ঘোষনা:
শিরোনাম :
ডোমারে সন্ত্রাসী হামলার স্বীকার প্রতিবন্ধী পরিবার, মামলা তুলে নেওয়ার হুমকী প্রদান নীলফামারীতে জাতীয় দক্ষতামান বেসিক ট্রেড কোর্সকে কারিগরি শিক্ষাবোর্ডে চলমান রাখার দাবীতে মানববন্ধন। নীলফামারীতে দূর্গা পুজা মন্ডপ পরিদর্শন করেছেন রংপুর বিভাগীয় কমিশনার। ব্রাক্ষ্মণবাড়িয়ার নবীনগে দেশের অন্যতম মূর্তি তৈরী ও বিকিকিনি নীলফামারী সার্কেল অফিস এবং পুলিশ সুপার কার্যালয় পরিদর্শন নীলফামারী কমিটির পক্ষে পুরস্কার গ্রহণ করেন জেলা প্রশাসক খাগড়াছড়িতে ৬ষ্ঠ শ্রেনীর ছাত্রী ধর্ষনের অভিযোগে ২ যুবক আটক নীলফামারীতে পুলিশ সুপারের সাথে হিন্দু ধর্মালম্বীদের মতবিনিময় নীলফামারীতে সামাজিক-সম্প্রীতি সমাবেশ হয়েছে। ডিমলায় কৃষক সমাবেশ ও আলোচনা সভা
দীর্ঘ ২৫ বছর পর সিনেমায় গান গাইলেন খ্যাতিমান কণ্ঠশিল্পী দিলরুবা খান।

দীর্ঘ ২৫ বছর পর সিনেমায় গান গাইলেন খ্যাতিমান কণ্ঠশিল্পী দিলরুবা খান।

বিনোদন ডেস্ক ,
দীর্ঘ ২৫ বছর পর সিনেমায় গান গাইলেন খ্যাতিমান কণ্ঠশিল্পী দিলরুবা খান।
‘দেখা আরিচা ঘাটে, শাহজালাল ফেরীতে, রংপুরিয়া এক ছোকরা বন্ধুর সাথে’ কিংবা ‘পাগল মন, মন রে মন কেন এত কথা বলে’ শ্রোতাপ্রিয় এই গানগুলোর কথা বললেই মনে আসে খ্যাতিমান কণ্ঠশিল্পী দিলরুবা খানের কথা। নব্বই দশকের শুরুর দিকে ‘দেখা আরিচা ঘাটে’ গানটি দিয়েই শ্রোতাদের মন জয় করে নেন দিলরুবা খান। এরপর ‘পাগল মন’ তাকে এনে দেয় সার্বজনীন জনপ্রিয়তা। এরই মধ্যে সংগীত জীবনের তিন দশক পার করেছেন গুণী এই শিল্পী। নতুন খবর হলো দীর্ঘ ২৫ বছর পরে সিনেমার গানে ফিরলেন দিলরুবা খান। গেল ৩ সেপ্টেম্বর সরকারি অনুদানের শিশুতোষ ছবি ‘পায়রার চিঠি’তে ‘জান রে’ শিরোনামের একটি গান গেয়েছেন তিনি। ফোক ধাঁচের এই গানটি লিখেছেন ও সুর করেছেন সিনেমাটির পরিচালক নিশীথ সূর্য্য। গানটির সংগীতায়োজন করেছেন মুশফিক লিটু।
অনেক দিন পরে সিনেমার গান গাওয়া প্রসঙ্গে দিলরুবা খান বলেন, ‘২৫ বছর পর সিনেমার গানে কণ্ঠ দিলাম। ২৫ বছর কেউ গান গাইতে ডাকেনি বলেই গাওয়া হয়নি। শেষ কোন ছবির জন্য গেয়েছিলাম তাও মনে নেই। এই গানটি গেয়ে ভালো লাগছে। কথা ও সুর দারুণ। এখন থেকে নিয়মিত গাইতে চাই।’
দিলরুবা খান আরও বলেন, ‘আমি নিয়মিত গান গেয়ে যাচ্ছি। সিনেমাতে আমাকে গাইতেই হবে সেটাও ঠিক না। আমি গান গাই এটাই আমার পরিচয়। আমি আনন্দিত আমি একজন কণ্ঠশিল্পী।’





@২০১৯ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত । গ্রামপোস্ট২৪.কম, জিপি টোয়েন্টিফোর মিডিয়া লিমিটেডের একটি প্রতিষ্ঠান।
Design BY MIM HOST