ঘোষনা:
শিরোনাম :
নীলফামারীতে পানি উন্নয়ন বোর্ডের স্বেচ্ছাচারিতায় ১২১৭ একর জমির ফসল নষ্ট, এলাকাবাসীর মানববন্ধন। গাজীপুরের কোনাবাড়ীর পোশাক কারখানা শ্রমিকের ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার সৈয়দপুরে বিনামূল্যে অক্সিজেন সেবায় ‘ইটস হিউম্যানিটি’ গৌরবোজ্জল সংগ্রাম ও সাফল্যের ২৭ বছর পূর্তি, আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগ কিশোরগঞ্জে স্বেচ্ছাসেবক লীগের ২৭তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা জয় এর ৫০তম জন্মবার্ষিকীতে ডাক ও টেলিযোগাযোগ বিভাগের ডাক টিকেট, উদ্বোধন। কক্সবাজারের উখিয়ায় ভারী বর্ষনে পাহাড় ধসে ৫ ও পানিতে ১ শিশু নিহত সময় ও নম্বর কমিয়ে স্বাস্থ্যবিধি মেনে নেয়া হবে,এসএসসি ও এইচএসসি বা সমমানের পরীক্ষা ডোমারে করোনা সংক্রমণরোধে মাস্ক বিতরণ চট্টগ্রামে লকডাউনের চতুর্থদিনে মহানগরীতে গাড়ি চলাচল বেড়েছে
ওয়ালটনের মিলিয়নিয়ার অফারে ফ্রিজ কিনে ১০ লক্ষ টাকা পেলেন জলঢাকার মতি

ওয়ালটনের মিলিয়নিয়ার অফারে ফ্রিজ কিনে ১০ লক্ষ টাকা পেলেন জলঢাকার মতি

জলঢাকা (নীলফামারী) প্রতিনিধি,
নীলফামারীর জলঢাকায় ওয়ালটন মিলিয়নিয়ার অফারে ফ্রিজ কিনে ১০ লক্ষ টাকা পেলেন জলঢাকার মাজেদুল ইসলাম মতি। পুরস্কার বিজয়ী মতির বাড়ী জলঢাকা পৌরসভার উত্তর চেরেংগা হাজীপাড়া এলাকায়। সে ওই এলাকার আব্দুর রশিদের ছেলে। সে পেশায় একজন মুদির দোকানদার।

শনিবার বিকালে ১০ লক্ষ টাকার চেক আনুষ্ঠানিক ভাবে ওয়ালটন গ্রুপের পক্ষে মাজেদুল ইসলাম মতি’র হাতে প্রদান করেন চিত্রনায়ক সায়মন সাদিক।

এসময় উপস্থিত ছিলেন সহকারী কমিশনার (ভূমি) সিফাত মো. ইশতিয়াক ভুইঞা, ওসি মোস্তাফিজুর রহমান, উপজেলা আ’লীগ সভাপতি আনছার আলী মিন্টু, ওয়ালটন গ্রুপের ন্যাশনাল ক্রেডিট ম্যানেজার পিএসডি-৭ সুমন মিয়া, জলঢাকা ওয়ালটন প্লাজা ম্যানেজার হাসান মাহমুদসহ বিভিন্ন উপজেলা থেকে আগত ওয়ালটন প্লাজায় কর্মরত ম্যানেজারবৃন্দ।

জলঢাকা ওয়ালটন প্লাজা সূত্রে জানা যায়, গত ২ জুন কিস্তিতে ফ্রিজ কিনতে জলঢাকা ওয়ালটন প্লাজায় আসেন মাজেদুল ইসলাম মতি ও তার পরিবার। অনেক দেখার পর ২বি৬ মডেলের ৩১ হাজার ৫শত টাকা দামের একটি ফ্রিজ তার পরিবারের পছন্দ হয়। মাত্র ৮ হাজার টাকা ডাউন পেমেন্টে ফ্রিজটি তাকে দেয়া হয়। ফ্রিজ কিনে কিছুক্ষনের মধ্যে ম্যানেজারের কাছে মিলিয়নিয়ার অফারের একটি ম্যাসেজ আসে। তখন জানতে পারে মাজেদুল ইসলাম মতি ওয়ালটন গ্রুপের মিলিয়নিয়ার অফারে সর্বোচ্চ পুরস্কারটি জিতেছেন ১০ লক্ষ টাকা।

চেক হাতে পেয়ে বিজয়ী মাজেদুল ইসলাম মতি তার অনুভূতির কথা সাংবাদিকদের ব্যক্ত করেন। তিনি বলেন, আমি একজন মুদি দোকানদার। সামান্য আয় রোজগার করি। অনেকদিন থেকে পরিবার বলছে একটি ফ্রিজ কিনতে কিন্তু সামর্থ্য হয়নি। গত ২ জুন আমার দোকানের হালখাতা ছিল। সেখান থেকে কিছু টাকা উদ্বৃত করে পরিবার নিয়ে জলঢাকা ওয়ালটন প্লাজায় ৮ হাজার টাকা জমা দিয়ে কিস্তিতে ফ্রিজটি কিনি।

তিনি আরও বলেন, ফ্রিজ নিয়ে বাসা যাওয়ার পথে ম্যানেজার সাহেব আমাকে ফোন দিয়ে জানান, আমি ১০ লক্ষ টাকা জিতেছি।





@২০১৯ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত । গ্রামপোস্ট২৪.কম, জিপি টোয়েন্টিফোর মিডিয়া লিমিটেডের একটি প্রতিষ্ঠান।
Design BY MIM HOST