ঘোষনা:
শিরোনাম :
সত্য বলার সৎ সাহসেই গঠিত হবে স্মার্ট বাংলাদেশ: অ্যাড. মমতাজুল শঙ্কামুক্ত নন অভিনেত্রী শারমিন আওয়ামী লীগ শাসনামলে দেশের ব্যাপক উন্নয়ন বিবেচনায় নিতে দেশবাসীর প্রতি আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর নীলফামারী বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ে শিক্ষার্থীদের ক্লাস প্রমোশন না দেয়ার প্রতিবাদে মানববন্ধন নীলফামারীতে সড়ক দূর্ঘটনায় আহত ৮ জন নীলফামারীতে পুলিশ সার্ভিস এসোসিয়েশনের শীতবস্ত্র বিতরণ কিশোরগঞ্জে বিদায়ী মাঘে শীতের হানা কিশোরগঞ্জে অপহরণের দায়ে পেশ ইমাম আটক-ছাত্রী উদ্ধার বিপদে পুলিশকে পাশে পেয়ে মানুষ যেন স্বস্তি বোধ করে তা নিশ্চিত করতে হবে : প্রধানমন্ত্রী উন্নয়নের বদলে শেখ হাসিনাকে ভোট উপহার দিন: চাঁপাইনবাবগঞ্জে নানক
নীলফামারীতে বাংলাদেশ স্বতন্ত্র ইবতেদায়ী মাদরাসা শিক্ষক সমিতির বহিস্কৃত মহাসচিব মোখলেছুর রহমান ও ক্বারি শিক্ষক আবু মুসা ভূইয়াকে অর্থ আত্মসাতের অভিযোগে অবরুদ্ধ।

নীলফামারীতে বাংলাদেশ স্বতন্ত্র ইবতেদায়ী মাদরাসা শিক্ষক সমিতির বহিস্কৃত মহাসচিব মোখলেছুর রহমান ও ক্বারি শিক্ষক আবু মুসা ভূইয়াকে অর্থ আত্মসাতের অভিযোগে অবরুদ্ধ।

নীলফামারী প্রতিনিধি ॥
বাংলাদেশ স্বতন্ত্র ইবতেদায়ী মাদরাসা শিক্ষক সমিতির কেন্দ্রীয় কমিটির বহিস্কৃত মহাসচিব মোখলেছুর রহমান ও ক্বারি শিক্ষক আবু মুসা ভূইয়াকে বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের নবায়ন মঞ্জুরি ও নতুন মাদরাসা কোড দেয়ার কথা বলে অর্থ আত্মসাৎ ও বিভিন্ন অনিমমের কারনে নীলফামারী জেলা কার্যালয়ে অবরুদ্ধ করে নির্যাতিত শিক্ষকরা। রবিবার বিকালে বাংলাদেশ স্বতন্ত্র ইবতেদায়ী মাদরাসা শিক্ষক সমিতির নীলফামারী জেলা শাখা কার্যালয় জোরদরগায় কেন্দ্রীয় কমিটির বহিস্কৃত মহাসচিব ও যুগ্ন মহাসচিবকে জেলা কার্যালয়ে অবরুদ্ধ করে নির্যাতিত শিক্ষকরা এবং তাদের টাকা ফেরত দেওয়ার দাবি করে ।

বহিস্কৃত মহাসচিব মোখলেছুর রহমান ও ক্বারি শিক্ষক আবু মুসা ভূইয়া শিক্ষকদের কাছ থেকে নবায়ন ও মঞ্জুরিসহ বিভিন্ন কাজের কথা বলে টাকা নিয়ে কাজ না করা ও দীর্ঘদিন টালবাহানা করার কারনে তাদের দুজনকে অবরুদ্ধ করে টাকা আদায়ের চেস্টা করে নির্যাতিত শিক্ষকরা। আরও বিভিন্ন অনিয়মের কারনে জেলা কার্যালয়ে অবরুদ্ধ করলে কেন্দ্রীয় সভাপতি কাজী রুহুল আমিন চৌধুরীর স্বাক্ষরিত কমিটির শিক্ষক ও নীলফামারী জেলা শিক্ষক নেতারা উপস্থিত ছিলেন। নীলফামারী জেলার স্বতন্ত্র ইবতেদায়ী মাদরাসা শিক্ষক সমিতির সভাপতি সৈয়দ আক্কাস আলী ও সাধারন সম্পাদক পশ্চিম কুচিয়ার মোড় স্বতন্ত্র ইবতেদায়ী মাদরাসার প্রধান শিক্ষক মুসলিমা খাতুন বলেন, আমার মাদরাসার নবায়ন মঞ্জুরির জন্য টিপটপ হোটেলে বসে সত্তুর হাজার টাকা দেয়া হয়।সৈয়দপুর উপজেলার নিজবাড়ী মদিনাতুল উলুম পীর নেছারিয়া স্বতন্ত্র এবতেদায়ী মাদরাসার প্রধান শিক্ষক নুর হোসেন দাবি করে বলেন,২০১৭ সালে অনশন চলাকালে ৮টি মাদরাসার নবায়ন মঞ্জুরি করবে বলে প্রায় তিন লাখ দিয়েছি বহিস্কৃত যুগ্ন মহাসচিব ও ক্বারি শিক্ষক আবু মুসাকে।বাংলাদেশ স্বতন্ত্র ইবতেদায়ী মাদরাসা শিক্ষক সমিতির নীলফামারী সদর উপজেলা সভাপতি মোঃ হাছানুর রহমান শিক্ষক নেতা বলেন,আবু মুসা একজন সুখধন স্বতন্ত্র ইবতেদায়ী মাদরাসার ক্বারি শিক্ষক।লাখ লাখ টাকা দূর্নীতি করেছে, শিক্ষকদের ফকির করেছেন তিনি।বর্তমানে শিক্ষকরা অসহায়,টাকা আদায়ে বিভিন্ন নেতার কাছে ধরনা দিচ্ছে শিক্ষকরা।এ বিষয়ে বহিস্কৃত মহাসচিব মোখলেছুর রহমান বলেন,আমি কোন অনিয়ম করলে শিক্ষকরা বিচার করবে।যুগ্ন মহাসচিব ক্বারি শিক্ষক আবু মুসা বলেন,আমার বিরুদ্ধে সব অভিযোগ মিথ্যা,টাকার কোন প্রমান নাই।





@২০১৯ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত । গ্রামপোস্ট২৪.কম, জিপি টোয়েন্টিফোর মিডিয়া লিমিটেডের একটি প্রতিষ্ঠান।
Design BY MIM HOST