ঘোষনা:
ডিমলায় আদালতের রায় অমান্য করে ঘরবাড়ী জবর দখলের চেষ্টা ।

ডিমলায় আদালতের রায় অমান্য করে ঘরবাড়ী জবর দখলের চেষ্টা ।

ডিমলা (নীলফামারী) প্রতিনিধি ,
নীলফামারী জেলা ডিমলা উপজেলা পশ্চিম ছাতনাই ইউনিয়নে মধ্য ছাতনাই গ্রামের মাহাবুবুল আলম এর পুত্র আসাদুজ্জামার এর সহিত খায়রুল ইসলাম ডালিম গং এর জমি সংক্রান্ত বিষয় লইয়া ২০১৬ সাল হইতে আদালতে মামলা চলিতেছে। জানা গেছে গত ৩০ এপ্রিল-১৯ ইং তারিখ বিজ্ঞ অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিষ্ট্রেট আদালত, নীলফামারী আসাদুজ্জামানের পক্ষে ফৌঃকাঃবিঃ ১৪৪/১৪৫ ধারায় রায় প্রদান করেন। ধারায় উল্লেখ করিয়াছেন যে, উপযুক্ত আদালত বা কর্তৃপক্ষ কর্তৃক অন্য কোন আদেশ বা নির্দেশ না থাকলে উক্ত নালিশী বিত্ত্বে কোন প্রকার অনুপ্রবেশ করা যাবে না। ইহা জানা স্বত্ত্বেও খায়রুল ইসলাম গং গত ০২ জুন-১৯ তারিখ দিবালকে খায়রুল ইসলাম গং আসাদুজ্জামানের বাড়ীতে অবৈধ অনুপ্রবেশ করে তাহার স্ত্রী ও সন্তানকে অশ্লীল ভাষায় গালিগালাজ করে বাড়ীতে লাগানো ৬টি মেহগনী ও ৮টি ইউক্লিপ্ট্যাস এবং ৫টি সুপারি গাছ ও ৮টি কলা গাছ তাহাদের হাতে থাকা দেশীয় অস্ত্র দিয়ে কেটে ফেলে। ইহাতে তাহার স্ত্রী বাধা নিষেধ করায় খায়রুল ইসলাম তাহাকে বিভিন্ন ধরনের ভয়ভীতি ও হুমকি প্রদর্শন করেন। এ বিষয় আসাদুজ্জামান বলেন গত ৫ জুলাই-১৫ তারিখে একরামুল হক সরকারের নিকট হইতে ৩২৪৭/১৫ নং দলিল মুলে ১৮ শতাংশ জমি ক্রয়সূত্রে মালিক হই। কিন্তুু খায়রুল ইসলাম নিজের মিথ্যা স্বত্ত্ব দাবী করিয়া আসাদুজ্জামানের উপর বাড়ীর কাজের মেয়ে রুবিনা আক্তারকে দিয়ে নারী নির্যাতন ও ধর্ষনের অভিযোগ দিয়ে ১০ মাস ১৭ দিন জেল হাজত খাটিয়েছেন এবং আরো বড় ধরনের ক্ষতি করার জন্য প্রচেষ্ঠা চালাইতেছেন বলে জানান। আসাদুজ্জামান একজন প্রকৃত ভূমিহীন ব্যক্তি বিধায় পশ্চিম ছাতনাই ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আনোরুল হক সরকার তাকে ভূমিহীন সনদ পত্র প্রদান করেন। এ প্রসঙ্গে এলাকাবাসীদের সাথে কথা বললে তারা বলেন আসাদুজ্জামান কে মিথ্যা মামলা থেকে অব্যাহতি প্রদানের লক্ষে উর্দ্বতন কর্তৃপক্ষ যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহন করবেন বলে আমরা আশাবাদি।





@২০১৯ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত । গ্রামপোস্ট২৪.কম, জিপি টোয়েন্টিফোর মিডিয়া লিমিটেডের একটি প্রতিষ্ঠান।
Design BY MIM HOST