ঘোষনা:
শিরোনাম :
ডিমলায় সরকারী সেবা জনগনের দোরগোড়ায় দিতে চান ইউএনও উম্মে সালমা নীলফামারীতে পবিত্র ঈদুল আযহায় জেলা পুলিশের উৎসব সাতক্ষীরার শ্যামনগরে আত্মসমর্পনকারী বনদস্যুর মাঝে ঈদ উপহার সাতক্ষীরার দুটি উপজেলায় ভূমিহীন ও গৃহহীনদের চাবী ও দলিল দিয়ে ভূমিহীন ও গৃহহীন মুক্ত ঘোষণা নীলফামারীতে মিথ্যা মামলা প্রত্যাহার ও জমির মালিকানা বহালে সংবাদ সম্মেলন মিথ্যা প্রলোভনে পাহাড়ের নারীদের পাচার করছে একটি সংবদ্ধ চক্র সাতক্ষীরায় ভাঙান মাছ চাষ পদ্ধতি ও ব্যবস্থাপনা বিষয়ক কর্মশালা গ্রামীণব্যাংকের সেবার মান বাড়ানোর প্রতিশ্রুতি, নীলফামারীতে কোরবানির জন্য প্রস্তুত ২ লাখ ৭৬ হাজার ২০১টি পশু নীলফামারীতে প্রযুক্তিগত দক্ষতা বৃদ্ধিতে নারীদের ছয় মাস ব্যাপি প্রশিক্ষণের উদ্বোধন
নীলফামারীর জলঢাকা উপ-নির্বাচনে বিএনপি প্রার্থির পক্ষে প্রচারণা, এমপির বিরুদ্ধে সংবাদ সম্মেলন।

নীলফামারীর জলঢাকা উপ-নির্বাচনে বিএনপি প্রার্থির পক্ষে প্রচারণা, এমপির বিরুদ্ধে সংবাদ সম্মেলন।

মোঃ হারুন উর রশিদ,স্টাফ রিপোর্টার,
নীলফামারীর জলঢাকায় পৌরসভার উপ-নির্বাচনে আইনের তোয়াক্কা না করে সংসদ সদস্য সাদ্দাম হোসেন পাভেল বিএনপি প্রার্থির পক্ষে নির্বাচনী প্রচারণা, ভোট প্রার্থনা, কালো টাকার ছড়াছড়ি এবং আওয়ামী লীগ নেতা-কর্মীদের হুমকীর প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন হয়েছে।

শনিবার (২৭ এপ্রিল/২৪) বিকালে জলঢাকা পৌর আওয়ামী লীগ কার্যালয়ে এ সংবাদ সম্মেলন করেন পৌর আওয়ামী লীগসহ আওয়ামীলীগ সমর্থিত প্রার্থি নাসিব সাদিক হোসেন নোভা।

সংবাদ সম্মেলনে আওয়ামীলীগ সমর্থিত প্রার্থি নাসিব সাদিক হোসেন নোভা বলেন, জলঢাকা-০৩ আসনের সংসদ সদস্য সাদ্দাম হোসেন পাভেল কেন্দ্রীয় যুবলীগের ত্রাণ ও সমাজকল্যাণ সম্পাদক হওয়ার পরেও আওয়ামীলীগের সিদ্ধান্তকে উপেক্ষা করে বিএনপি নেতা ফাহমিদ ফয়সাল কমেট চৌধুরীর বিজয় ত্বড়ান্বিত করার সকল প্রক্রিয়া অবলম্বন করছেন। সরাসরি বিএনপি সমর্থিত প্রার্থি কমেট চৌধুরীর হয়ে তার কালো টাকা ভোটারদের দিচ্ছেন একটি ভোটের বিনিময়ে। এরসাথে সহযোগীতা করছে জলঢাকা থানার অফিসার ইনচার্জ মুক্তারুল আলম। প্রচারণায় বাঁধা, আওয়ামী লীগ নেতা-কর্মীদের হুমকী,পুলিশের মাধ্যমে মাইক আটকিয়ে থানায় নিয়ে যায়। আমি জেলা নির্বাচন অফিস বরাবর অভিযোগও দিয়েছি। কিন্তু কোন কাজ হয়নি।

জলঢাকা পৌর আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক মোঃ আব্দুল মজিদ বলেন, এমপি সাদ্দাম প্রতিদন্দি মেয়র প্রার্থী বহিস্কৃত বিএনপির উপজেলা সভাপতি ফাহমিদ ফয়সাল কমেড চৌধুরীর পক্ষে ভোট দিতে ভোটারদের প্রভাবিত করছে বিভিন্ন ভাবে। স্থানীয় থানার ওসিকে দিয়ে ভোটারদের নানা রকম ভয়ভীতি প্রদর্শন করছে। এনিয়ে দুপুরে শহরের জিরো পয়েন্টে উত্তেজিত জনতা প্রতিবাদ সমাবেশ ও মানববন্ধন করার চেষ্টা করলে এমপি পাভেলের নির্দেশে পুলিশ লাঠিচার্জ করে সবাইকে ছত্রভংগ করে দেয়। নির্বাচনী প্রচারনায় এমপির হয়ে কাজ করায় ওসি মুক্তারুল আলমকে প্রত্যাহারের দাবিসহ নির্বাচনের দিন এমপি পাভেলকে এলাকা ছাড়ার দাবি জানাই।

এসময় জেলায় কর্মরত প্রিন্ট ও ইলেক্ট্রনিক মিডিয়ার সাংবাদিকসহ অঙ্গ-সংগঠনের নেতা-কর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।





@২০১৯ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত । গ্রামপোস্ট২৪.কম, জিপি টোয়েন্টিফোর মিডিয়া লিমিটেডের একটি প্রতিষ্ঠান।
Design BY MIM HOST