ঘোষনা:
শিরোনাম :
সাতক্ষীরায় করোনায় আক্রান্ত ও উপসর্গ নিয়ে মেডিকেল হাসপাতালে নারীসহ দুই জনের মৃত্যু। বাংলাদেশ রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটির উপজেলা শাখা গঠনের আলোচনা সভা । নীলফামারীতে চাঁদা দিতে না পারায়,ঘরে অগ্নিসংযোগ জোড়পূর্বক মাছ চুরি। সৈয়দপুরের তিন শিক্ষার্থীর ভর্তি অনিশ্চিত মেডিকেল কলেজে । করোনা আক্রান্ত জননেতা বীর মুক্তিযোদ্ধা জয়নাল আবেদীন অনেকটা সুস্থ্য বোধ করছেন। লকডাউনে ১০টা -০১ টা পর্যস্ত খোলা থাকবে ব্যাংক সেবা। চাঁদ দেখা গেছে, বুধবার থেকে পবিত্র রমজান শুরু। শঙ্কিত হওয়ার কোনো কারণ নেই, সরকার সবসময় পাশে থাকবে;প্রধানমন্ত্রী। সিলেটে দক্ষিণ আফ্রিকা নারী ক্রিকেট দলের ৫ ক্রিকেটার করোনা শনাক্ত। চাঁপাইনবাবগঞ্জ আতাহার বাজার হতে গাঁজাসহ এক মহিলাকে গ্রেফতার করেছে র‍্যাব-৫।
পল্লী বিদ্যুতের লাইন নির্মাণে অনিয়ম দুর্নীতি—৩। দালালের দাপটে গ্রাহকের ভোগান্তি বেড়েই চলছে। নীলফামারী পল্লী বিদ্যুতায়ন বোর্ডের লাইন নির্মাণে টাকা নেওয়া অধিকার……………..।

পল্লী বিদ্যুতের লাইন নির্মাণে অনিয়ম দুর্নীতি—৩। দালালের দাপটে গ্রাহকের ভোগান্তি বেড়েই চলছে। নীলফামারী পল্লী বিদ্যুতায়ন বোর্ডের লাইন নির্মাণে টাকা নেওয়া অধিকার……………..।

