ঘোষনা:
কেন্দ্রে কেন্দ্রে ভোটারদের দীর্ঘ লাইন

কেন্দ্রে কেন্দ্রে ভোটারদের দীর্ঘ লাইন

তিন যুগ পর নির্বাচন অনুষ্ঠিত হচ্ছে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদ (ডাকসু) ও হল সংসদ নির্বাচনে ভোট। ভোট শুরুর আগেই কেন্দ্রে বুথের সামনে ভোটারদের দীর্ঘ লাইন দেখা গেছে। দীর্ঘ ২৮ বছর পর নির্বাচন হওয়ায় ভোটারদের মধ্যে দেখা গেছে বাড়তি উৎসব আমেজ।

সোমবার সকাল ৮টায় শুরু হয় ভোট। চলবে একটানা দুপুর ২টা পর্যন্ত। এবার মোট ভোটার ৪৩ হাজার ২৫৬ জন। ডাকসুতে ২৫টি পদের জন্য লড়ছেন ২২৯ প্রার্থী। আর ১৮টি হল সংসদে ২৩৪টি পদের বিপরীতে প্রার্থী ৫০৯ জন।

সকাল পৌনে ৮টার দিকে হাজী মুহাম্মদ মহসিন হল, সার্জেন্ট জহুরুল হক হল ও সলিমূল্লাহ মুসলিম (এসএম) হলসহ কয়েকটি হল সরেজমিন দেখে গেছে, শিক্ষার্থীরা দলে দলে এসে ভোট কেন্দ্রে দাঁড়িয়ে গেছেন। সকাল ৭টার পরপরই কেন্দ্রে কেন্দ্রে অবস্থান নেন ভোটাররা। সারিবদ্ধভাবে লাইনে দাঁড়িয়ে ভোটের অপেক্ষায় থাকেন।

এক শিক্ষার্থী জানান, অনেক দিন পর নির্বাচন হচ্ছে, তাই নিজের মধ্যে কেমন যেন উৎসব উৎসব মনে হচ্ছে। সকাল সকাল যেন নিজের ভোটটা দিতে পারি, সে জন্য সকালেই এসে লাইনে দাঁড়িয়েছি।

ডাকসুতে প্যানেল দিয়ে নির্বাচন করছে বাংলাদেশ ছাত্রলীগ, জাতীয়তাবাদী ছাত্রদল, বাম সংগঠনগুলোর জোট, কোটা আন্দোলনকারীদের সংগঠন বাংলাদেশ সাধারণ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদ, স্বাধিকার স্বতন্ত্র পরিষদ, স্বতন্ত্র জোট, জাসদ ছাত্রলীগ, ছাত্রলীগ-বিসিএল, ছাত্র মৈত্রী, ইসলামী শাসনতন্ত্র ছাত্র আন্দোলন, ছাত্র মুক্তিজোট, জাতীয় ছাত্রসমাজ ও বাংলাদেশ ছাত্র আন্দোলন। এ ছাড়া স্বতন্ত্র প্রার্থীও রয়েছেন।

চূড়ান্ত প্রার্থী তালিকায় সহ-সভাপতি (ভিপি) পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন ২১জন; তাদের সঙ্গে এই নির্বাচনে ১৪ জন লড়বেন সাধারণ সম্পাদক (জিএস) এবং ১৩ জন সহ-সাধারণ সম্পাদক (এজিএস) পদে। ১২টি প্যানেলের বাইরে ভিপি পদে ৯ জন এবং জিএস পদে ২ জন স্বতন্ত্র হিসাবে নির্বাচনে লড়বেন।





@২০১৯ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত । গ্রামপোস্ট২৪.কম, জিপি টোয়েন্টিফোর মিডিয়া লিমিটেডের একটি প্রতিষ্ঠান।
Design BY MIM HOST