ঘোষনা:
শিরোনাম :
জাদুঘর স্থাপনের প্রস্তাবিত জমি পরিদর্শন করেছে,প্রধানমন্ত্রীর মূখ্য সচিব চট্টগ্রামে চোরাইকৃত ৭ টি সিএনজি উদ্ধারসহ ৬ জনকে আটক করেছে র্যা ব। সাতক্ষীরায় ১০ম শ্রেণির স্কুল ছাত্রীর রক্তাক্ত মরদেহ উদ্ধার কুন্দপুকুর ইউনিয়নকে উন্নয়নের ধারায় ফিরিয়ে আনতে লালু সমর্থক গ্রূপের সাথে মতবিনিময়। সাতক্ষীরার কলারোয়ার সোনাবাড়ীয়া ইউনিয়নে পুনরায় ভোট গ্রহণের দাবীতে মানববন্ধন জলঢাকায় ৫২ বোতল ফেন্সিডিল সহ দুই মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার নীলফামারীতে ইউনিয়ন উন্নয়ন সমন্বয় কমিটির দ্বি-মাসিক সভা অনুষ্ঠিত।  সিলেটের ব্যাংকের বুথে লুটপাটের ঘটনায় ৪ জনের রিমান্ড মঞ্জুর ময়মনসিংহ মেডিকেলে করোনায় ২ উপসর্গ নিয়ে ২ , মৃত্যু ৪ চট্টগ্রামে করোনায় মৃত্যু ৩,আক্রান্ত ১৬৫
ডোমারে প্রধান শিক্ষকের গাফিলতির কারনে জেএসসি পরীক্ষা দিতে পারলো না কবিতা রানী

ডোমারে প্রধান শিক্ষকের গাফিলতির কারনে জেএসসি পরীক্ষা দিতে পারলো না কবিতা রানী

নীলফামারী প্রতিনিধি ,
জেলার ডোমারে প্রধান শিক্ষকের গাফিলতির কারনে ২রা নভেম্বর থেকে শুরু হওয়া জেএসসি পরীক্ষা দিতে পারছে না কবিতা রানী রায় নামে এক শিক্ষার্থী। এ ঘটনায় মাসসিকভাবে ভেঙ্গে পরেছে শিক্ষার্থী কবিতা রানী। উপজেলার বামুনিয়া ইউনিয়নের বামুনিয়া দ্বি-মুখী এস,সি উচ্চ বিদ্যালয়ে ঘটনাটি ঘটেছে। এ ব্যাপারে ওই শিক্ষার্থী ডোমার উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কাছে প্রধান শিক্ষকের বিরুদ্ধে অভিযোগ করবেন বলে সাংবাদিকদের জানিয়েছেন। কবিতা রানী বামুনিয়া ইউনিয়নের বারবিশা বামুনিয়ার ইউপি সদস্য বিনয় চন্দ্র রায়ের মেয়ে।
উপজেলার বামুনিয়া দ্বি-মুখী এস,সি উচ্চ বিদ্যালয় থেকে চলতি জেএসসি পরীক্ষায় ১২৩ জন পরীক্ষার্থী জেএসসি পরীক্ষায় অংশগ্রহনের জন্য রেজিষ্ট্রেশন করে। ১২২ জন শিক্ষার্থী জেএসসি পরীক্ষায় অংশ নিলেও প্রধান শিক্ষক মোঃ মোস্তাফিজুর রহমানের গাফিলতির কারনে কবিতা রানীর রেজিষ্ট্রেশন হয়নি। গত ৩১ অক্টোবর কবিতা রানী প্রবেশপত্র আনার জন্য স্কুলে গেলে সেখানে গিয়ে জানতে পারে তার প্রবেশপত্র আসেনি। ফলে কবিতা রানী চলতি জেএসসি পরীক্ষায় অংশ নিতে পারছে না।কবিতা রানীর বাবা ইউপি সদস্য বিনয় চন্দ্র রায় বলেন,বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মোস্তাফিজুর রহমানের গাফিলতির কারনে তার মেয়ের ভবিষ্যত অনিশ্চিত হয়ে পরেছে। তিনি সুষ্ঠ তদন্তের মাধ্যমে এ ঘটনার বিচার দাবী করেন। বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক প্রতিমা মিত্র জানান,কবিতা নিয়মিত স্কুলে আসতো। তার পরীক্ষা দিতে না পারাটা দুখঃজনক।
বিদ্যালয়ের অভিভাবক সদস্য জাহাঙ্গির হোসেন ও আশরাফুজ্জামান সোহাগ বলেন, জেএসসি পরীক্ষা সমন্ধে প্রধান শিক্ষক আমাদের কিছু জানাননি। তিনি তার ইচ্ছামত কাজ করেন। প্রধান শিক্ষকের সদিচ্ছা থাকলে আজ কবিতা রানীও পরীক্ষায় অংশ নিতে পারতো।তার অবহেলার কারনেই একবছর শিক্ষা জীবন নষ্ট হলো কবিতা রানীর। বিদ্যালয়ের সভাপতি রনজিৎ অধিকারী দিলিপ একজন শিক্ষার্থী পরীক্ষায় অংশ নিতে পারছে না বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, এ বিষয়ে বিদ্যালয়ের কেরানীর গাফিলতি রয়েছে।কবিতা রানী রায় কান্না জড়িত কন্ঠে জানান,প্রবেশপত্র আনতে গিয়ে যখন জানতে পারি প্রবেশপত্র আসেনি তখন প্রধান শিক্ষকের কাছে গিয়ে বিষয়টি অবগত করলে তিনি আমাকে সান্তনা না দিয়ে স্কুল থেকে বের করে দেন। প্রধান শিক্ষক মোস্তাফিজুর রহমানের সাথে একাধিকবার মোবাইলে যোগাযোগের চেষ্টা করা হলে ফোন রিসিভ না করায় এ বিষয়ে তার মন্তব্য জানা যায়নি।





@২০১৯ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত । গ্রামপোস্ট২৪.কম, জিপি টোয়েন্টিফোর মিডিয়া লিমিটেডের একটি প্রতিষ্ঠান।
Design BY MIM HOST