নূর সিদ্দিকী, বিশেষ প্রতিবেদক ,
ঘরে ঘরে বিদ্যুৎ পৌনছে দেওয়ার লক্ষে প্রধানমন্ত্রীর ঘোষনা বাস্তবায়নে নীলফামারী জেলায় পল্লী বিদ্যুতের কিশোরগঞ্জ ও সদর উপজেলাকে শতভাগ বিদুৎ ঘোষনার পর এবার জলঢাকা,ডোমার,ডিমলা উপজেলায় প্রত্যান্ত অঞ্চলে প্রান্তিক জনগোষ্টির মাঝে শতভাগ বিদ্যুৎ পৌছে দেওয়ার লক্ষ্যে পল্লী বিদ্যুতায়ন বোর্ডের অধিনে গ্রাম,পাড়া,মহল্লায় তিনটি প্রকল্পের মাধ্যমে লাইন নির্মাণের কাজ চলছে দ্রুত গতিতে।লাইন নির্মান শেষ হওয়ার পরে,বিদ্যুৎ সংযোগ দিতে দিনরাত নিরলস কাজ করছে পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি।তেমনি দিনরাত ছুটে চলছে দালাল বাহিনী গ্রামের পর গ্রাম যেন অবকাশ নেই এক মুহুর্ত।৪৫০ টাকায় বিদ্যুৎ সংযোগ,দালালের খপ্পরে তিন থেকে দশ হাজার টাকায় গ্রাহকরা সংযোগ পাচ্ছে।
জলঢাকা,ডোমার,ডিমলা উপজেলায় পল্লী বিদ্যুতায়ন বোর্ডের নীলফামারী জেলার নির্বাহী প্রকৌশলী নাফিউল ইসলামের তত্বাবধানে ডি,এন,ই,(১.৫)পনের লক্ষ গ্রাহক সংযোগ প্রকল্প,ইউ,আর,আই,ডি,এ প্রকল্পের লাইন নির্মাণ এগিয়ে চলছে বিদুৎ গতিতে।তেমনি বিদ্যুৎ গতিতে গ্রাহকদের কাছ থেকে প্রতিটি গ্রাহকের বাড়ী থেকে তিন থেকে পাঁচ হাজার টাকাসহ তিন উপজেলায় ৩ কোটি টাকা তুলছে দালালরা,উর্ধতন কর্তাদের টাকা দিলে আগে পোল পুতে লাইন নির্মান হবে এই চুক্তিতে দালালরা গ্রাহকের কাছে টাকা নেয়া যেন অধিকার মনে করছে।দালালদের দাপটে গ্রাহকের হয়রানি দিন দিন বেড়েই চলছে নিরব পল্লী বিদ্যুতায়ন বোর্ডের কর্মকর্তারা।
প্যাকেজ ১.৫- ৫৩২ -৩ ,লড নম্বর- ডিম -বি -১৯৮ এ উত্তর ঝুনাগাছা চাপানির গ্রাহকরা জানায়,১৬/১৭ সালে লাইন মাপামাপি হয়েছে দীর্ঘ দিন থেকে অফিসে ঘোরাঘুরি করছি পোল আসে নাই।এই এলাকায় দালাল আবুলকে সেট করেছে ঠিকাদার মোনাববেরুল সাহেব।দালালকে দিয়ে এলাকায় গ্রাহকের কাছে বলছে প্রতি গ্রাহক ৩ হাজার করে টাকা দিলে সেখানে ৬টি পোল যাবে।ডি এন ই ডিম-এফ-১২৪ গ্রাম আকাশ কুড়ি ডিমলা দালাল মোস্তফা প্রতি গ্রাহক ৩ হাজার করে টাকা দিয়ে সেখানে ১১টি পোল নিয়ে গেছে।আর নীলফামারী জেলা অফিসের বড় স্যার বলছে ডিএনই’র পোল হবেনা।কিন্তু দালালের মাধ্যমে টাকা নিয়ে পোল দেয়া হচ্ছে। এলাকায় লাইন গুলো ১৫-১৬ অর্থ বছরে লাইন মাপা হয়।দুই বছর হয়েছে। একই এলাকায় দুইটি সিট ডিম-বি-১৫৭এলাকা পশ্চিম ছাতনাই ডিম-বি-১১৮-পার্ট-১ একই এলাকায় লাইন ডিজাইনে একই ইঞ্জিনিয়ার লিমন পর্যায় ক্রমে লাইন মাপে।চাপানির ক্যানেলের পার এলাকার গ্রাহকরা বলছে ডিএনই প্রকল্পের ১৫১ লডের মাথায় ৪টি পোল বিশেষভাবে ঠিকাদারকে দিয়ে লাইন নির্মাণের চাপানির জামির উদ্দিনের ছেলে জাহাঙ্গীর এলাকায় বলে বেরাচ্ছে ডিএনই প্রকল্পের ১৫১ লডের গ্রাহকরা এ জনমে কারেন্ট পাবেননা। যত লেখালেখি করুক সাংবাদিক কোন কাজ হবেনা।কই পেপার বেড়াইছে কোন কাজ হইছে।গ্রাহকরা হতাশা ভরে বলছে ভাই লেখালেখি বন্দ থোন,বরং এলাকায় দালাল পোলের রেট বাড়ে দিছে।দরকার নাই এ দেশে দুর্নীতিবাজদের জয় হবে। ঠিাকাদারদের লোকজনের জামাই আদরে রাখতে দালালরা গ্রাহককে চাপ দিয়ে সবকিছু আদায় করে।
পল্লী বিদুতের লাইন নির্মাণে গ্রাহকের হতাশার কথা নিয়ে আরও থাকছে আগামীতে।
চলবে—-





@২০১৯ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত । গ্রামপোস্ট২৪.কম, জিপি টোয়েন্টিফোর মিডিয়া লিমিটেডের একটি প্রতিষ্ঠান।
Design BY MIM HOST