ঘোষনা:
শিরোনাম :
উন্নত বাংলাদেশ গঠনের সাথে কিশোরগঞ্জ উপজেলাও হবে উন্নয়নের রোল মডেল, জেলা প্রশাসক বর্তমান সরকারকে পদত্যাগ করে নির্দলীয় তত্ত্বাবধায়ক সরকার ছাড়া কোন নির্বাচনে বিএনপি যাবেনা,সৈয়দপুরে বিএনপি মহাসচিব। সৈয়দপুরে বিএনপি মহাসচিবের আগমনে নেতাকর্মীদের মাঝে ব্যাপক উৎসাহ উদ্দিপনা ডিমলায় ফ্রি পিপি আর ভ্যাকসিন কর্মসূচী শুরু । বর্ষসেরা ক্রীড়াবিদ মনোনয়ন পেয়েছেন তপু, মেহেদী এবং দিয়া সিদ্দিকী। ডিমলায় ভর্তুকি মূল্যে কৃষি যন্ত্রপাতি বিতরণ। নীলফামারীতে বোরো ধান ও চাল সংগ্রহের উদ্বোধন কিশোরগঞ্জে কালবৈশাখী ঝড়ে লন্ডভন্ড কয়েকটি গ্রাম সাতক্ষীরায় শিশু ধর্ষন চেষ্টার অভিযোগ, অভিযুক্ত দুই শিশুসহ এক মা আটক অস্তিত্ব রক্ষা করতে হলে বিএনপিকে নির্বাচনে যেতে হবে,তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রী
‘ফণী’র আঘাতে,বড় ধরনের কোনো ক্ষয়ক্ষতি হয়নি। এজন্য সৃষ্টিকর্তার কাছে শুকরিয়া আদায় করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

‘ফণী’র আঘাতে,বড় ধরনের কোনো ক্ষয়ক্ষতি হয়নি। এজন্য সৃষ্টিকর্তার কাছে শুকরিয়া আদায় করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। ফাইল ফটো ।

ঢাকা প্রতিবেদক,

বঙ্গোপসাগরে সৃষ্ট ঘূর্ণিঝড় ‘ফণী’ ক্রমশ দুর্বল হয়ে নিম্নচাপে পরিণত হয়েছে। ফলে বাংলাদেশে বড় ধরনের কোনো ক্ষয়ক্ষতি হয়নি। এজন্য সৃষ্টিকর্তার কাছে শুকরিয়া আদায় করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।শনিবার (০৪ মে) দুপুরে প্রধানমন্ত্রীর প্রেস উইং এ তথ্য জানায়।ঘূর্ণিঝড়টি শনিবার সকালে বাংলাদেশের দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলের যশোর-সাতক্ষীরা অঞ্চল হয়ে বাংলাদেশে প্রবেশ করে গভীর নিম্নচাপে পরিণত হয়। এ ঘটনায় এখনও পর্যন্ত দেশের অভ্যন্তরে বড় ধরনের কোনো ক্ষয়-ক্ষতির খবর পাওয়া যায়নি। এজন্য লন্ডন সফররত প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা মহান সৃষ্টিকর্তার দরবারে শুকরিয়া আদায় করেছেন। এর আগে ‘ফণী’র আঘাতে সম্ভাব্য ক্ষয়ক্ষতি মোকাবিলায় প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশক্রমে ব্যাপক প্রস্তুতি নেয়া হয়। শুক্রবার (০৩ মে) বাদ জুমা সারাদেশে বিশেষ দো’য়া ও মোনাজাতের আয়োজন করা হয়।প্রেস উইং সূত্র জানায়, শনিবার সকালে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের নিয়ে প্রধানমন্ত্রীর মুখ্য সচিব মো. নজিবুর রহমান সার্বিক পরিস্থিতি পর্যালোচনা করেন। সভায় সরকারি-বেসরকারি সংস্থাগুলোর দুর্যোগ মোকাবিলায় গৃহীত প্রস্তুতি বিষয়ে সন্তোষ প্রকাশ করা হয়।দ্রুত সময়ের মধ্যে দক্ষিণাঞ্চলের উপকূলীয় এলাকার প্রায় সাড়ে ১২ লাখ মানুষকে আশ্রয়কেন্দ্রে নিয়ে আসার জন্য জেলা-উপজেলা প্রশাসনসহ এসব এলাকার স্থানীয় জনপ্রতিনিধি, সরকারি ও বেসরকারি সংস্থাগুলো, বিশেষ করে সিপিপি’র স্বেচ্ছাসেবকদের তৎপরতার প্রশংসা করা হয়।এছাড়া সেনা, নৌ, বিমান বাহিনী, কোস্টগার্ড, পুলিশ, আনসার-ভিডিপিসহ আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর গৃহীত কার্যক্রমেরও সন্তোষ প্রকাশ করা হয়। একই সঙ্গে সভায় বিশ্ব পরিমণ্ডলে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনায় সরকারের সকল সংস্থাগুলোর সমন্বিতভাবে কাজ করার যে কৃষ্টি তৈরি হয়েছে, তা ভবিষ্যতে আরও সুদৃঢ় করার উপর গুরুত্ব আরোপ করা হয়। এ সময় প্রধানমন্ত্রীর পক্ষ থেকে সংশ্লিষ্ট সবাইকে কৃতজ্ঞতা ও ধন্যবাদ জানান মুখ্য সচিব। তিনি বলেন, ভবিষ্যতেও জাতির যেকোনো দুর্যোগ মোকাবিলায় সমন্বিতভাবে কাজ করতে হবে। উল্লেখ্য, প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে কর্মকর্তা-কর্মচারীদের সাপ্তাহিক ছুটি বাতিল করে সার্বক্ষণিকভাবে দুর্যোগ মোকাবিলা প্রস্তুতি কার্যক্রম সমন্বয়ের দায়িত্ব পালন করে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়।





@২০১৯ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত । গ্রামপোস্ট২৪.কম, জিপি টোয়েন্টিফোর মিডিয়া লিমিটেডের একটি প্রতিষ্ঠান।
Design BY MIM HOST