ঘোষনা:
শিরোনাম :
নীলফামারীতে ক্লুলেস হত্যা মামলার চার আসামী গ্রেফতার; পুলিশ সুপারের প্রেস ব্রিফিং নীলফামারীতে গর্ভবর্তী মায়েদের কমিউনিটি ক্লিনিকে সেবা নিতে স্বাস্থ্য মন্ত্রীর আহব্বান পাটগ্রামে স্বঘোষিত মুক্তিযোদ্ধা গবেষক মিঠু’র বিরুদ্ধে সংবাদ সম্মেলন লালমনিরহাটের হাতিবান্ধায় ফেন্সিডিলসহ মাদক ব্যবসায়ীকে গ্রেফতার করেছে র‍্যাব-১৩ নদীতে মাছ ধরতে গিয়ে, লাশ হয়ে ফিরতে হলো চট্টগ্রামে এইচএসসি পরীক্ষার্থীকে ধর্ষণ, আটক পিয়ন নীলফামারীতে বিরল আ’কৃতির শি’শুর জ’ন্ম, নেই হাত-পা ও মাথা পাটগ্রামে বিভিন্ন  স্থানে অভিযান, বোমা মেশিন বিনষ্ট ও জরিমানা চট্টগ্রামে মহামারী আকারে ক্ষুরা ও লাম্পি রোগে আক্রান্ত গরু চট্টগ্রামে আমন চারা তৈরিতে ব্যাস্ত সময় পার করছে কৃষক
চট্টগ্রামে ঘোষণা দিয়ে হত্যা, গ্রেফতার ৪ 

চট্টগ্রামে ঘোষণা দিয়ে হত্যা, গ্রেফতার ৪ 

চট্টগ্রাম প্রতিবেদক,

চট্টগ্রামের পাহাড়তলীতে সন্ধ্যায় ঘোষণা দিয়ে ভোররাতে ছুরিকাঘাতে আজাদুর রহমান নামে এক যুবক হত্যার ঘটনায় মূল আসামী রাজীবসহ ৪ জনকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব-৭।আজ সোমবার (২৯ মে/২৩) রাঙ্গামাটি জেলার কোতয়ালী থানাধীন একটি আবাসিক হোটেল থেকে তাদের গ্রেফতার করা হয়। গ্রেফতারকৃত আসামীরা হলো-আবু তাহের রাজীব, দেলোয়ার হোসেন জয়, মোঃ রায়হান সজীব ও আবুল হাসনাত রানা ।
র‌্যাব- ৭ এর সিনিয়র সহকারী পরিচালক মোঃ নূরুল আবছার জানান, রোববার সন্ধ্যায় চট্টগ্রাম মহানগরীর নয়াবাজারের একটি কারখানার গেইটের সামনে রাজীব প্রশ্রাব করলে নৈশ প্রহরী ভিকটিম এর বড় ভাই মফিজ তাকে বাধা প্রদান করে। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে ওই ব্যাক্তি নৈশ প্রহরী মফিজকে বলে, ‘এটা সরকারী জায়গা তুই বাধা দেওয়ার কে’ এই বলে উভয়ের মধ্যে কথা কাটাকাটি হয়। একপর্যায়ে আসামী আবু তাহের রাজীব, ওসমান, আবুল হাসান, এবং কতিপয় অজ্ঞাতনামা আসামীরা উক্ত জায়গায় এসে কথা কাটাকাটিতে লিপ্ত হয়। বড় ভাইয়ের সাথে কথা কাটাকাটির শব্দ শুনে ভিকটিক আজাদুর রহমান ঘটনাস্থলে গেলে তার সাথেও কথা কাটাকাটি এবং একপর্যায়ে ধাক্কাধাক্কি হয়। পরবর্তীতে আসামীরা ভিকটিমকে দেখে নিবে বলে হুমকি দিয়ে স্থান ত্যাগ করে।
পরবর্তীতে ভোরে ভিকটিম আজাদুর রহমান দোকান হতে নাস্তা আনার জন্য বাসা হতে বের হয়। পথিমধ্যে পাহাড়তলী থানাধীন নয়াবাজার পৌছালে আগে উৎপেতে থাকা আসামীরা ভিকটিমকে একা পেয়ে হত্যার উদ্দেশ্যে এলাপাথাড়ীভাবে পেটে, পিঠে ও শরীরের বিভিন্ন জায়গায় উপর্যুপরি ছুরিকাঘাত করে পালিয়ে যায়। ছুড়িকাঘাতের ফলে ভিকটিমের পেটের ভুরি বের হয়ে যায়। ভিকটিমের চিৎকার শুনে আশেপাশের লোকজন তাকে উদ্ধার করে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক ভিকটিমকে মৃত ঘোষণা করেন। হাসপাতালে নেয়ার পথে মুমূর্ষ অবস্থায় ভিকটিম তার ভাতিজা তারেকুর রহমান এর নিকট তার উপর আক্রমণকারীদের নাম প্রকাশ করেন।
এই ঘটনায় ভিকটিমের স্ত্রী বাদী হয়ে পাহাড়তলী থানায় ০৪ জনকে আসামী করে হত্যা মামলা করেন । মামলা দায়েরের পর হতে আসামীরা গ্রেফতার এড়াতে আত্মগোপনে চলে যায়। গ্রেফতারকৃত আসামীদের পরবর্তী আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহনের নিমিত্তে সংশ্লিষ্ট থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে।





@২০১৯ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত । গ্রামপোস্ট২৪.কম, জিপি টোয়েন্টিফোর মিডিয়া লিমিটেডের একটি প্রতিষ্ঠান।
Design BY MIM HOST