ঘোষনা:
শিরোনাম :
নীলফামারীতে পুলিশকে ব্যবহার করে জোরপূর্বক অন্যের জমি দখল নীলফামারীতে জোরপূর্বক মসজিদের সভাপতি হওয়ার পায়তারা, মুসল্লীদের মানববন্ধন। ডিমলায় সরকারী সেবা জনগনের দোরগোড়ায় দিতে চান ইউএনও উম্মে সালমা নীলফামারীতে পবিত্র ঈদুল আযহায় জেলা পুলিশের উৎসব সাতক্ষীরার শ্যামনগরে আত্মসমর্পনকারী বনদস্যুর মাঝে ঈদ উপহার সাতক্ষীরার দুটি উপজেলায় ভূমিহীন ও গৃহহীনদের চাবী ও দলিল দিয়ে ভূমিহীন ও গৃহহীন মুক্ত ঘোষণা নীলফামারীতে মিথ্যা মামলা প্রত্যাহার ও জমির মালিকানা বহালে সংবাদ সম্মেলন মিথ্যা প্রলোভনে পাহাড়ের নারীদের পাচার করছে একটি সংবদ্ধ চক্র সাতক্ষীরায় ভাঙান মাছ চাষ পদ্ধতি ও ব্যবস্থাপনা বিষয়ক কর্মশালা গ্রামীণব্যাংকের সেবার মান বাড়ানোর প্রতিশ্রুতি,
গোবিন্দগঞ্জে সাঁওতাল হত্যাকারীদের গ্রেফতার দাবীতে বিক্ষোভ মিছিল ও মানববন্ধন ।

গোবিন্দগঞ্জে সাঁওতাল হত্যাকারীদের গ্রেফতার দাবীতে বিক্ষোভ মিছিল ও মানববন্ধন ।

গাইবান্ধা প্রতিনিধি ,
গাইবান্ধা জেলার গোবিন্দগঞ্জে সাঁওতাল হত্যাকারীদের গ্রেফতার ও মিল কর্তৃপক্ষের নির্যাতন বন্ধের দাবীতে বিক্ষোভ মিছিল ও মানববন্ধন কর্মসূচি পালিত হয়েছে। সাহেবগঞ্জ বাগদাফার্ম ভূমি উদ্ধার সংগ্রাম কমিটির আয়োজনে ২৫ মে শনিবার উপজেলার ঘোড়াঘাট আঞ্চলিক সড়কের কাটামোড় নামকস্থানে বেলা ১২টার দিকে ঘন্টাব্যাপী এক মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করা হয়েছে।
সাহেবগঞ্জ বাগাফার্ম ভূমি উদ্ধার সংগ্রাম কমিটির সভাপতি ডা. ফিলিমন বাস্কের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত মানববন্ধন কর্মসূচিতে বক্তব্য রাখেন, সিপিবি গোবিন্দগঞ্জ উপজেলা শাখার সভাপতি তাজুল ইসলাম, সাহেবগঞ্জ বাগদাফার্ম ভূমি উদ্ধার সংগ্রাম কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক স্বপন শেখ, কোষাধ্যক্ষ গণেশ মুরমু, কার্যকারী সদস্য রাফায়েল হাজদা, প্রিসিলা মুরমু, আজমল হোসেন ও সুফল হেমব্রম প্রমূখ।
বক্তারা, অনতিবিলম্বে সাহেবগঞ্জ ইক্ষুখামারের সকল কার্যক্রম স্থগিতের দাবী জানিয়ে বলেন, ৩ সাঁওতালকে গুলি করে হত্যা, সাঁওতাল পল্লিতে হামলা, লুটপাট, বসতবাড়ীতে ভাংচুর ও অগ্নিসংযোগ করা হয়। উক্ত ঘটনার তিন বছর পেরিয়ে গেলেও থমাস হেমব্রমের করা মামলায় পুলিশ কাউকে গ্রেফতার করতে পারেনি। উল্টো একের পর এক সাঁওতালদের বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা দিয়ে হয়রানি করা হচ্ছে।
মানববন্ধন থেকে সংশ্লিষ্ট প্রশাসনের নিকট হত্যা মামলার আসামীদের গ্রেফতার, সাঁওতালদের বিরুদ্ধে করা মিথ্যা মামলা প্রত্যাহার এবং ৩ সাঁওতালকে গুলি করে হত্যা, বাপ-দাদার জমি ফেরত, সাঁওতাল পল্লিতে হামলা, লুটপাট, বসতবাড়ীতে ভাংচুর ও অগ্নিসংযোগের ক্ষতিপূরণ সহ সাতদফা দাবী বাস্তবায়নের দাবী জানানো হয়। এর আগে একটি বিক্ষোভ মিছিল ব্যানার, ফেস্টুনসহ সহস্রাধিক নারী-পুরুষ সাঁওতাল পল্লির জয়পুরপাড়া ও মাদারপুর থেকে বের হয়ে গোবিন্দগঞ্জ-ঘোড়াঘাট সড়ক প্রদক্ষিণ করে কাটামোড়ে মানববন্ধন কর্মসূচিতে অংশ নেয়।
প্রসঙ্গত, ২০১৬ সালের ৬ নভেম্বর রংপুর চিনিকলের সাহেবগঞ্জ ইক্ষুখামারের বিরোধপূর্ণ জমিতে চিনিকল কর্তৃপক্ষ আখ কাটার নামে সাঁওতালদের উচ্ছেদ করতে গেলে সাঁওতালরা বাধা প্রদান করেন। এসময় পুলিশ, চিনিকল কর্তৃপক্ষ ও সাঁওতালদের ত্রিমুখি সংঘর্ষ বাধে। এতে পুলিশের গুলিতে রমেশ টুডু, শ্যামল হেমব্রম ও মঙ্গল মার্ডি নামের ৩ সাঁওতাল নিহত হন। আহত হন উভয়পক্ষের কমপক্ষে ৩০জন।





@২০১৯ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত । গ্রামপোস্ট২৪.কম, জিপি টোয়েন্টিফোর মিডিয়া লিমিটেডের একটি প্রতিষ্ঠান।
Design BY MIM HOST