ঘোষনা:
শিরোনাম :
নীলফামারী চৌরঙ্গীতে আগুন, দোকান ভস্মীভূত নীলফামারী উত্তরণ নার্সিং এন্ড মিডওয়াইফারি ইনস্টিটিউটের আন্তর্জাতিক নার্সেস দিবস পালিত সাতক্ষীরায় ২০ মেট্রিক টন অপরিপক্ক আম জব্দের পর তা বিনষ্ট নীলফামারী সদর উপজলোর মনোনয়ন যাচাই শেষ, এক চেয়ারম্যান প্রার্থির মনোনয়ন অবৈধ নীলফামারীতে মহান মে দিবস পালিত নীলফামারীতে গচ্ছিত জামানত ও পি.এফ এর টাকা উদ্ধারের দাবীতে প্রোণ অফিস ঘেরাও। নীলফামারীতে সাংবাদিকের বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা প্রত্যাহারের দাবীতে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ সমাবেশ। নীলফামারী জলঢাকার পৌরসভায় নোভা বিজয়ী নীলফামারীর জলঢাকা উপ-নির্বাচনে বিএনপি প্রার্থির পক্ষে প্রচারণা, এমপির বিরুদ্ধে সংবাদ সম্মেলন। নীলফামারীতে সাংবাদিক নির্যাতনের ঘটনাকে ভিন্নখাতে প্রবাহিত করতে সাংবািদকের নামে থানায় মিথ্যা চাঁদাবাজি মামলা
নীলফামারীতে স্মার্ট বাংলাদেশ বিনির্মাণে আলোচনা সভা ও সন্মননা স্মারক প্রদান

নীলফামারীতে স্মার্ট বাংলাদেশ বিনির্মাণে আলোচনা সভা ও সন্মননা স্মারক প্রদান

মোঃ হারুন উর রশিদ, স্টাফ রিপোর্টার,
নীলফামারীতে “স্মার্ট বাংলাদেশ বিনির্মাণে আমার চোখে আগামীর নীলফামারী” প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

সোমবার (২৭ মার্চ/২৩) সকালে দ্বীপ্তমান যুব উন্নয়ন সংস্থার আয়োজনে জেলা যুব উন্নয়ন অধিদপ্তর ও জেলা মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের সহযোগীতায় জেলা যুব ভবনের সম্মেলন কক্ষে এ আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।

আলোচনা সভায় সদর উপজেলা যুব উন্নয়ন অফিসার মোঃ আলমগীর হোসেনের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি ছিলেন নীলফামারী জেলা যুব উন্নয়ন অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক মোঃ দিলগীর আলম।

প্রধান অতিথি তার বক্তব্যে বলেন, ডিজিটাল বাংলাদেশ নির্মাণে যে প্রতিজ্ঞা করা হয়েছিল তা পরিপূর্ণতা পেয়েছে ২০২১ সালে। বাংলাদেশ সরকারের এবারের লক্ষ্য স্মার্ট বাংলাদেশ। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্বপ্ন ছিল সোনার বাংলাদেশ প্রতিষ্ঠা করা। তাঁর সেই স্বপ্নকে বাস্তবায়নের লক্ষে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছে। উন্নয়ন অগ্রযাত্রা অব্যাহত থাকায় ইতিমধ্যে বাংলাদেশ মধ্যম আয়ের দেশে পরিণত হয়। আগামী ২০৪১ সালে, সমৃদ্ধ, স্মার্ট বাংলাদেশে পরিণত হবে। তাই আমাদের নিজ নিজ স্থান থেকে সরকারকে সহযোগীতা করতে হবে। সেইসাথে প্রশিক্ষনের মাধ্যমে নতুন উদ্দ্যোক্তা তৈরি করতে হবে। যাতে যুব সমাজ ধ্বংশের পথ থেকে বেড়িয়ে আসতে পারে।

এসময় দ্বীপ্তমান যুব উন্নয়ন সংস্থার সভাপতি আব্দুল মোমিনের সঞ্চালনায় বিশেষ অতিথি ছিলেন, যুব প্রশিক্ষণ কেন্দ্রের ডেপুটি কো-অর্ডিনেটর মোঃ শহীদুল ইসলাম সরকার, জেলা বিসিকের উপ-ব্যবস্থাপক হুসনে আরা খাতুন, নীলফামারী সরকারি কলেজের সহকারী অধ্যাপক মোঃ নূরুল করিম, জেলা মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের সহকারী পরিচালক মোহাম্মদ শরীফ উদ্দিন, যুব উন্নয়ন অধিদপ্তরের সহকারী পরিচালক মোঃ হাসান আলী, নীলফামারী সদর উপজেলার কৃষি সম্প্রসারণ অফিসার মোঃ রফিকুল ইসলাম,শহর সমাজসেবা অফিসার মোঃ হৃদয় হোসেন।

