ঘোষনা:
শিরোনাম :
সাতক্ষীরা প্রাইভেটকার নদীতে পড়ে নিহত-২, আহত-৩ । চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজে ছাত্র রাজনীতি বন্ধ ঘোষণা । নীলফামারীতে বঙ্গবন্ধু কাবাডি প্রতিযোগিতা উপলক্ষে আনন্দ শোভাযাত্রা নিখোঁজের তিনদিন পর গৃহবধূর মৃতদেহ মিলল ভুট্টার ক্ষেতে। জলঢাকা হাসপাতাল সড়কটি উন্নয়ন কাজ তদারকি করছেন। পৌরসভার চট্টগ্রামে গৃহবধূ পারভিন আকতার হত্যা মামলায় ৪ আসামীর মৃত্যুদন্ডের আদেশ। স্টামফোর্ড সাংবাদিক ফোরামের সাধারণ সদস্যের তালিকা অনুমোদন ডিমলায় ২টি লাশ উদ্ধার । সৈয়দপুরে বন্ধ রয়েছে ট্রেনের স্ট্যান্ডিং টিকেট ,পকেটে ভারী কর্মকর্তা-কর্মচারীদের । ডোমারে ১০৪ কোটি টাকা ব্যয়ে সড়ক সংস্কার কাজের উদ্বোধন।
ঢাকা আন্তর্জাতিক বাণিজ্য মেলায় ১০০ টাকায় ওড়না অথবা হিজাব ।

ঢাকা আন্তর্জাতিক বাণিজ্য মেলায় ১০০ টাকায় ওড়না অথবা হিজাব ।

বিশেষ প্রতিবেদক ,
ঢাকা আন্তর্জাতিক বাণিজ্য মেলায় ১০০ টাকায় ওড়না অথবা হিজাব পাওয়া যাচ্ছে। ৩০০ টাকা দিয়ে পাওয়া যাচ্ছে গ্রাউন্ড আর ২০০ টাকায় মিলছে ওয়ান পিস। মেলা প্রাঙ্গণে একাধিক প্রতিষ্ঠান স্টলে কাগজে লেখা স্টিকার ঝুলিয়ে এভাবে ওড়না-হিজাব, গ্রাউন্ড এবং ওয়ান পিস বিক্রি করছেন।আর হুমরি খেয়ে ক্রেতারা ভির করছে স্টল গুলোতে।
ব্যবসায়ীদের দাবি, ওড়না-হিজাব, গ্রাউন্ড এবং ওয়ান পিস প্রতিটি পণ্যই মেলায় প্রকৃত দামের চেয়ে কম দামে বিক্রি করা হচ্ছে। এতে বিক্রি বেশি হচ্ছে। ফলে পিস প্রতি মুনাফা কম হলেও সার্বিকভাবে মুনাফা বেশি হচ্ছে।

অন্য দিকে কম দামে ওড়না-হিজাব, ওয়ান পিস, গ্রাউন্ড কিনতে পেরে বেশ খুশি মেলার এক শ্রেণির ক্রেতারা। তারা বলছেন, মার্কেট থেকে নিম্ন মানের ওড়না কিনতে গেলেও ১৫০ টাকা লাগে। ৪০০-৫০০ টাকার নিচে ওয়ান পিস গ্রাউন্ড পাওয়া যায় না। সে হিসাবে এখানে কম দামেই বিক্রি করা হচ্ছে।

তবে কোনো কোনো ক্রেতা-দর্শনার্থীর অভিযোগ, মেলায় যে মানের ওড়না, ওয়ান পিস, গ্রাউন্ড বিক্রি হচ্ছে তা রাজধানীর নিউমার্কেট-গাউসিয়া মার্কেটের ফুটপাতে বিক্রি হয়। সেখানেও এসব পণ্যের দাম এমনি। বাসায় ব্যবহারের জন্য সাধারণত এসব কেনা হয়।

