ঘোষনা:
শিরোনাম :
রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের করোনা ওয়ার্ডে মৃত্যু ৩ চট্টগ্রামে করোনা আক্রান্ত ৯৮৯ জন,সংক্রমণের হার ৩৯ দশমিক ৯৫ বিজিবি ঠাকুরগাঁও সেক্টর আন্তঃ ব্যাটালিয়ন ভলিবল প্রতিযোগিতা-২০২২ এর উদ্বোধন নীলফামারীতে গ্রামের বিভিন্ন রাস্তাঘাট উন্নয়নে মাটি কাটার কাজ করছে,১৩ হাজার ৫৫১ জন শ্রমিক নীলফামারীতে অতি দরিদ্র কর্মসংস্থান কর্মসূচীর শ্রমিক নিয়োগে গণমাধ্যমে প্রকাশের প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন করোনার কারণে সারাদেশে নদী ও খাল-নালায় অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ বন্ধ,পানিসম্পদ প্রতিমন্ত্রী চট্টগ্রামে একদিনে করোনায় হাজার পেরিয়ে শনাক্ত নীলফামারীর সৈয়দপুরে কিশোরীর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার ডিমলায় গাড়ী চালক শ্রমিকদের মাস্ক পড়তে সচেতনতামুলক মতবিনিময় নীলফামারীতে ট্রাকের চাকায় পিষ্টে,নারী পোশাক কর্মীর মৃত্যু
নীলফামারীতে ১০ গ্রামের মানুষের দুর্ভোগ, চলাচলে অযোগ্য কাদা-মাটির রাস্তায় ধানের চাড়া লাগিয়ে পাকা করণের দাবী ।

নীলফামারীতে ১০ গ্রামের মানুষের দুর্ভোগ, চলাচলে অযোগ্য কাদা-মাটির রাস্তায় ধানের চাড়া লাগিয়ে পাকা করণের দাবী ।

আতিকুল ইসলাম নীলফামারী ,
৬ গ্রামের কাঁদা পানি যাতায়াতের অনুপোযোগী কাঁচা রাস্তাটি পাকা করণের দাবীতে শুক্রবার সকাল ১০টায় এলাকাবাসি ও পথচারীসহ রাস্তায় ধানের চাড়া রোপন করে রাস্তা পাকা করণের দাবী এবং দ্রুত কার্যকারি পদক্ষেপ গ্রহনের দাবি জানায় এলাকাবাসি।
নীলফামারী সদর লক্ষীচাপ ইউনিয়নের সহদেব বড়গাছা গ্রাম হয়ে ঐতিয্যবাহী রামগঞ্জ হাট গ্রামীনব্যাংক মোড় পর্যন্ত ৩ কিলোমিটার কাঁচা রাস্তাটির বেহাল দশা।
১০ গ্রামের প্রায় ২০ হাজার মানুষের চলাচলে দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে কাঁচা রাস্তাটির কারনে। ওই এলাকার মানুষের জেলা শহড়ে যাতায়াতের একমাত্র অবলম্বন এই চলাচলের অযোগ্য কাঁচা রাস্তাটি। প্রতিদিন স্কুল, কলেজ, মাদ্রাসার শত শত শিক্ষার্থী যাতায়াত করে রাস্তা দিয়ে। সহদেব বড়গাছা, নৃসিংহ, কচুয়া,দাঁড়িহারা, অচিনতলা, চৌরঙ্গী গ্রাম সহ অন্যান্য গ্রামের বাসিন্দারা বলেন, জীবন জীবিকার তাগিদে নীলফামারী জেলা শহড়ে প্রতিদিন যাতায়াতের ভরসা এই কাদা-মাটির রাস্তাটি, সাধারণ মানুষ, স্কুলগামী শিক্ষার্থীদের যাতায়াত এবং ব্যবসায়ীদের মালামাল ও ভারী যানবাহনের জন্য রাস্তাটি যেন মরণফাঁদ হয়ে দাঁড়িয়েছে।
বর্ষার সময় ভাঙ্গা গর্ত, কাদা আর পানি দিয়ে রাস্তা চলাচলের অনুপোযোগী হয়ে থাকে। আর গ্রীষ্মের সময় ধূলা বালি ,খানাখন্দের মধ্যে দিয়ে পথচারীদের চরম দূর্ভোগে যাতায়াত করতে হয়। চৌরঙ্গী স্কুল এ্যান্ড কলেজ, রামগঞ্জ স্কুল এ্যান্ড কলেজ, দুবাছুরি মাদ্রাসা, রামগঞ্জ হাটে কৃষিপণ্য, শাকসবজী, ও ধান-চালের আসা-যাওয়ার ভরসাই এই রাস্তাটি। পথচারী মিলন মিয়া, রাকিবুল ইসলাম, সানোয়ার হোসেন বলেন, আমরা অনেক কষ্ট ও ঝুঁকি নিয়ে রাস্তা দিয়ে চলাচল করে থাকি, প্রায়ই দুর্ঘটনার কবলে পরেন পথচারীরা।
লক্ষীচাপ ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আমিনুর রহমান বলেন, রাস্তাটি অনেক খারাব এবং ঝুঁকিপূর্ণ । রাস্তাটি পাকা করনের জন্য চেষ্টা চলছে। উপজেলা ইঞ্জিনিয়ার সাইফুল ইসলাম বলেন,আমরা জরুরী চেষ্টা করব চলতি বছরে রাস্তাটি পাকা করার জন্য। এলজিইডি নির্বাহী প্রকৌশলী মো: বেলাল হোসেন বলেন ,আমার রাস্তাটি সম্পর্কে জানা নেই,আমি জেনে শুনে ব্যবস্থা নিব।





@২০১৯ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত । গ্রামপোস্ট২৪.কম, জিপি টোয়েন্টিফোর মিডিয়া লিমিটেডের একটি প্রতিষ্ঠান।
Design BY MIM HOST