাই। তাই আমাদের ভবিষ্যৎ কর্মপরিকল্পনায় পরিবার পরিকল্পনার যে স্থায়ী পদ্ধতি রয়েছে, সেই স্থায়ী পদ্ধতিতে আমরা অর্থ বরাদ্দ দেব এবং সম্পৃক্ত থাকবো। যাতে পরিবার পরিকল্পনার স্থায়ী পদ্ধতিকে বেগবান করা যায়।

তিনি বলেন, দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের নতুন ১৮টি ওয়ার্ড বিভিন্নভাবে পরিবার পরিকল্পনা সেবা থেকে বঞ্চিত হয়েছে। আমি অত্যন্ত আনন্দিত যে, সিটি করপোরেশনের নতুন ১৮টি ওয়ার্ডে আজ থেকে আমাদের এ কার্যক্রম সম্প্রসারিত হচ্ছে। আমি সংশ্লিষ্ট কাউন্সিলরদের বলবো আপনার আগামী মঙ্গলবার (৩১ মে) থেকেই এ বিষয়ে উদ্যোগ গ্রহণ করবেন, যাতে দীর্ঘদিন ধরে বঞ্চিত জনগোষ্ঠী এ স্বাস্থ্যসেবাটা যথাযথভাবে পায়।

তাপস বলেন, করোনা মহামারির মধ্যেও আমাদের জীবন থেমে নেই। বিশ্ব আদৌ করোনা মহামারি থেকে সম্পূর্ণরূপে মুক্ত হতে পারবে কিনা সে বিষয়ে সুস্পষ্ট কোনো দিকনির্দেশনা এখনো পাওয়া যাচ্ছে না। তাই ধরেই নিতে হবে যে, আমাদের করোনা মহামারিরকে সঙ্গে নিয়ে চলতে হবে। তাই চলমান করোনা মহামারির মধ্যেও আমাদের এ পরিবার পরিকল্পনা সেবা যাতে কোনোভাবে বাধাগ্রস্ত না হয় সে বিষয়ে সবাইকে সজাগ থাকতে হবে, সতর্ক থাকতে হবে।

করপোরেশনের প্রধান স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ব্রিগেডিয়ার জেনারেল (ডা.) শরীফ আহমেদের সঞ্চালনায় সভায় দক্ষিণ সিটির প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা ফরিদ আহাম্মদ, আঞ্চলিক নির্বাহী কর্মকর্তা, নারী কাউন্সিলর, পরিবার পরিকল্পনা অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক মিজানুর রহমান ও প্রকল্পের পার্টনারশিপ এলাকায় (১ থেকে ৫ এলাকা) এ কার্যক্রম বাস্তবায়নের সংশ্লিষ্ট পার্টনার সংস্থাগুলোর কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।





@২০১৯ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত । গ্রামপোস্ট২৪.কম, জিপি টোয়েন্টিফোর মিডিয়া লিমিটেডের একটি প্রতিষ্ঠান।
Design BY MIM HOST