মেলা প্রাঙ্গণ ঘুরে দেখা গেছে, ১০০ টাকার ওড়না, ২০০ টাকার ওয়ান পিস এবং ৩০০ টাকার গ্রাউন্ড বিক্রি করছে যেসব প্রতিষ্ঠান, তার প্রতিটিতে নারী ক্রেতা-দর্শনার্থীদের ভিড়। এদের বেশিরভাগই বেশ আগ্রহ নিয়ে একাধিক ওড়না, ওয়ান পিস, গ্রাউন্ড কিনছেন।
মেলা প্রাঙ্গণে কম দামে ওড়না বিক্রি করা এমন একটি প্রতিষ্ঠান জনতা ওড়না হাউজ। প্রতিষ্ঠানটির বিক্রয়কর্মী মিলন বলেন, মেলায় আমরা যে দামে ওড়না বিক্রি করছে, বাইরে দাম তার চেয়ে বেশি। অধিক বিক্রির মাধ্যমে বেশি মুনাফার জন্য এখানে আমরা লাভ কম করছি।

তিনি বলেন, ওড়নার পাশাপাশি আমরা কাশ্মীরের শাল খুচরা ও পাইকারি বিক্রি করছি। শিশুদের শীতের পোশাকও বিক্রি করছি। দাম কম হলে কি হবে আমাদের পণ্যের মান বেশ ভালো। আমাদের কাছ থেকে কিনে কেউ ঠকবেন না।
এ স্টলটি থেকে অল্প দূরেই নামবিহীন একটি স্টলে ১০০ ও ১৫০ টাকা পিস ওড়না বিক্রি করতে দেখা যায়। স্টলটির বিক্রয়কর্মী হাসান বলেন, আমরা ১০০ ও ১৫০ টাকা দামের ওড়নার পাশাপাশি দামি ওড়নাও বিক্রি করছি। তবে ১০০ ও ১৫০ টাকা দামের ওড়না বেশি বিক্রি হচ্ছে।
মেলা প্রাঙ্গণের দক্ষিণ দিকে একটি স্টলে ১০০ টাকায় ওড়না-হিজাব, ২০০ টাকায় ওয়ান পিস, ৩০০ টাকায় গ্রাউন্ড বিক্রি করতে দেখা যায়। প্রতিষ্ঠানটির বিক্রয়কর্মী সজীব বলেন, আমাদের এখানে কোনো পণ্যের কত দাম তা উল্লেখ করে দিয়েছি। যার যেটা পছন্দ তিনি সেটা বেছে কিনতে পারবেন। দাম কম হলেও আমাদের পণ্যের মান ভালো।
স্টলটি থেকে ২০০ টাকা দিয়ে ওয়ান পিস কেনেন মিম। বলেন, মার্কেটে ৪০০ টাকার নিচে ওয়ান পিস পাওয়া যায় না। এখানে মাত্র ২০০ টাকা পিস বিক্রি হচ্ছে। বাছাই করে দুটি কিনেছি। দেখতে ভালোই লাগছে। মান কেমন তা বুঝতে পারছি না। ওয়াশ করার পর বোঝা যাবে।

১০০ টাকা দিয়ে ওড়না কেনা শাহনাজ বলেন, দেখে তো এসব ওড়না ভালোই মনে হচ্ছে। তবে দাম কম হওয়ায় মনের মধ্যে একটু খচখচ করছে। কারণ, এসব ওড়না রাজধানী মার্কেট থেকে কিনতে গেলে ৩০০ টাকা লাগে। তারপরও দুটি কিনেছি। দুদিন ব্যবহার করলেই বোঝা যাবে ঠকলাম না জিতলাম।
রিমা আক্তার নামের এক দর্শনার্থী বলেন, এখানে যেসব ওড়না, ওয়ান পিস, গ্রাউন্ড বিক্রি হচ্ছে তা নিউমার্কেট গাউছিয়ার ফুটপাতে বিক্রি হয়। দামের ক্ষেত্রেও খুব একটা পার্থক্য নেই। এর মান খুব একটা ভালো না। তবে বাসায় ব্যবহারের জন্য কেনা যায়।





@২০১৯ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত । গ্রামপোস্ট২৪.কম, জিপি টোয়েন্টিফোর মিডিয়া লিমিটেডের একটি প্রতিষ্ঠান।
Design BY MIM HOST