ঘোষনা:
শিরোনাম :
নীলফামারীর সৈয়দপুরে কিশোরীর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার ডিমলায় গাড়ী চালক শ্রমিকদের মাস্ক পড়তে সচেতনতামুলক মতবিনিময় নীলফামারীতে ট্রাকের চাকায় পিষ্টে,নারী পোশাক কর্মীর মৃত্যু চট্টগ্রামে গনধর্ষণের পর হত্যা, মামলায় ১ জনের মৃত্যুদন্ড চট্টগ্রামে দুদকের মামলায় দুই রাজস্ব কর্মকর্তা কারাগারে নীলফামারীতে শীতের তীব্রতায় দুর্ভোগ,সূর্যের দেখা মিলবেনা সারাদিন বাংলাদেশের অগ্রগতির অদম্য গতি কেউ থামাতে পারবে না : প্রধানমন্ত্রী গভীর রাতে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে ছাত্রলীগের দুই গ্রুপের সংঘর্ষ, আহত দুই নীলফামারীতে মাইক্রোবাসের ধাক্কায় শিশু নিহত ডিমলায় ৪র্থ শ্রেনীর ছাত্রী ধর্ষন, ধর্ষক আটক
ফুলছড়ির গজারিয়ায় ব্রহ্মপুত্র নদের ওয়াপদা বাঁধে ধ্বস, বিস্তির্ণ এলাকা প্লাবিত ।

ফুলছড়ির গজারিয়ায় ব্রহ্মপুত্র নদের ওয়াপদা বাঁধে ধ্বস, বিস্তির্ণ এলাকা প্লাবিত ।

কামরুল হাসান, গাইবান্ধা প্রতিনিধি , 

গাইবান্ধার ফুলছড়ি উপজেলার গজারিয়া ইউনিয়নের কাতলামারি গ্রামে ব্রহ্মপুত্র নদের ওয়াপদা বাঁধ ধ্বসে অন্তত ১৫টি গ্রাম প্লাবিত হয়েছে। এ এসময় স্রোতের সাথে ভেসে গেছে কমপক্ষে ২০টি বাড়িঘর। এতে পানিবন্দী হয়ে পড়েছে আশেপাশে দশ গ্রামের অন্তত ২০ হাজার মানুষ। বাঁধ ভেঙ্গে যাওয়ায় বন্যা দুর্গত পড়েছে এলাকার হাজার হাজার মানুষ।

এলাকাবাসী জানায়, সোমবার (১৫ জুলাই) রাত দেড়টার দিকে হঠাৎ বিকট শব্দে বাঁধের দশ মিটার অংশ ধ্বসে যায়। বাঁধ ধ্বসে যাওয়ার সাথে সাথে আশেপাশের এলাকাগুলোতে প্রবল বেগে পানি ঢুকতে শুরু করে। আধা ঘন্টার মধ্যে অন্তত ১৫টি গ্রামে পানি ঢুকে পড়ে। বাড়িঘর হারিয়ে নিজের শেষ সম্বল কাঁথা জড়িয়ে কেউ খালি গায়ে নিরাপদ আশ্রয়ের খোঁজে বাঁধে আশ্রয় নেয়।

এ সময় তারা অভিযোগ করেন, পানি উন্নয়ন বোর্ডের গাফিলতির কারনে বাঁধটি ধ্বসে গেছে। বার বার গাইবান্ধা পাউবো’র কর্তাদের ফোন করেও তাদের কাউকে পাওয়া যায়নি।

পানি উন্নয়ন বোর্ড সুত্রে জানা গেছে, সোমবার (১৫ জুলাই) দুপুর ১২টা পর্যন্ত ফুলছড়ির তিস্তামুখ ঘাট পয়েন্টে ব্রহ্মপুত্র নদের পানি বিপদসীমার ১১২ সে.মি., তিস্তার পানি কাউনিয়া পয়েন্টে ৬ সে.মি. কমে ১১ সে.মি এবং ঘাঘট নদীর পানি জেলা শহরের নতুন ব্রীজ পয়েন্টে ৬৮ সে.মি. উপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছিল। তবে করতোয়া নদীর পানি এখনও বিপদসীমার নিচে রয়েছে।





@২০১৯ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত । গ্রামপোস্ট২৪.কম, জিপি টোয়েন্টিফোর মিডিয়া লিমিটেডের একটি প্রতিষ্ঠান।
Design BY MIM HOST