ঘোষনা:
শিরোনাম :
সাতক্ষীরায় প্রেমিকার বাড়ীতে নির্মম নির্যাতনের শিকার টেক্সটাইলস ইঞ্জিনিয়ার রংপুরে ক্যামেরায় কথা বলছে, গ্রামীন জনপদের ফরিদপুরে বাস পিক-আপ মুখোমুখি সংঘর্ষে নিহত ১২, আশঙ্কাজনক ৩ পহেলা বৈশাখে বর্ণিল উৎসবে মেতেছে নীলফামারী সাতক্ষীরায় ভিডিও কলে রেখে ঘরে গলায় ফাঁস দিয়ে বিউটিশিয়ানের আত্মহত্যা নীলফামারীতে ঘোড়ার প্রতি পাকে,পরিবারে জীবনের গল্পটা কস্টের নীলফামারীতে কর্মসংস্থান কর্মসূচি প্রকল্পের কাজের উদ্বোধন ঈদে বাড়ি ফেরা হলো না, শিশু সন্তান সহ পরিবারের  ঈদে ৫ দিন বন্ধের পরে, সাতক্ষীরা স্থলবন্দরে আমদানী-রপ্তানী শুরু, কর্মচাঞ্চল্য বাগেরহাটে পুকুরে স্যাটেলাইট কুমির উদ্ধার, অবমুক্ত সুন্দরবনে
সপ্তাহের ব্যবধানে সেই কাঁকরোল এখন বিক্রি হচ্ছে ৬০ টাকায়।

সপ্তাহের ব্যবধানে সেই কাঁকরোল এখন বিক্রি হচ্ছে ৬০ টাকায়।

সবজির দাম স্থিতিশীল। ছবি: গ্রামপোষ্ট।

 

চট্টগ্রাম প্রতিবেদক ,

সরবরাহ কম- এমন অযুহাতে গত সপ্তাহে কাঁকরোল বিক্রি হয়েছে প্রতি কেজি ৯০ টাকায়। সপ্তাহের ব্যবধানে সেই কাঁকরোল এখন বিক্রি হচ্ছে ৬০ টাকায়।শুক্রবার (৩ মে) নগরের বিভিন্ন বাজার ঘুরে এমন চিত্র দেখা গেছে।জেলা প্রশাসনের বাজার মনিটরিংয়ের কারণে বিক্রেতারা অতিরিক্ত দাম নেওয়া থেকে বিরত থাকছেন বলে জানান ক্রেতারা।বাজার ঘুরে দেখা যায়, কিছুটা কমে অন্যান্য সবজির দামও স্থিতিশীল রয়েছে। প্রতি কেজি বরবটি বিক্রি হচ্ছে ৪০ থেকে ৬০ টাকায়, পটল ৪০ থেকে ৫০ টাকা, তিত করলা ৬০ টাকায়, ঢেঁড়স বিক্রি হচ্ছে ৫০ থেকে ৬০ টাকা কেজি, লাউ ২৫ থেকে ৩০ টাকা, মিষ্টি কুমড়া ৩০ থেকে ৩৫ টাকা, আলু ২৮ থেকে ৩০ টাকা, বেগুন ৩০ থেকে ৪০ টাকা কেজি, কাঁচা মরিচ ৮০ টাকায়।

এদিকে বেড়েছে মাছের দামও। প্রতি কেজি রুই মাছ বিক্রি হচ্ছে ৩০০ টাকা থেকে ৩৮০ টাকা, কাতাল ৩৫০ থেকে ৪২০ টাকা, চিংড়ি ৬০০ থেকে ১০০০ টাকা, রুপচাঁদা মাছ ৬০০ থেকে ৮০০ টাকা, নাইলেটিকা ১৬০ থেকে ১৮০ টাকা। ব্রয়লার মুরগি বিক্রি হচ্ছে ১৬০ থেকে ১৭০ টাকা, দেশি মুরগি ৩৮০ থেকে ৪২০ টাকা। প্রতি ডজন ডিম বিক্রি হচ্ছে ৯০ থেকে ৯৫ টাকায়।

এদিকে প্রতি কেজি পেঁয়াজ বিক্রি হচ্ছে ২৮ থেকে ৩৫ টাকা, প্রতি লিটার খোলা সয়াবিন তেল ৯০ থেকে ৯৫ টাকা। প্রতি কেজি পাইজার চাল ৫৪ থেকে ৫৬ টাকা, মিনিকেট চাল ৪৮ থেকে ৫০ টাকা, উৎসব চাল ৪৪ থেকে ৪৫ টাকা, পোলাও চাল (চিনিগুঁড়া) ৯০ থেকে ১০৫ টাকা, কাটারিভোগ চাল ৬৫ থেকে ৭০ টাকা।

চকবাজারের সবজি বিক্রেতা আবদুর রহমান গ্রামপোষ্টকে বলেন, সবজির দাম বাড়েনি। মোটামুটি কম রয়েছে। কাঁকরোলের কেজি বিক্রি হচ্ছে ৬০ টাকায়।

বাজার করতে আসা ব্যাংক কর্মকর্তা আবু সাইদ গ্রামপোষ্টকে বলেন, রজমানকে কেন্দ্র করে বিক্রেতারা সবসময় জিনিসপত্রের দাম বাড়িয়ে দেয়। কর্তৃপক্ষ নজর দিলে বাজার নিয়ন্ত্রণে থাকে।





@২০১৯ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত । গ্রামপোস্ট২৪.কম, জিপি টোয়েন্টিফোর মিডিয়া লিমিটেডের একটি প্রতিষ্ঠান।
Design BY MIM HOST