ঘোষনা:
শিরোনাম :
নীলফামারীতে বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের ৭২ তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উদযাপন। খুলনায় স্বাস্থ্যবিধি না মানায় অর্থদণ্ড ও কারাদণ্ড প্রদান । জলঢাকায় হরিজন পল্লীতে তুরিন আফরোজ কিশোরগঞ্জে ভাতাভোগীদের টাকা হাতিয়েছে প্রতারক চক্রটি জলঢাকায় আনসার ও গ্রাম প্রতিরক্ষা বাহিনীর বৃক্ষ রোপন ও চারাগাছ বিতরণ নীলফামারীতে মুজিববর্ষ ও স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উপলক্ষে বৃক্ষরোপন করেছে আনসার ওভিডিপি। সৈয়দপুরে রেলের তদন্ত প্রতিবেদন,নিজেকে বাঁচাতে উপজেলা চেয়ারম্যানের সংবাদ সম্মেলন । পঞ্চগড়ের দেবীগঞ্জে করোনা আক্রান্ত মাদ্রাসা শিক্ষিকার মৃত্যু। বাংলাদেশ স্কাউটস এর স্ট্রাটেজিক প্ল্যান ও গ্রোথ মূল্যায়ন ওয়ার্কশপ বরিশালের গৌরনদী উপজেলায় নির্বাচনী সহিংসতায় নিহত ১, আহত ২
মঙ্গলবার রাতে পূর্ণ সূর্যগ্রহণ । বাংলাদেশে সূর্যগ্রহণ দেখা যাবে না।

মঙ্গলবার রাতে পূর্ণ সূর্যগ্রহণ । বাংলাদেশে সূর্যগ্রহণ দেখা যাবে না।

ঢাকা প্রতিবেদক,

মঙ্গলবার রাতে পূর্ণ সূর্যগ্রহণ দেখা যাবে। সূর্যগ্রহণ দেখার আশায় আগামীকাল মঙ্গলবার রাতে আকাশের দিকে অনেকেই হয়তো চোখ রাখবেন। দক্ষিণ মহাসাগরের ফ্রেঞ্চ পলিনেশিয়ার মুতু্ওয়ারা দ্বীপের বাসিন্দা আর বলিভিয়ার বাসিন্দারা দেখতে পাবেন এই পূর্ণগ্রাস। তবে বাংলাদেশের আকাশে সূর্যগ্রহণ দেখা যাবে না।এবারের সূর্যগ্রহণটি দক্ষিণ মহাসাগরের ফ্রেঞ্চ পলিনেশিয়ার মুতু্ওয়ারা দ্বীপের দক্ষিণ-পূর্ব দিক থেকে শুরু হয়ে বলিভিয়ার মুরকু শহরের দক্ষিণ-পূর্ব দিক পর্যন্ত দেখা যাবে। আবহাওয়া অধিদপ্তরের এক বিশেষ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, আগামীকাল ২ জুলাই রাত ১০টা ৫৫ মিনিটে সূর্যগ্রহণ শুরু হবে। রাত ১২টা ২ মিনিটে কেন্দ্রীয় সূর্যগ্রহণ শুরু হয়ে শেষ হবে রাত ২ টা ৪৩ মিনিটে। এর মাঝে সূর্যের সর্বোচ্চ গ্রহণটি হবে বাংলাদেশ সময় রাত ১টা ২৩ মিনিটে। তখন গ্রহণটির স্থায়িত্ব হবে ৪ মিনিট ৩৮ সেকেন্ড। রাত ৩টা ৫০ মিনিটে সম্পূর্ণ গ্রহণ শেষ হবে। যখন পূর্ণগ্রাস ঘটে, তখন সূর্য ও পৃথিবীর মাঝ বরাবর চাঁদ চলে আসে এবং তারা একই সরলরেখায় অবস্থান করে। এতে চাঁদের আড়ালে সূর্য ঢাকা পড়ে যায় এবং চাঁদকে অনেক বড় দেখায়। সূর্যগ্রহণে চাঁদ সূর্যকে সম্পূর্ণ ঢেকে ফেলতে পারে। এতে কোনো কোনো স্থানে তখন পূর্ণ সূর্যগ্রহণ দেখা দেয়। এ সময় সূর্য পুরোপুরি ঢাকা পড়ে যাওয়ার দৃশ্য চোখে পড়ে।

 





@২০১৯ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত । গ্রামপোস্ট২৪.কম, জিপি টোয়েন্টিফোর মিডিয়া লিমিটেডের একটি প্রতিষ্ঠান।
Design BY MIM HOST