ঘোষনা:
শিরোনাম :
দিনাজপুরে ‍‍‍‍‍” মানুষ মানুষের জন্য ” সংগঠনের উদ্দ্যোগে মাস্ক বিতরণ চাঁদপুরে করোনায় আক্রান্ত ২জনের চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যু : আক্রান্ত আরো ২৫জন। দেশে হারিয়ে যাচ্ছে গ্রামীণ খেলা-ধুলা । সাতক্ষীরায় এক শিশুকে হত্যার ভয় দেখিয়ে ধর্ষনের অভিযোগে,ধর্ষক সিরাজুল গ্রেপ্তার । খুলনা করোনা হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় এক বৃদ্ধের মৃত্যু। চট্টগ্রামে করোনায় আরও ৩ জনের মৃত্যু, নতুন আক্রান্ত ৩৮০ । নারায়ণগঞ্জে লঞ্চ ডুবির ঘটনায় ১৪ স্টাফ সহ এসকেএল -৩ জাহাজটি আটক। ভবানীগঞ্জে করোনা ভাইরাস সংক্রমণে সচেতন করেন,অতিরিক্ত পুলিশ সুপার, এ.এস. এম. মুক্তারু জ্জামান। জলঢাকা থানা নীলফামারী কৃষকদের মাঝে আউশ ধানের বীজ ও সার বিনামূল্যে বিতরণ। বঙ্গবন্ধু ৯ম গেমসে ৯ স্বর্ণ,৭রৌপ্য,১তাম্র অর্জনে চ্যাম্পিয়ন আনসার,ভিডিপি।রানার্সআপ বাংলাদেশ সেনাবাহিনী।
বগুড়া-৬ (সদর) আসনে উপনির্বাচনে সাতজন প্রার্থীর নাম চূড়ান্ত ঘোষণা করেছে নির্বাচন কমিশন।

বগুড়া-৬ (সদর) আসনে উপনির্বাচনে সাতজন প্রার্থীর নাম চূড়ান্ত ঘোষণা করেছে নির্বাচন কমিশন।

বগুড়া প্রতিবেক,

বগুড়া-৬ (সদর) আসনে উপনির্বাচনে সাতজন প্রার্থীর নাম চূড়ান্ত ঘোষণা করেছে নির্বাচন কমিশন। সোমবার প্রার্থিতা প্রত্যাহারের শেষ দিনে চূড়ান্ত সাত প্রার্থীর তালিকা প্রকাশ করা হয়। কমিশনের পক্ষ রিটার্নিং কর্মকর্তা ও বগুড়া জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মাহবুব আলম শাহ প্রার্থীদের বৈধ তালিকা প্রকাশ করেন।

চূড়ান্ত প্রার্থীরা হচ্ছেন আওয়ামী লীগের দলীয় মনোনয়ন পাওয়া প্রার্থী ও জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক এস এম টি জামান নিকেতা, বিএনপি থেকে দলীয় মনোনয়ন পাওয়া এবং জেলা বিএনপির আহ্বায়ক গোলাম মোহাম্মদ সিরাজ (জিএম সিরাজ), জাতীয় পার্টি থেকে মনোনয়ন পাওয়া নুরুল ইসলাম ওমর, বাংলাদেশ কংগ্রেসের মনসুর রহমান, বাংলাদেশ মুসলিম লীগের রফিকুল ইসলাম এবং স্বতন্ত্র প্রার্থী মো. মিনহাজ ও সৈয়দ কবির আহম্মেদ।জেলা রিটার্নিং কর্মকর্তার কার্যালয় সূত্রে জানা গেছে, বগুড়া-৬ আসনের উপ নির্বাচনে ২৭ মে মনোনয়ন পত্র যাচাই বাছাই শেষে বিএনপির দুই জনসহ আটজন প্রার্থীকে বৈধ ঘোষণা করা হয়। এর মধ্যে সোমবার মনোনয়ন পত্র প্রত্যাহারের আগেই গোলাম মোহাম্মদ সিরাজকে বিএনপি থেকে চূড়ান্ত প্রার্থী ঘোষণা করা হয়। গত রোববার বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর স্বাক্ষরিত চিঠিতে জিএম সিরাজকে দলীয় প্রতীক বরাদ্দের জন্য অনুরোধ জানানো হয়। এ কারণে বিএনপির অপর প্রার্থী রেজাউল করিম বাদশার মনোনয়ন পত্র বাতিল হয়।

বগুড়া-৬ আসনটি জিয়া পরিবারের জন্য ‘সংরক্ষিত’ আসন হিসেবে পরিচিত । ১৯৭৯ থেকে ২০০৮ সালের নির্বাচন পর্যন্ত আসনটি একচ্ছত্র দখলে ছিল বিএনপির। এর মধ্যে ১৯৯১ সালের নির্বাচনে ধানের প্রতীকে বিজয়ী হয়েছিলেন সাবেক অর্থ প্রতিমন্ত্রী মুজিবর রহমান । ১৯৯৬, ২০০১ এবং ২০০৮ সাল ছাড়াও বাতিল ২২ জানুয়ারির নির্বাচনে টানা চার দফা বিপুল ভোটে বিজয়ী হন বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া। এর মধ্যে ২০০৮ সালের নির্বাচনে ১ লাখ ৯৩ হাজার ৭৯২ ভোট পেয়ে বিজয়ী হন তিনি। নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী জেলা আওয়ামী লীগের প্রয়াত সভাপতি মমতাজ উদ্দিন ভোট পান ৭৪ হাজার ৬৩৪।

২০১৪ সালের ৫ জানুয়ারির ‘একতরফা’ নির্বাচন বিএনপি বয়কট করে। আওয়ামী লীগের সঙ্গে সমঝোতার মাধ্যমে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় সাংসদ হন মহাজোট মনোনীত জাতীয় পার্টির নুরুল ইসলাম ওমর।

দুর্নীতির মামলায় বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার কারাদণ্ড মাথায় নিয়ে কারাগারে থাকায় একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে দলীয় মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর ধানের শীষ প্রতীকে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করে প্রায় দেড় লাখ ভোটের ব্যবধানে মহাজোট প্রার্থী নুরুল ইসলামকে হারিয়ে বিজয়ী হন। মির্জা ফখরুল শপথ না নেওয়ায় ৩০ এপ্রিল আসনটি শূন্য ঘোষণা করেন স্পিকার শিরিন শারমিন চৌধুরী। ৪ মে উপ নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করে নির্বাচন কমিশন।

ঘোষিত তফসিল অনুযায়ী ২৪ জুন ইলেকট্রিক ভোটিং মেশিনে ভোটগ্রহণ হবে। আজ মঙ্গলবার চূড়ান্ত প্রার্থীদের মাঝে প্রতীক বরাদ্দ দেওয়া হবে। উপনির্বাচনে বগুড়া-৬ আসনে ৩ লক্ষ ৮৭ হাজার ৪৫৮ জন ভোটার ভোটাধিকার প্রয়োগ করবেন।





@২০১৯ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত । গ্রামপোস্ট২৪.কম, জিপি টোয়েন্টিফোর মিডিয়া লিমিটেডের একটি প্রতিষ্ঠান।
Design BY MIM HOST