দ্বীপ্তমান যুব উন্নয়ন সংস্থার সভাপতি আব্দুল মোমিন বলেন, দ্বীপ্তমান যুব উন্নয়ন সংস্থা ও এর অঙ্গ সহযোগী প্রতিষ্ঠান। সরকার ঘোষিত ‘স্মার্ট বাংলাদেশ’ এর চারটি মূল ভিত্তি হলো- স্মার্ট নাগরিক, স্মার্ট অর্থনীতি, স্মার্ট সরকার ও স্মার্ট সমাজ। আমরা এই চারটি ভিত্তি নিয়ে সরকারের পাশাপাশি নিজ নিজ স্থান থেকে কাজ করবো।

এছাড়াও সংক্ষিপ্ত বক্তব্য রাখেন, জেলা মহিলা আওয়ামী লীগের সভাপতি রুপালী বেগম, ইউএসকেএস নারী পরিষদের সাধারন সম্পাদক ফরিদা খানম, নবরুপা নারী কল্যাণ সমিতির সভাপতি সেলিনা চৌধুরী, নীলফামারী পৌরসভার সংরক্ষিত ১.২.৩ ওয়ার্ডের কাউন্সিলর শ্রীমতী রত্না রানী রায়, আশার প্রদীপ মহিলা কল্যাণ সমিতির সভাপতি উম্মে কুলসুম সুন্দরী, এমএসডিএফ বাংলাদেশ এর চেয়ারম্যান মোঃ মারুফ হোসেন, পঞ্চগড় জেলা যুব ফোরামের সভাপতি আল-আমিন, আসমানী সমাজকল্যাণ সংস্থার নির্বাহী পরিচালক শিরিন আক্তার আশা, বন্ধু যুব উন্নয়ন সংস্থার সাধারণ সম্পাদক আবু বক্কর সিদ্দিক, দ্বীপ্তমান নারী কল্যাণ সংস্থার সাধারণ সম্পাদক বৈশাখী, নতুন স্বপ্ন বাংলাদেশ এর সাধারণ সম্পাদক ছবি রাণী রবিদাশ, রিতা মহিলা উন্নয়ন সংস্থা সভাপতি রিতা বেগম, নীলফামারী জেলা যুব ফোরামের সাহিত্য বিষয়ক সম্পাদক ইমরান খান, মহিলা ও শিশু বিষয়ক সম্পাদক আবিদা সুলতানা, সাংস্কৃতিক বিষয়ক সম্পাদক মোঃ ছোটন মিয়া, উদ্যোক্তা কাজী সেবকা হক বকুল, ইয়াসমিন আক্তার তুলি, রিতা বেগম, জাতীয় ঘটক কল্যাণ সোসাইটি নির্বাহী সদস্য কায়েদ-ই-আযম রাজুসহ অনেকে।

বক্তারা বলেন, যেই ডিজিটাল বাংলাদেশ নির্মাণ নিয়ে এক সময় ছিল জল্পনা-কল্পনা, তা আজ বাস্তবতায় রুপ নিয়েছে। ডিজিটাল বাংলাদেশ নিয়ে যারা সমালোচনা করেছেন তারা নির্বাক হয়ে গেছে বাংলাদেশের সাফল্যে। দেশের ভূ-খন্ড ছাড়িয়ে বিশ্বের বুকে তথ্যপ্রযুক্তি খাতের উন্নয়নে প্রশংসিত বাংলাদেশ এখন ডিজিটাল থেকে স্মার্ট হওয়ার পথে। আসুন আমরা দেশকে স্মার্ট বাংলাদেশে বিনির্মাণে সহযোগীতা করি। আজকের তরুণরাই পারে আগামীতে স্মার্ট বাংলাদেশ নির্মাণ করতে। তাদেরকে উৎসাহীত করি। তাহলেই স্মার্ট বাংলাদেশ নির্মাণ সম্ভব।

আলোচনা সভা শেষে অনুষ্ঠানের অতিথি বৃন্দের মাঝে সন্মননা স্মারক প্রদান করা হয় এবং তরুন উদ্দ্যেক্তাদের হাতে সম্মাননা উপহার তুলে দেওয়া হয়।





@২০১৯ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত । গ্রামপোস্ট২৪.কম, জিপি টোয়েন্টিফোর মিডিয়া লিমিটেডের একটি প্রতিষ্ঠান।
Design BY MIM HOST