ঘোষনা:
শিরোনাম :
নীলফামারীতে পানি উন্নয়ন বোর্ডের স্বেচ্ছাচারিতায় ১২১৭ একর জমির ফসল নষ্ট, এলাকাবাসীর মানববন্ধন। গাজীপুরের কোনাবাড়ীর পোশাক কারখানা শ্রমিকের ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার সৈয়দপুরে বিনামূল্যে অক্সিজেন সেবায় ‘ইটস হিউম্যানিটি’ গৌরবোজ্জল সংগ্রাম ও সাফল্যের ২৭ বছর পূর্তি, আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগ কিশোরগঞ্জে স্বেচ্ছাসেবক লীগের ২৭তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা জয় এর ৫০তম জন্মবার্ষিকীতে ডাক ও টেলিযোগাযোগ বিভাগের ডাক টিকেট, উদ্বোধন। কক্সবাজারের উখিয়ায় ভারী বর্ষনে পাহাড় ধসে ৫ ও পানিতে ১ শিশু নিহত সময় ও নম্বর কমিয়ে স্বাস্থ্যবিধি মেনে নেয়া হবে,এসএসসি ও এইচএসসি বা সমমানের পরীক্ষা ডোমারে করোনা সংক্রমণরোধে মাস্ক বিতরণ চট্টগ্রামে লকডাউনের চতুর্থদিনে মহানগরীতে গাড়ি চলাচল বেড়েছে
অপরাধী প্রত্যর্পণ বিল ঘিরে হংকংয়ে চলমান বিক্ষোভ শক্ত হাতে দমন, হুঁশিয়ারি দিয়েছে চীন।

অপরাধী প্রত্যর্পণ বিল ঘিরে হংকংয়ে চলমান বিক্ষোভ শক্ত হাতে দমন, হুঁশিয়ারি দিয়েছে চীন।

ছবি: সংগৃহীত

আন্তর্জাতিক ডেস্ক ,

অপরাধী প্রত্যর্পণ বিল ঘিরে হংকংয়ে চলমান বিক্ষোভ শক্ত হাতে দমন করা হতে পারে বলে হুঁশিয়ারি দিয়েছে চীন।

লন্ডনে নিযুক্ত চীনা রাষ্ট্রদূত লিউ জিয়াওমিংয়ের বরাত দিয়ে আন্তর্জাতিক গণমাধ্যম এ কথা জানায়।

প্রতিবেদনে বলা হয়, বিক্ষোভকারীদের সতর্ক করে দিয়ে লিউ জিয়াওমিং বলেছেন, হংকং পরিস্থিতির আরও অবনতি হলে তা নিয়ন্ত্রণে চীন নিজের ক্ষমতাকে কাজে লাগাবে।

কিছু বিক্ষোভকারীর মধ্যে ‘সন্ত্রাসের লক্ষণ’ দেখা গেছে এমন অভিযোগ তুলে চীনা রাষ্ট্রদূত বলেন, কেন্দ্রীয় সরকার এ পরিস্থিতিতে কেবল হাত গুঁটিয়ে নীরব দর্শকের ভূমিকায় বসে থাকবে না।

আধাস্বায়ত্তশাসিত হংকংয়ের সংবিধানের প্রতি দৃষ্টি আকর্ষণ করে তিনি বলেন, দ্রুত অস্থিতিশীল পরিস্থিতি দমনে আইনগতভাবেই আমাদের হাতে যথেষ্ঠ ক্ষমতা রয়েছে। কেবলমাত্র কিছু সহিংস অপরাধী হংকংকে রসাতলে নিয়ে যাবে চীনের কেন্দ্রীয় সরকার তা হতে দেবে না। সংবিধান অনুসারে আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি সামাল দিতে হংকং সরকার যে কোনো সময় কেন্দ্রের কাছে সাহায্য চাইতে পারে।

শুক্রবার (১৬ আগস্ট) রাষ্ট্র নিয়ন্ত্রিত চীনা ট্যাবলয়েড সংবাদপত্র গ্লোবাল টাইমসও হংকং ইস্যুতে চীন চাইলে ‘জোরপূর্বক হস্তক্ষেপ’ করতে পারে বলে হুঁশিয়ারি দিয়েছে। চলমান বিক্ষোভে যুক্তরাষ্ট্রের ‘নাক গলানোরও’ তীব্র সমালোচনা করা হয় সেখানে।

পত্রিকাটিতে বলা হয়, হংকং যদি নিজের থেকেই আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে নিতে না পারে ও দাঙ্গা আরও তীব্র আকার নেয়, তাহলে মৌলিক আইনের আওতায় থেকেই কেন্দ্রীয় সরকার এতে সরাসরি হস্তক্ষেপ করতে বাধ্য হবে। সম্প্রতি হংকং সীমান্তসংলগ্ন শেনজেন স্টেডিয়ামে শত শত আধা সামরিক পুলিশ (পিএপি) মোতায়েনের ঘটনাকে এ ব্যাপারে কেন্দ্রের ‘স্পষ্ট হুঁশিয়ারি’ হিসেবে উল্লেখ করে পত্রিকাটি।

এরই মধ্যে রোববার (১৮ আগস্ট) হংকংয়ের মানবাধিকার সংগঠন দ্য সিভিল হিউম্যান রাইটস এক প্রতিবাদ সমাবেশের আয়োজন করেছে।
সব মিলিয়ে উদ্ভূত পরিস্থিতি নিয়ে গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করেছে যুক্তরাষ্ট্র, ফ্রান্সসহ পশ্চিমা বিশ্বের দেশগুলো।





@২০১৯ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত । গ্রামপোস্ট২৪.কম, জিপি টোয়েন্টিফোর মিডিয়া লিমিটেডের একটি প্রতিষ্ঠান।
Design BY MIM HOST