ঘোষনা:
শিরোনাম :
সাতক্ষীরায় করোনায় আক্রান্ত ও উপসর্গ নিয়ে মেডিকেল হাসপাতালে নারীসহ দুই জনের মৃত্যু। বাংলাদেশ রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটির উপজেলা শাখা গঠনের আলোচনা সভা । নীলফামারীতে চাঁদা দিতে না পারায়,ঘরে অগ্নিসংযোগ জোড়পূর্বক মাছ চুরি। সৈয়দপুরের তিন শিক্ষার্থীর ভর্তি অনিশ্চিত মেডিকেল কলেজে । করোনা আক্রান্ত জননেতা বীর মুক্তিযোদ্ধা জয়নাল আবেদীন অনেকটা সুস্থ্য বোধ করছেন। লকডাউনে ১০টা -০১ টা পর্যস্ত খোলা থাকবে ব্যাংক সেবা। চাঁদ দেখা গেছে, বুধবার থেকে পবিত্র রমজান শুরু। শঙ্কিত হওয়ার কোনো কারণ নেই, সরকার সবসময় পাশে থাকবে;প্রধানমন্ত্রী। সিলেটে দক্ষিণ আফ্রিকা নারী ক্রিকেট দলের ৫ ক্রিকেটার করোনা শনাক্ত। চাঁপাইনবাবগঞ্জ আতাহার বাজার হতে গাঁজাসহ এক মহিলাকে গ্রেফতার করেছে র‍্যাব-৫।
ছুটি শেষ হওয়ায় ঢাকামুখী যাত্রীদের চাপ বেড়েছে কাঁঠালবাড়ী-শিমুলিয়া ঘাটে।

ছুটি শেষ হওয়ায় ঢাকামুখী যাত্রীদের চাপ বেড়েছে কাঁঠালবাড়ী-শিমুলিয়া ঘাটে।

মাদারীপুর প্রতিনিধি ,
শনিবার ঈদের ছুটি শেষ হওয়ায় শুক্রবার সকাল থেকেই ঢাকামুখী যাত্রীদের চাপ বেড়েছে কাঁঠালবাড়ী-শিমুলিয়া ঘাটে। টানা ৯ দিন প্রিয়জনের সঙ্গে ছুটি কাটিয়ে ঢাকার উদ্দেশে পাড়ি দিচ্ছেন যাত্রীরা।

জানা যায়, দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলের ২১ জেলার যাত্রীরা কাঁঠালবাড়ী ঘাট হয়ে পদ্মা পাড়ি দিচ্ছেন। এ রুটে চলাচলকারী ১৭টি ফেরি, ৮৭টি লঞ্চ ও প্রায় ২ শতাধিক স্পিডবোট সার্বক্ষণিক ব্যস্ত রয়েছে যাত্রী পারাপারে। শুক্রবার সকাল থেকে যাত্রীদের চাপ দেখা গেছে। তবে বেলা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে চাপ আরও বাড়বে বলে ধারণা ঘাট সংশ্লিষ্টদের।

এদিকে শিমুলিয়া ঘাটের কাছে পদ্মায় প্রবল স্রোত ও ঢেউ থাকায় লঞ্চ ও স্পিডবোটের তুলনায় যাত্রীরা ফেরিতে করে পার হচ্ছেন। ঘাটে বিআইডব্লিউটিএ, বিআইডব্লিউটিসি, পুলিশ, র‌্যাব, ফায়ার সার্ভিস, আনসার, স্কাউট, জেলা প্রশাসন ও উপজেলা প্রশাসনের কর্মকর্তা-কর্মচারীরা দায়িত্ব পালন করছেন।

বিআইডব্লিউটিসির কাঁঠালবাড়ী ঘাট ব্যবস্থাপক আ. সালাম মিয়া জানান, আবহাওয়া শান্ত থাকায় সকাল থেকে নৌযান চলাচল স্বাভাবিক রয়েছে। ঈদের ছুটি শেষ হয়ে যাচ্ছে। সকাল থেকেই কর্মস্থলে ফিরছে মানুষ। তবে এখনও ঘরমুখো মানুষের চাপ রয়েছে ঘাট এলাকায়। লঞ্চ, স্পিডবোটের পাশাপাশি ফেরিতে পরিবহনের চেয়ে যাত্রীদের ভিড় বেশি রয়েছে।





@২০১৯ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত । গ্রামপোস্ট২৪.কম, জিপি টোয়েন্টিফোর মিডিয়া লিমিটেডের একটি প্রতিষ্ঠান।
Design BY MIM HOST