ঘোষনা:
শিরোনাম :
কিশোরগঞ্জে গৃহহীনদের মাঝে জমিসহ ঘরের চাবি হস্তান্তর ডোমারে প্রধানমন্ত্রীর উপহারের ঘর নির্মাণে অনিয়মের তদন্ত নীলফামারীতে গৃহহীনদের মাঝে জমির দলিল সহ ঘরের চাবি হস্তান্তর। নীলফামারীতে আশ্রয়হীন ১২৫০ পরিবারের স্বপ্ন এখন সত্যি কিশোরগঞ্জ মডেল উচ্চ বিদ্যালয়ের রড চুরি- ধ্রুত চোরকে ছেড়ে দিল কর্তৃপক্ষ নীলফামারীতে শিক্ষার্থীদের মাঝে করোনার টিকা প্রয়োগ শুরু রাত পোহালেই ডিমলায় নতুন ঘরে উঠবেন ভূমিহীন গৃহহীন পরিবার ওয়ালটনের মিলিয়নিয়ার অফারে ফ্রিজ কিনে ১০ লক্ষ টাকা পেলেন জলঢাকার মতি টাঙ্গাইলে নতুন ৯২ জন করোনা শনাক্ত বাংলাদেশ সরকারের প্রথম অর্থ সচিবের স্ত্রী কুলসুম জামান আর নেই
কিশোরগঞ্জে ইউপি চেয়ারম্যানের সংবাদ সম্মেলন ।

কিশোরগঞ্জে ইউপি চেয়ারম্যানের সংবাদ সম্মেলন ।

 

কিশোরগঞ্জ (নীলফামারী)প্রতিনিধি ,

ভিজিএফ কার্ডধারীদের ধর্ষনের হুমকি শিরোনামে একটি অনলাইন পত্রিকায় খবর প্রকাশের প্রতিবাদে শনিবার বিকালে নীলফামারীর কিশোরগঞ্জ সদর ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান আনিছুল ইসলাম আনিছ তার নিজ অফিস কক্ষে সংবাদ সম্মেলন করেন। এ সময় উপস্থিত ছিলেন,৬ নম্বর ওয়ার্ড সদস্য আলতানুর রহমান ও ইউনিয়ন ডিজিটাল সেন্টারের উদ্যোক্তা পরমেশ্বর রায়।
সংবাদ সম্মেলনে চেয়ারম্যান লিখিত বক্তব্যে বলেন, গত ৪ জুন উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান কর্তৃক কিছু সংখ্যক ব্যক্তি নাম বিহীন ১০টি করে কার্ড নিয়ে চাল নিতে আমার পরিষদে আসে। আমি প্রকৃত কার্ডধারী ছাড়া চাল দিতে না চাইলে উপজেলা যুবলীগের যুগ্ম আহবায়ক মিনহাজুল ইসলাম, সদস্য মোস্তাইন বিল্লাহ,রুবেল হোসেন, সোহেল হোসেন,আমার সাথে তর্কে জড়িয়ে পড়ে। এক পর্যায়ে তারা টেবিল চাপড়িয়ে বলে আমরা কোন কার্ডধারীকে স্ব-শরীরে নিয়ে আসতে পারবো না। চাল আপনাকে দিতেই হবে। আমার সিদ্ধান্তে আমি অটল থাকায় তারা কিছু নারী কার্ডধারীদের দিয়ে রাস্তায় হট্রগোল শুরু করে এবং আমার অফিস কক্ষে আক্রমন করে। এ সময় আমি পুলিশের সাহায্য নিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রন করি। কিন্তু অবলোকন টুয়েন্টিফোর ডট কম নামে একটি অনলাইন পত্রিকা নিজস্ব প্রতিবেদক দিয়ে ওই দিনই ঘটনার বিষয় পুরোপুরি বিকৃত করে একটি বানোয়াট খবর পরিবেশন করে। সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে বিকৃত খবরের আমি তীব্র নিন্দা প্রতিবাদ করছি।
এ ব্যাপারে যুবলীগ সদস্য মিনহাজুল ইসলামের সাথে মোবাইল ফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, আমি মোবাইলে কোন কথা বলব না আমি নীলফামারী বাদিয়ার মোড়ে আছি। সামনাসামনি হয়ে কথা বলব।
কিশোরগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ হারুন অর রশীদের সাথে কথা হলে তিনি বলেন,ঘটনাস্থলে গিয়ে আমি চেয়ারম্যানের মাধ্যমে জানতে পারি সুবিধাভোগীদের অনেকের কাছে ন্যাশনাল আইডি কার্ডের ফটোকপি ছিল না। সে কারনে তিনি ভিজিএফ’র চাল দেয়া বন্ধ করেন। তবে চেয়ারম্যান মহিলাদের অশ্লীল ভাষায় গালি গালাজের বিষয়ে উপজেলা নির্বাহী অফিসারকে লিখিত অভিযোগ করতে বলা হয়েছে।





@২০১৯ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত । গ্রামপোস্ট২৪.কম, জিপি টোয়েন্টিফোর মিডিয়া লিমিটেডের একটি প্রতিষ্ঠান।
Design BY MIM HOST