ঘোষনা:
শিরোনাম :
ডিমলায় তিস্তার চরে ভুট্টার বাম্পার ফলন। সাতক্ষীরায় করোনায় আক্রান্ত ও উপসর্গ নিয়ে মেডিকেল হাসপাতালে নারীসহ দুই জনের মৃত্যু। বাংলাদেশ রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটির উপজেলা শাখা গঠনের আলোচনা সভা । নীলফামারীতে চাঁদা দিতে না পারায়,ঘরে অগ্নিসংযোগ জোড়পূর্বক মাছ চুরি। সৈয়দপুরের তিন শিক্ষার্থীর ভর্তি অনিশ্চিত মেডিকেল কলেজে । করোনা আক্রান্ত জননেতা বীর মুক্তিযোদ্ধা জয়নাল আবেদীন অনেকটা সুস্থ্য বোধ করছেন। লকডাউনে ১০টা -০১ টা পর্যস্ত খোলা থাকবে ব্যাংক সেবা। চাঁদ দেখা গেছে, বুধবার থেকে পবিত্র রমজান শুরু। শঙ্কিত হওয়ার কোনো কারণ নেই, সরকার সবসময় পাশে থাকবে;প্রধানমন্ত্রী। সিলেটে দক্ষিণ আফ্রিকা নারী ক্রিকেট দলের ৫ ক্রিকেটার করোনা শনাক্ত।
কিশোরগঞ্জে সাকার্স , চিত্রজগতের শিল্পিদের পারফর্ম উঠতিদের ঢল ।

কিশোরগঞ্জে সাকার্স , চিত্রজগতের শিল্পিদের পারফর্ম উঠতিদের ঢল ।

কিশোরগঞ্জ(নীলফামারী)প্রতিনিধি ,
নামে সার্কাস, কাজে চিত্রজগতের শিল্পিদের পারফর্ম। টিকিটের মুল্য নাভিশ্বাস হলেও উঠতি বয়সীদের ঢল নামছে জনবহুল গ্রাম কিশোরগঞ্জ উপজেলার উত্তর দুড়াকুটিতে। রাত বারোটা বাজলেই সার্কাসের আশপাশে বসছে মাদকসেবীদের আড্ডা। এছাড়া হাতির চাঁদাবাজিতে অতিষ্ঠ হয়ে উঠেছে পথচারী।
দুপুর ২টা হলে বগুড়া এলাকার ‘দি রাজমনী সার্কাসের’ কয়েকটি মাইক বেজে উঠে উচ্চশব্দে। রাত বারোটা পর্যন্ত চলে শব্দের অসহনীয় খেলা। শব্দ দূষণে অতিষ্ঠ হয়ে উঠেছে আশপাশ গ্রামের লোকজন। এদিকে উত্তর দুড়াকুটি গ্রামের ‘নান্নুর বাজার’ সংলগ্ন এলাকায় যখন সাকার্সের মাইক বেঁজে উঠে তখন উঠতি বয়সীরাও প্রাণপন ছোঁটে। যেন হ্যামিলনের বাঁশি বাঁজছে। আকর্ষণ একটিই সেটি চিত্রজগতের শিল্পিদের পারফর্ম। তাদের উৎসাহ আর আমেজ দেখলে মনে হয় সাকার্সের কসরত যেন তেতো হয়ে গেছে। সুযোগটি হাতছাড়া করছে না সাকার্স পরিচালনা কমিটি। এতে তাদের ফান্ডে মিলছে কাড়ি কাড়ি টাকা। কপাল পুড়ছে গ্রামবাসীদের, কারণ তাদের অসহনীয় শব্দে রাত ১২টা পর্যন্ত নির্ঘুম কাটাতে হচ্ছে। ঈদের দিন থেকে তারা এ অবস্থার শিকার হয়ে আছে। উঠতিরা বারবার এ পারফর্ম দেখতে হাত শুন্য করে ফেলছে। এতে অনেকে বিপথগামী হচ্ছে। বাড়ছে ছিনতাই। গত ১১ জুন রাত সাড়ে ৯টায় নিতাই ইউনিয়নের জহদ্দি মামুদের ছেলে প্যাটলা মামুদ (৩০) তার বন্ধু সহ সার্কাসে যাওয়ার পথে উত্তর দুড়াকুটি গ্রামের ব্রম্যতলে ছিনতাইয়ের শিকার হয়। এতে তার ও বন্ধুর দুটি এ্যানড্রোয়েট মোবাইল, ১টি সাইকেল ও ৭ হাজার টাকা খোয়া যায়। ওই এলাকার মতিয়ার রহমান জানান, ‘কর্তৃপক্ষ যদি সার্কাসের মেয়াদ বাড়ান, তাহলে অপরাধও বাড়বে। এছাড়া কোমলমতি শিক্ষার্থীদের লেখাপড়ায় পড়ছে ভাটা। কেউ শব্দদুষণে মনযোগ হারাচ্ছে, কেউ ঝুকছে সার্কাসে।’ সার্কাস প্যান্ডেলের পাশেই রয়েছে একটি প্রাইমারী বিদ্যালয়। শির্ক্ষাথীরা পড়াশুনা বাদ দিয়ে ঝুকছে সার্কাস দেখায়। প্রতিদিন রাত বারোটা বাজলেই সার্কাস প্যান্ডেলের আশপাশে মাদকসেবীদের আড্ডা বসছে। এছাড়া হাতির চাঁদাবাজিতে অতিষ্ঠ হয়ে উঠেছে পথচারী। ৫০ থেকে ১০০ টাকার কম দিলে হাতি পথচারীকে ছেড়ে দেয় না বলেও জানা গেছে। ৩৭ সদস্যের সার্কাস পরিচালনা কমিটির প্রতিনিধি মোঃ সুজনের সাথে কথা হলে তিনি বলেন, আমরা তো খারাপ কিছু করছি না; দর্শকদের মনোরঞ্জন করছি।’ এ ব্যাপারে কিশোরগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ এম হারুন অর রশিদের সাথে কথা হলে তিনি বলেন,এলাকায় অপরাধের অভিযোগ পাইনি।





@২০১৯ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত । গ্রামপোস্ট২৪.কম, জিপি টোয়েন্টিফোর মিডিয়া লিমিটেডের একটি প্রতিষ্ঠান।
Design BY MIM HOST