ঘোষনা:
শিরোনাম :
নীলফামারীতে পুলিশ সুপারের সাথে হিন্দু ধর্মালম্বীদের মতবিনিময় নীলফামারীতে সামাজিক-সম্প্রীতি সমাবেশ হয়েছে। ডিমলায় কৃষক সমাবেশ ও আলোচনা সভা নীলফামারীতে ডিজি কেয়ার ডায়াগনস্টিক সেন্টারে ভুল রিপোর্ট প্রদান, সিভিল সার্জনের কাছে লিখিত অভিযোগ। সাফের ইতিহাসে নতুন ইতিহাস গড়লেন সাবিনা কৃষ্ণারা ডিমলায় সড়ক দূঘর্টনায় ভিক্ষুকের মৃত্যু নীলফামারীতে চিরকুট লিখে আত্মহত্যা-স্বামী-সহ ৪ জনের নামে মামলা,স্বামী গ্রেফতার নীলফামারী সৈয়দপুরে পরিবারের অত্যাচারে সুইসাইড নোট লিখে গৃহবধূর আত্নহত্যা নীলফামারীতে বহুল প্রচারিত যুগের আলো পত্রিকার ৩০ তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী। ডিমলায় সাংবাদিককে পেটালেন শিক্ষক স্বদেশ
কিশোরগঞ্জে ৫ গ্রামের মানুষের দূর্ভোগ একটি সেতু।

কিশোরগঞ্জে ৫ গ্রামের মানুষের দূর্ভোগ একটি সেতু।

কিশোরগঞ্জ (নীলফামারী)প্রতিনিধি ,
জেলার কিশোরগঞ্জে ৫ গ্রামের মানুষের দূর্ভোগ একটি সেতু। স্বাধীনতার ৪৮ বছরেও সেতুটি না হওয়ায় দূর্ভোগে পড়েছে ওই এলাকার মানুষ।একটি সেতুর নির্মানের স্বপ্ন পুরুন হয়নি কিশোরগঞ্জ উপজেলার চাঁদখানা ও বাহাগিলী ইউনিয়নের কয়েকটি গ্রামবাসীর। এখনও একটি বাঁশের সাকোঁয় তাদের এক মাত্র ভরসা। যমুনেশ্বরী নদীর উপর নির্মিত ভাঙ্গাগড়ার এই সাকোটি ৫টি গ্রামের প্রায় ২০ হাজার মানুষের পাড়াপারের এক মাত্র অবলম্বন।
পশ্চিমে বাহাগিলী পূর্বে চাঁদখানা ইউনিয়ন। এর মাঝ দিয়ে বয়ে গেছে যমুনেশ্বরী নদী। এই দুই ইউনিয়নের ৫টি গ্রামের মানুষসহ আশপাশের প্রায় ২০ হাজার মানুষ এই বাশের সাঁকো দিয়ে কিশোরগঞ্জ উপজেলা শহরে সাথে যোগাযোগ করে থাকে। সেতুটি ভেঙ্গে গেলে সাতরিয়ে অথবা ১০ কিশোমিটার ঘুরে তাদের কিশোরগঞ্জে আসতে হয়। বাহাগিলী মাছুয়াপাড়া, সরকারপাড়া,ও গুচ্ছ গ্রামের বাসিন্দা এয়ামিন,ফরিদ হোসেন, মোকলেছার রহমান ও সাদা মাষ্ঠার বলেন স্বাধীনতার ৪৮ বছরেও আমাদের দুঃখ ঘুচেনি। আমাদের একটি সেতুর স্বপ্ন আজো পুরন হয়নি। জাতীয় নির্বাচনের সময় অনেক নেতাই সেতু নির্মানের স্বপ্ন দেখিয়েছেন কিন্তু আজ পর্যন্ত কোন নেতাই তাদের দেয়া কথা রাখেননি।
বাহাগিলী ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান আতাউর রহমান দুলু শাহ বলেন উপজেলা পরিষদের মাসিক মিটিংয়ে মাছুয়াপাড়া ঘাটে একটি ব্রীজ নির্মানের জন্য আমি প্রায় প্রস্তাব উত্থাপন করি। কিন্তু প্রশাসন প্রস্তাবটি গুরুত্বসহকারে নিচ্ছে না। নগরবন গ্রামের বাসিন্দা ও চাঁদখানা ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান আইয়ুব আলী বলেন,সাবেক এমপি শওকত চৌধুরীর সাথে ওই ঘাটে ব্রীজ নির্মানের জন্য আমি একাধিক বার যোগযোগকরেছি। প্রতিশ্রুতি দিয়েও তিনি তা রক্ষা করেননি।
উপজেলা প্রকৌশলী কেরামত আলী নান্নুর সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন,মাছুপাড়া ঘাটে সয়েল টেষ্ঠ করা হয়েছে। বরাদ্দ পাওয়া গেলে নির্মান কাজ শুরু করা হবে।





@২০১৯ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত । গ্রামপোস্ট২৪.কম, জিপি টোয়েন্টিফোর মিডিয়া লিমিটেডের একটি প্রতিষ্ঠান।
Design BY MIM HOST