ঘোষনা:
শিরোনাম :
সাতক্ষীরায় প্রেমিকার বাড়ীতে নির্মম নির্যাতনের শিকার টেক্সটাইলস ইঞ্জিনিয়ার রংপুরে ক্যামেরায় কথা বলছে, গ্রামীন জনপদের ফরিদপুরে বাস পিক-আপ মুখোমুখি সংঘর্ষে নিহত ১২, আশঙ্কাজনক ৩ পহেলা বৈশাখে বর্ণিল উৎসবে মেতেছে নীলফামারী সাতক্ষীরায় ভিডিও কলে রেখে ঘরে গলায় ফাঁস দিয়ে বিউটিশিয়ানের আত্মহত্যা নীলফামারীতে ঘোড়ার প্রতি পাকে,পরিবারে জীবনের গল্পটা কস্টের নীলফামারীতে কর্মসংস্থান কর্মসূচি প্রকল্পের কাজের উদ্বোধন ঈদে বাড়ি ফেরা হলো না, শিশু সন্তান সহ পরিবারের  ঈদে ৫ দিন বন্ধের পরে, সাতক্ষীরা স্থলবন্দরে আমদানী-রপ্তানী শুরু, কর্মচাঞ্চল্য বাগেরহাটে পুকুরে স্যাটেলাইট কুমির উদ্ধার, অবমুক্ত সুন্দরবনে
নীলফামারীতে চলাচলের রাস্তায় প্রাচীর নির্মাণ, অবরুদ্ধ অবসরপ্রাপ্ত শিক্ষকের পরিবার

নীলফামারীতে চলাচলের রাস্তায় প্রাচীর নির্মাণ, অবরুদ্ধ অবসরপ্রাপ্ত শিক্ষকের পরিবার

মো: হারুন উর রশিদ,স্টাফ রিপোর্টার,
নীলফামারী সদর উপজেলার সোনারায় ইউনিয়নের বানিয়াপাড়া এলাকায় চলাচলের রাস্তায় প্রাচীর নির্মাণ করায় অবসরপ্রাপ্ত শিক্ষক মো: আজিজার রহমানের পরিবার অবরুদ্ধ হয়ে পড়েছে।তার প্রতিবেশী ভূমিদস্যু আবু মুসা আনছারী চক্রের বিরুদ্ধে রাস্তাটি বন্ধের অভিযোগ পাওয়া গেছে। রাস্তাটি বন্ধ করায় পরিবারটি প্রায় এক সপ্তাহ ধরে চলাচলে চরম বিরম্বনায় পড়েছে। তাই ভূমিদস্যুর হাত থেকে রক্ষা পেতে সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও সদর অফিসার ইনচার্জ বরাবর অভিযোগ ও করেছে পরিবারটি।

গত শুক্রবার সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, এলাকার মৃত: নজিমুদ্দীন এর ছেলে অবসরপ্রাপ্ত শিক্ষক মো: আজিজার রহমানের বাড়িতে প্রবেশের চলাচলের জন্য একটি মাত্র রাস্তা।ওই রাস্তার প্রবেশমুখ সংলগ্ন স্থানে রয়েছে মৃত আব্দুল ওয়াহেদ এর ছেলে ভূমিদস্যু আবু মুসা আনছারীর বসতবাড়ী। আবু মুসা আনছারী চক্রের যোগসাজসে অবরুদ্ধ পরিবারের বাড়ির একমাত্র গেইটে একটি বড় তালা ঝুলিয়ে রাস্তার উত্তর-দক্ষিন বরাবর একটি প্রাচীর নির্মাণ করে চলাচলের রাস্তা বন্ধ করে দেয়।বিকল্প কোন রাস্তা না থাকায় শিক্ষক আজিজার রহমানের পরিবার চরম বিপাকে পড়েছেন।

স্থানীয় ও ভূক্তভোগী পরিবারের সাথে কথা বলে জানা যায়, মো: আজিজার রহমান ও আবু মুসা আনছারী চাচা ভাতিজা সম্পর্কে।গত ০১/০১/২০০৫ সালে মো: আজিজার রহমানের ছোট ভাই মৃত আব্দুল ওয়াহেদ ও বোনদের উপস্থিতিতে সকল পৈত্রিক জমি বন্ঠন করা হয়। কোন প্রকার দাবী ছাড়াই ওই রাস্তাটি ভোগদখল করে আসছেন আজিজার রহমান। কিন্তু গত ০৮/০৭/২০২২ শুক্রবার সকাল আনুমানিক ৯ টার সময় আবু মুসা আনছারী(৪১) সহ তার চক্র এলাকার মৃত মোজাম উদ্দিনের ছেলে মো: হাবিবুর রহমান(৫০), মো: হাবিবুর রহমানের ছেলে মো: কাজল (২৫), মৃত আবেদ আলীর ছেলে মো: মোশারফ হোসেন (৫০) সহ আরো অনেকে জোরপূর্বক প্রধান ফটকের দরজা ও প্রবেশ পথ বন্ধ করে দেয় এবং পাকা ওয়াল নির্মাণ করেন।এর ফলে ছেলে মেয়েরা প্রাইভেট পড়তে পারছে না।বাড়ির গবাদী পশু গোয়াল ঘর থেকে বের করতে পারছেন না তারা।

অবরুদ্ধ পরিবারের সদস্য মো: আব্দুল ওয়াদুদ বলেন, শুক্রবার সকালে ভূমিদস্যু আবু মুসা আনছারী ও তার দলবল আমাদের চলাচলের গেইট বন্ধ করে রাস্তায় প্রাচীর নির্মাণ করে। আমি বাঁধা দিতে গেলে তারা আমাকে মারধোর করে। আমি সেখান থেকে পালিয়ে আমার প্রতিবেশীর বাড়িতে ঢুকে পড়ি। আমি ও আমার পরিবার অবরুদ্ধ অবস্থায় আছি। তাই প্রশাসনের কাছে আমার দাবী ভূমিদস্যুদের দ্রুত আইনের আওতায় এনে শাস্তি দেওয়া হোক।

অবরুদ্ধ পরিবারের আরেক সদস্য মো: আব্দুল ওয়াজেদ বলেন, আমি ঢাকায় একটি বেসরকারী প্রতিষ্ঠানে চাকরী করি। পবিত্র ঈদ উল আযহার ছুটিতে বাড়ির উদ্দ্যেশে রওনা দেই। কিন্তু বাড়ির ভিতরে যাইতে পারিনি। তারা আমাকে দেখা মাত্র আমার উপর চরাও হয়ে আমাকে মারতে আসে। আমি পালিয়ে শহরে আমার বোনের বাড়িতে আশ্রয় নেই। আমি এই হয়রানীর দ্রুত সমাধান চাই এবং তদন্ত সাপেক্ষে অপরাধীদের উপর্যুক্ত শাস্তি কামনা করি।

জানতে চাইলে সদর থানার অফিসার ইনচার্জ আব্দুর রউপ বলেন, অভিযোগ পেয়েছি। তদন্ত সাপেক্ষে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।





@২০১৯ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত । গ্রামপোস্ট২৪.কম, জিপি টোয়েন্টিফোর মিডিয়া লিমিটেডের একটি প্রতিষ্ঠান।
Design BY MIM HOST