ঘোষনা:
শিরোনাম :
কিশোরগঞ্জে পবিত্র ঈদ-উল ফিতরের আগে সরকারী আর্থিক সহায়তা না পাওয়ার শংকায়  সুবিধাভোগীরা। নীলফামারীর কিশোরগঞ্জে ইফতার কিনতে যাওয়া হলনা শরিফুদ্দিনের । ডোমারে শিক্ষার্থীদের জন্য অভিভাবকদের মাঝে খাবার বিতরণ। যশোরের বেনাপোল কাস্টমস হাউস দেশের প্রথম ডিজিটাল কাস্টমস হাউসে উন্নীত। স্বেচ্ছাসেবক লীগের ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটির সদস্যদের স্বাস্থ্য সুরক্ষা সামগ্রী প্রদান। করোনা কালীন পরিস্থিতি ও পবিত্র মাহে রমজান উপলক্ষে দুই শতাধিক অসহায় পরিবারের মাঝে ত্রাণ বিতরণ। কিশোরগঞ্জে সিটিজেন চার্টার না থাকায় মৎস্য চাষীরা সেবা বঞ্চি। নীলফামারীতে প্রধানমন্ত্রীর শুভেচ্ছা ইফতার উপহার পেলেন অসহায় ও দরিদ্র মানুষ। নীলফামারীতে ভুল চিকিৎসায় পঙ্গু জাহিদুল, পরিবার বাঁচাতে প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনা। চট্টগ্রামে করোনায় আরো ৫ জনের মৃত্যু ।
সৈয়দপুরে আ’লীগ কাউন্সিলে মুক্তিযোদ্ধাকে মারধর উপজেলা কমান্ডের প্রতিবাদ সভা

সৈয়দপুরে আ’লীগ কাউন্সিলে মুক্তিযোদ্ধাকে মারধর উপজেলা কমান্ডের প্রতিবাদ সভা

সৈয়দপুর (নীলফামারী) প্রতিনিধি ,
নীলফামারীর সৈয়দপুরে আওয়ামী লীগের কাউন্সিলে সভাপতি প্রার্থী মুক্তিযোদ্ধাকে মারধরের ঘটনায় প্রতিবাদ সভা করেছে উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদ। শুক্রবার (৩০ আগস্ট) বিকেলে শহরের শহীদ ডা. জিকরুল হক সড়কস্থ কার্যালয়ে ওই সভা অনুষ্ঠিত হয়।
মুক্তিযোদ্ধা জিকরুল হকের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত প্রতিবাদ সভায় বক্তব্য রাখেন মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার একরামুল হক, শামসুল হক, ওয়াহেদ আলী, একেএম ফজলুল হক প্রমুখ।
বক্তারা বলেন, ২৮ আগস্ট উপজেলা আওয়ামীলীগের ২নং কাশিরাম বেলপুকুর ইউনিয়ন শাখার কাউন্সিল অনুষ্ঠিত হয়। ভোট গণনায় মোখলেছুর-নজু প্যানেল এগিয়ে ছিল। ফলাফল ঘোষণার পূর্ব মুহুর্তে সভাপতি পদপ্রার্থী মুক্তিযোদ্ধা মোখলেছুর রহমানের ওপর আকস্মিক হামলা চালায় প্রতিপক্ষের লোকজন। ওই মুক্তিযোদ্ধাসহ প্রায় ১০-১৫জন আহত হন। মুক্তিযোদ্ধা মোখলেছুর রহমানের অবস্থা গুরুতর হওয়ায় তাকে সৈয়দপুর ১০০ শয্যা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।
মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার একরামুল হক বলেন, কাশিরাম ইউনিয়নের কাউন্সিলে মুক্তিযোদ্ধা মোখলেছুর রহমান ও নজু প্যানেল প্রতিদ্বন্দ্বি প্যানেলের চেয়ে অনেক ভোটে এগিয়ে ছিলেন। কিন্তু ফলাফল ঘোষণার দুই মিনিট আগে এনামুল হক চৌধুরী, তার ছেলে বুলবুল ও তাদের সাঙ্গপাঙ্গরা পরিকল্পিতভাবে রিটার্নিং অফিসারসহ আমাদের ওপর হামলা চালায়। আমরা অবিলম্বে এটার বিচার চাই এবং ওই কাউন্সিলের স্থগিত ফলাফল ঘোষণা চাই। অন্যথায় বৃহত্তর আন্দোলনসহ মুক্তিযোদ্ধা সংসদ আগামীতে আওয়ামীলীগের কোন কার্যক্রমে অংশ নেবে না।
প্রতিবাদ সভায় উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদ ও মুক্তিযোদ্ধা সন্তান কমান্ডের সদস্যরা অংশ নেয়।





@২০১৯ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত । গ্রামপোস্ট২৪.কম, জিপি টোয়েন্টিফোর মিডিয়া লিমিটেডের একটি প্রতিষ্ঠান।
Design BY MIM HOST