ঘোষনা:
শিরোনাম :
নীলফামারীতে পুলিশকে ব্যবহার করে জোরপূর্বক অন্যের জমি দখল নীলফামারীতে জোরপূর্বক মসজিদের সভাপতি হওয়ার পায়তারা, মুসল্লীদের মানববন্ধন। ডিমলায় সরকারী সেবা জনগনের দোরগোড়ায় দিতে চান ইউএনও উম্মে সালমা নীলফামারীতে পবিত্র ঈদুল আযহায় জেলা পুলিশের উৎসব সাতক্ষীরার শ্যামনগরে আত্মসমর্পনকারী বনদস্যুর মাঝে ঈদ উপহার সাতক্ষীরার দুটি উপজেলায় ভূমিহীন ও গৃহহীনদের চাবী ও দলিল দিয়ে ভূমিহীন ও গৃহহীন মুক্ত ঘোষণা নীলফামারীতে মিথ্যা মামলা প্রত্যাহার ও জমির মালিকানা বহালে সংবাদ সম্মেলন মিথ্যা প্রলোভনে পাহাড়ের নারীদের পাচার করছে একটি সংবদ্ধ চক্র সাতক্ষীরায় ভাঙান মাছ চাষ পদ্ধতি ও ব্যবস্থাপনা বিষয়ক কর্মশালা গ্রামীণব্যাংকের সেবার মান বাড়ানোর প্রতিশ্রুতি,
বিয়ে বাড়িতে পুলিশ নিয়ে হাজির উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মো. নাসিম আহমেদ।

বিয়ে বাড়িতে পুলিশ নিয়ে হাজির উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মো. নাসিম আহমেদ।

 বিরামপুর ( দিনাজপুর )প্রতিনিধি,

বিয়ে বাড়ি জুড়ে সাজসাজ রব। দশম শ্রেণিতে পড়ুয়া এক ছাত্রীর (১৫) বিয়ের আয়োজন চলছে। বরও এসেছেন পরিবার ও আত্মীয়স্বজন নিয়ে। তখনো বিয়ে বিয়ে পড়ানো হয়নি। ঠিক সে সময় বিয়ে বাড়িতে পুলিশ নিয়ে হাজির উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মো. নাসিম আহমেদ। তাঁদের দেখেই পালিয়ে যান বর-কনের পরিবার।গত বৃহস্পতিবার দিবাগত রাতে দিনাজপুরের কাহারোল উপজেলার রামচন্দ্রপুর ইউনিয়নের ঈশানপুর গ্রামের বদলী পাড়ায় এ ঘটনা ঘটে। ইউএনও পুলিশ নিয়ে এলে অবস্থা বেগতিক দেখে বরের বাবা মো. রাজু মিয়া নিকাহ রেজিস্ট্রার (কাজী) মো. মেসবাহুল ইসলামসহ আত্মীয়স্বজন নিয়ে পালিয়ে যান। এ ছাড়া কনের বাবা-মাও আত্মীয়স্বজন নিয়ে সরে পড়েন। ইউএনও মো. নাসিম আহমেদ ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে বর রুবেল ইসলাম (২৩) কে সাত দিনের বিনাশ্রম কারাদণ্ড দেন।ইউএনও মো. নাসিম আহমেদ বলেন, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে দশম শ্রেণির ওই ছাত্রীর বিয়ের খবর পান। সেখানে গিয়ে ওই ছাত্রীর সঙ্গে কথা বললে ওই ছাত্রী জানায় সে পড়াশোনা করতে চায়। পরে ইউএনও বর রুবেল ইসলামকে সাত দিনের কারদণ্ড দেন। পলাতক কাজীর বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেবেন বলে জানান ইউএনও।





@২০১৯ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত । গ্রামপোস্ট২৪.কম, জিপি টোয়েন্টিফোর মিডিয়া লিমিটেডের একটি প্রতিষ্ঠান।
Design BY MIM HOST