ঘোষনা:
শিরোনাম :
সাতক্ষীরার শ্যামনগরে আত্মসমর্পনকারী বনদস্যুর মাঝে ঈদ উপহার সাতক্ষীরার দুটি উপজেলায় ভূমিহীন ও গৃহহীনদের চাবী ও দলিল দিয়ে ভূমিহীন ও গৃহহীন মুক্ত ঘোষণা নীলফামারীতে মিথ্যা মামলা প্রত্যাহার ও জমির মালিকানা বহালে সংবাদসম্মেলন মিথ্যা প্রলোভনে পাহাড়ের নারীদের পাচার করছে একটি সংবদ্ধ চক্র সাতক্ষীরায় ভাঙান মাছ চাষ পদ্ধতি ও ব্যবস্থাপনা বিষয়ক কর্মশালা গ্রামীণব্যাংকের সেবার মান বাড়ানোর প্রতিশ্রুতি, নীলফামারীতে কোরবানির জন্য প্রস্তুত ২ লাখ ৭৬ হাজার ২০১টি পশু নীলফামারীতে প্রযুক্তিগত দক্ষতা বৃদ্ধিতে নারীদের ছয় মাস ব্যাপি প্রশিক্ষণের উদ্বোধন চট্টগ্রামে টাকার জন্য মাকে কুপিয়ে হত্যা, ছেলেকে আটক করেছে পুলিশ যুবদলের নির্যাতিত নেতৃবৃন্দের সংবর্ধনা অনুষ্ঠিত
নীলফামারীতে সন্ত্রাসীদের তান্ডবে বাড়ি ছাড়া ২১ পরিবারের সংবাদ সম্মেলন

নীলফামারীতে সন্ত্রাসীদের তান্ডবে বাড়ি ছাড়া ২১ পরিবারের সংবাদ সম্মেলন

মোঃ হারুন উর রশিদ, স্টাফ রিপোর্টার,

নীলফামারীর সদর সোনারায় ইউনিয়নে জামায়াত-শিবির এবং সন্ত্রাসীদের তান্ডবে দেড় বছর ধরে বাড়ি ছাড়া ২১টি ভুক্তভোগী পরিবার নিরাপত্তার সাথে বাড়ি ফিরে শান্তিতে বসবাস করার লক্ষে সংবাদ সম্মেলন করেন তারা ।

রবিবার(১০ সেপ্টেম্বর) সকালে সোনারায় ময়েন মাস্টার পাড়া এলাকায় ভুক্তভোগী ২১ পরিবারের আয়োজনে এ সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়।

এ সময় ২১ পরিবারের পক্ষে মো.হায়দার আলী বলেন, নীলফামারী সদর উপজেলার ১১ নং সোনারায় ইউনিয়নের মুসরত কুখাপাড়া (কুমার পাড়া) গ্রামে সন্ত্রাসীদের তান্ডবে আমরা দেড় বছর ধরে ২১ পরিবার বাড়ি ছাড়া, পরিবারগুলো নিরাপত্তার সাথে বাড়ি ফিরে শান্তিতে বসবাস করতে চাই। তিনি আরো বলেন, আমরা এই গ্রামে নারী পুরুষ হিন্দু মুসলমানসহ ৫/৬ হাজার লোক বসবাস করি। দীর্ঘদিন ধরে একই এলাকার জামায় নেতা মোস্তফা কামাল, বিভিন্ন মামলার আসামী কাওছার ও আবুল হোসেন গংরা অত‍্যাচার করে কোন কারণে ছাড়াই ২১ পরিবারকে গ্রামে থাকতে দিচ্ছে না সন্ত্রাসীরা। তাদেরকে দেখলেই ধারালো অস্ত্র দিয়ে খুন জখম ও পায়ের রক কেটে দেয়ার চেষ্টাসহ এ যাবত ৪/৫ জনকে ধরিয়ে পায়ের রক এবং শরীরের বিভিন্ন স্থানে রক্তাক্ত আবার কাউকে পঙ্গুও করেছে এই সন্ত্রাসীরা। তাদের ভয়ে গ্রাম ছাড়া ২১ পরিবারের নারী পুরুষ ছোট ছোট শিশু সন্তানসহ মানুষের বাড়ি, বাঁশ ঝাড়ে, স্কুল ও মাদ্রাসার বারান্দায় বসবাস করছে। তারপরও প্রতিদিন আমাদের দেখলেই হুমকি দিচ্ছে।

ভুক্তভোগীরা বলেন, আমরাওতো মানুষ, আমাদেরও তো বাড়ি ঘর আছে আমরা কেন বসবাস করতে পারছি না? এ সুযোগে আমাদের বাড়িতে থাকা গরু, ছাগল, হাস, মুরগি, আসবাবপত্র সকল জিনিস পত্র সন্ত্রাসীরা লুট করে নিয়েছে এখন আমরা কিভাবে বাঁচবো।

ভুক্তভোগীদের দাবী দেশের মন্ত্রী, এমপি ও প্রশাসনের উদ্ধর্তন কর্তৃপক্ষ যেন দ্রুত নিরাপত্তার সাথে শান্তিতে তাদের বাড়িতে বসবাস করার ব‍্যবস্থা করেন।





@২০১৯ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত । গ্রামপোস্ট২৪.কম, জিপি টোয়েন্টিফোর মিডিয়া লিমিটেডের একটি প্রতিষ্ঠান।
Design BY MIM HOST