ঘোষনা:
শিরোনাম :
নীলফামারীতে আন্তঃ উপজেলা ফুটবল প্রতিযোগীতার পুরস্কার বিতরণ ও আবাসিক ক্যাম্পের উদ্বোধন জলঢাকায় তথ্য আপা’র সেবা পেয়েছেন ১৮ হাজার নারী নীলফামারীতে আদালতের ১৪ বিচারক করোনায় আক্রান্ত নীলফামারীতে ট্রেনে কাটা পরে ৩ ইপিজেড শ্রমিক নিহত,আহত ৯, এলাকায় শোকের মাতম সৈয়দপুরে পৌর বর্জ্যে পাউবো’র জমি দখল চেয়ারম্যান এ্যাড. শক্তিমান চাকমা হত্যা মামলার আসামী রাঙ্গামাটি ৪ ইউনিয়নের চেয়ারম্যান গ্রেফতার নীলফামারীতে ৪৪০ টাকা ছাড়া মিলছে না টিসিবির পণ্য,ভোগান্তীতে ক্রেতারা দেশে করোনা সংক্রমণের হাড় ৩২ দশমিক ৩৭ শতাংশ বিএনপি আজ চরম দুর্দিনের ছায়ায় আচ্ছন্ন, সেতুমন্ত্রী ডিমলা উপজেলার সবচাইতে বয়স্ক ব্যক্তিটি মারা গেলেন।
মটরসাইকেলে আগুন জলঢাকায় আ.লীগের সম্মেলন ঘিরে উত্তেজনা

মটরসাইকেলে আগুন জলঢাকায় আ.লীগের সম্মেলন ঘিরে উত্তেজনা

জলঢাকা (নীলফামারী) প্রতিনিধিঃ
নীলফামারীর জলঢাকায় উপজেলা আওয়ামীলীগের সম্মেলনকে কেন্দ্র করে শুরু হয়েছে উত্তেজনা। মারমুখী অবস্থানে রয়েছে আ.লীগের দু’গ্রুপ। দীর্ঘ ১৫ বছর পর ১ সেপ্টেম্বর থেকে উপজেলাটিতে সম্মেলনের প্রস্তুতি শুরু হয়। এর ধারাবাহিকতায় রোববার উপজেলা আ.লীগের ইউনিয়ন কমিটি গঠনের তৎপরতা লক্ষ্য করা গেছে। এ নিয়ে দু’গ্রুপের মধ্যে উত্তেজনা বিরাজ করে ও মোটরসাইকেল পুড়িয়ে দেওয়ার ঘটনা ঘটে। রোববার বিভিন্ন বাধা উপেক্ষা করে গোলমুন্ডা ও বালাগ্রাম ইউনিয়নের সম্মেলন সমাপ্ত করেন উপজেলা আ.লীগ। এ দিকে সকালে গোলমুন্ডা ইউনিয়নে সম্মেলন করতে গেলে ওই ইউনিয়নের তৃণমূল নেতাকর্মীদের তোপের মুখে পরেন উপজেলা আ.লীগের নেতৃবৃন্দ। এসময় তৃণমূল নেতাকর্মীদের সাথে বাকবিতন্ডায় জড়িয়ে পরেন তারা। এক পর্যায়ে দুগ্রুপের নেতা কর্মীদের মাঝে হাতাহাতির ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় ইউনিয়ন আ.লীগ সভাপতি নুরুজ্জামান আবুর ব্যবহৃত মোটরসাইকেলটি আগুন দিয়ে পুড়িয়ে দেওয়া হয়। পরে স্থানীয় তৃণমূল নেতাকর্মীদের বাধার মুখে বিকল্প পথ দিয়ে সম্মেলন স্থলে যান উপজেলা আওয়ামীলীগের নেতৃবৃন্দরা। গোলমুন্ডা ইউনিয়ন আ.লীগ সভাপতি নুরুজ্জামান আবু উপজেলা আ.লীগের সভাপতি আনছার আলী মিন্টু ও সাধারন সম্পাদক সহীদ হোসেন রুবেলের বিরুদ্ধে বিভিন্ন অনিয়মের অভিযোগ তুলে ধরে বলেন,‘‘দীঘদিন থেকে আমি ইউনিয়নটিতে আ.লীগের নেতৃত্বে জামায়াত অর্ধ্যষিত এলাকাটিতে অনেক প্রতিকুল অবস্থায় সংঘঠনের কার্যক্রম চালিয়ে আসছি। কিন্তু উপজেলা আ.লীগের সভাপতি-সম্পাদক দলীয় গঠনতন্ত্র উপেক্ষা করে নিজেদের পদ পদবী রক্ষার জন্য প্রতিটি ইউনিয়নে পকেট কমিটির মাধ্যমে আ.লীগকে বিভক্ত করার চেষ্টা চালাচ্ছে। তিনি আরও বলেন,আমাদের গোলমুন্ডা ইউনিয়নে সদস্য সংগ্রহ অভিযান ছাড়াই আমাদেরকে কোনও প্রকার অবগত না করে ওয়ার্ড কমিটি গঠন করে এবং সেই পকেট কমিটি দিয়ে আজ ইউনিয়ন কমিটি দিচ্ছে। তাই আমরা এর প্রতিবাদ করায় আমার ব্যবহৃত মোটরসাইকেলটি তারা পুড়িয়ে দেয় এবং আমার নেতাকর্মীদের মারধর করে।’’ অপর দিকে বালাগ্রাম ইউনিয়ন আ.লীগের সভাপতি আহম্মেদ হোসেন ভেন্ডার বলেন,‘‘উপজেলা আ.লীগের সভাপতি-সম্পাদক তাদের নিজেদের পদ পদবী ধরে রাখার জন্য পকেট কমিটির মাধ্যমে সম্মেলন করছে। অথচ আমি বালাগ্রাম ইউনিয়নের সভাপতি হয়েও সম্মেলনের বিষয়ে আমাকে কিছু বলা হয়নি।’’ এ বিষয়ে উপজেলা আ.লীগের সাধারন সম্পাদক সহীদ হোসেন রুবেল বলেন,‘ গঠনতন্ত্র অনুযায়ী উপজেলা সম্মেলনকে সামনে নিয়ে আজ দু’টি ইউনিয়নে সম্মেলন সমাপ্ত হয়েছে। গোলমুন্ডা ইউনিয়নের ঘটনার বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি বলেন,সম্মেলন স্থলে যাওয়ার পথে নৌকা বিরোধী ও জামায়াত শিবিরের কিছু লোকজন আমাদের পথ রোধ করে। পরে পুলিশ প্রশাসন ঘটনাস্থলে এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রন করে।’’





@২০১৯ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত । গ্রামপোস্ট২৪.কম, জিপি টোয়েন্টিফোর মিডিয়া লিমিটেডের একটি প্রতিষ্ঠান।
Design BY MIM HOST