ঘোষনা:
শিরোনাম :
নীলফামারীতে পানি উন্নয়ন বোর্ডের স্বেচ্ছাচারিতায় ১২১৭ একর জমির ফসল নষ্ট, এলাকাবাসীর মানববন্ধন। গাজীপুরের কোনাবাড়ীর পোশাক কারখানা শ্রমিকের ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার সৈয়দপুরে বিনামূল্যে অক্সিজেন সেবায় ‘ইটস হিউম্যানিটি’ গৌরবোজ্জল সংগ্রাম ও সাফল্যের ২৭ বছর পূর্তি, আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগ কিশোরগঞ্জে স্বেচ্ছাসেবক লীগের ২৭তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা জয় এর ৫০তম জন্মবার্ষিকীতে ডাক ও টেলিযোগাযোগ বিভাগের ডাক টিকেট, উদ্বোধন। কক্সবাজারের উখিয়ায় ভারী বর্ষনে পাহাড় ধসে ৫ ও পানিতে ১ শিশু নিহত সময় ও নম্বর কমিয়ে স্বাস্থ্যবিধি মেনে নেয়া হবে,এসএসসি ও এইচএসসি বা সমমানের পরীক্ষা ডোমারে করোনা সংক্রমণরোধে মাস্ক বিতরণ চট্টগ্রামে লকডাউনের চতুর্থদিনে মহানগরীতে গাড়ি চলাচল বেড়েছে
সাদুল্ল্যাপুরে ভিজিডি কর্মসূচির নিম্নমানের ১০২বস্তা চাল আটক করেছে পুলিশ।

সাদুল্ল্যাপুরে ভিজিডি কর্মসূচির নিম্নমানের ১০২বস্তা চাল আটক করেছে পুলিশ।

গাইবান্ধা প্রতিনিধি ,
গাইবান্ধা প্রতিনি গাইবান্ধা সাদুল্লাপুর উপজেলা সদর বনগ্রাম ইউনিয়ন পরিষদের ভিজিডি কর্মসুচির উপকারভোগীদের মাঝে সরকারী বরাদ্দকৃত চালের পরিবর্তে বিতরণের জন্য নিম্ন মানের খাবার অনুপযোগী মজুতকৃত ১০২ বস্তা চাল মঙ্গলবার দুপুরে আটক করেছে পুলিশ।
প্রত্যক্ষদর্শী ও পুলিশ জানান, মঙ্গলবার বনগ্রাম ইউনিয়ন পরিষদের ভিজিডি কর্মসুচির চাল বিতরণ করার কথা ছিল। কিন্তু ইউপি চেয়ারম্যান সাদুল্লাপুর সরকারী খাদ্য গুদাম থেকে বরাদ্দকৃত ভিজিডি কর্মসুচির ওই চালমঙ্গলবার বিকাল পর্যন্ত উত্তোলন করেননি। তার পরিবর্তে বিগত ২০১৭ সালের বস্তাবন্দি নি¤œ মানের খাবার অনুপযোগী এই চালগুলো ইউনিয়ন পরিষদে মজুত করা হয়। খবর পেয়ে পুলিশ ইউনিয়ন পরিষদ থেকে এই চাল জব্দ করে থানায় নিয়ে আসেন।
বনগ্রাম ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান শাহীন সরকার বলেন, ‘ভিজিডি কর্মসুচির বরাদ্দকৃত চাল মঙ্গলবার বিকাল পর্যন্ত উত্তোলন করা হয়নি। এই চালগুলো ৩নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য শহিদুর রহমান শহীদ তার উপজেলা মোড়স্থ নিজ গুদাম থেকে ইউনিয়ন পরিষদে নিয়ে যায়।’ কিন্তু কেন নিয়ে যাওয়া হয়। এব্যাপারে তিনি কিছু জানেন না।
কিন্তু বিতরণের কথা থাকলেও কেন বরাদ্দকৃত চাল উত্তোলন করা হলো না এ প্রশ্নের উত্তরে বনগ্রাম ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান শাহীন সরকার জানান, হটাৎ করে এই সমস্যা সৃষ্টি হওয়ায় চাল উত্তোলন করা সম্ভব হয় নাই।
এ ব্যাপারে ৩নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য শহিদুর রহমান শহীদের সাথে একাধিকবার যোগাযোগের চেষ্টা করা হলেও তার মোবাইল ফোন বন্ধ পাওয়া যায়।
বনগ্রাম ইউনিয়ন পরিষদের ওই কর্মসুচির তদারকী কর্মকর্তা উপজেলা জনস্বাস্থ্য প্রকৌশলী মোঃ ইউনুস আলী জানান, এবিষয়ে তিনি কিছু জানেন না।
সাদুল্লাপুর থানার ওসি আরশেদুল হক সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, প্রতিটি ৩০ কেজি ওজনের চালের বস্তাগুলো খাদ্য অধিদপ্তরের স্টিকার যুক্ত। একারণে ধারনা করা হচ্ছে বিগত দিনের অন্য কোন সরকারী কর্মসুচি থেকে এই চালগুলো হাতিয়ে নেয়া হয়েছে। যা সুযোগ বুঝে ভিজিডি কর্মসুচির উপকারভোগীদের মাঝে বিতরণ করার উদ্যোগ নেয়া হয়েছিল। আর ভিজিডি কর্মসুচির বরাদ্দকৃত চালগুলো হয়তো অন্যত্র বিক্রি করে দেয়া হতো। তিনি আরো জানান, এছাড়া এ বিষয়ে আরো অন্য কোন পরিকল্পনা ছিল কিনা, পুলিশ সেই তথ্য অনুসন্ধানেও তদন্ত অব্যাহত রেখেছে। তদন্ত শেষে মঙ্গলবার রাতেই এ বিষয়ে আইনগত ব্যাবস্থা নেয়া হবে।উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ও উপজেলা আ’লীগের সাধারণ সম্পাদক আলহাজ্ব সাহারিয়া খান বিপ্লব জানান, খাবার অনুপযোগি এই চাল বিতরণ করে বর্তমান সরকারকে সাধারণ জনগনের মাঝে বির্তকিতভাবে উপস্থাপন ও ব্যক্তিগতভাবে লাভবান হওয়ার জন্য এই কাজটি করা হচ্ছিল। উপজেলা নির্বাহি কর্মকর্তা মোঃ নবীনেওয়াজ জানান, বিষয়টি তিনি অবগত হয়েছেন।দোষীদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়ার কথা বলেন।





@২০১৯ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত । গ্রামপোস্ট২৪.কম, জিপি টোয়েন্টিফোর মিডিয়া লিমিটেডের একটি প্রতিষ্ঠান।
Design BY MIM HOST