ঘোষনা:
শিরোনাম :
সত্য বলার সৎ সাহসেই গঠিত হবে স্মার্ট বাংলাদেশ: অ্যাড. মমতাজুল শঙ্কামুক্ত নন অভিনেত্রী শারমিন আওয়ামী লীগ শাসনামলে দেশের ব্যাপক উন্নয়ন বিবেচনায় নিতে দেশবাসীর প্রতি আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর নীলফামারী বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ে শিক্ষার্থীদের ক্লাস প্রমোশন না দেয়ার প্রতিবাদে মানববন্ধন নীলফামারীতে সড়ক দূর্ঘটনায় আহত ৮ জন নীলফামারীতে পুলিশ সার্ভিস এসোসিয়েশনের শীতবস্ত্র বিতরণ কিশোরগঞ্জে বিদায়ী মাঘে শীতের হানা কিশোরগঞ্জে অপহরণের দায়ে পেশ ইমাম আটক-ছাত্রী উদ্ধার বিপদে পুলিশকে পাশে পেয়ে মানুষ যেন স্বস্তি বোধ করে তা নিশ্চিত করতে হবে : প্রধানমন্ত্রী উন্নয়নের বদলে শেখ হাসিনাকে ভোট উপহার দিন: চাঁপাইনবাবগঞ্জে নানক
স্কুলের দপ্তরির বিরুদ্ধে তৃতীয় শ্রেণির মাদ্রাসা শিক্ষার্থীকে ধর্ষণের অভিযোগ।

স্কুলের দপ্তরির বিরুদ্ধে তৃতীয় শ্রেণির মাদ্রাসা শিক্ষার্থীকে ধর্ষণের অভিযোগ।

বগুড়া প্রতিবেদক,
স্কুলের দপ্তরির বিরুদ্ধে তৃতীয় শ্রেণির এক মাদ্রাসা শিক্ষার্থীকে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে। শনিবার দুপুরে এই ঘটনা ঘটে।
বগুড়ার নন্দীগ্রাম উপজেলায় মিষ্টি খাওয়ানোর কথা বলে তৃতীয় শ্রেণির এক মাদ্রাসা শিক্ষার্থীকে (১০) ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে। এই ঘটনায় ওই ফাজিল মাদ্রাসার দপ্তরিকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।
গ্রেপ্তার ব্যক্তির নাম আলমগীর হোসেন (৪৫)। সংশ্লিষ্ট শিশুর বাবা তাঁর বিরুদ্ধে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা করেছেন। ঘটনার সময় স্থানীয়রা তাঁকে আটক করে পুলিশে সোপর্দ করেছিল।

পুলিশ ও এলাকাবাসী সূত্রে জানা গেছে, আলমগীর ওই শিশু শিক্ষার্থীকে নাতনি ডাকতেন। আজ ক্লাস শেষে সে আলমগীরের বাড়ির পাশ দিয়ে নিজ বাড়ি ফিরছিল। এ সময় আলমগীর তাকে মিষ্টি খাওয়ানোর কথা বলে নিজ ঘরে ডেকে নেন। তখন বাড়িতে তাঁর স্ত্রী-সন্তান ছিল না। আলমগীর ওই শিশুকে নিজ ঘরে ধর্ষণ করে। এ সময় শিশুটির চিৎকারে আশপাশের লোকজন এগিয়ে আসে। তারা শিশুটির মুখে ঘটনার বিবরণ শুনে আলমগীরকে পিটুনি দিয়ে পুলিশে খবর দেয়। নন্দীগ্রাম থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শওকত কবির বলেন, শিশুটির বাবা আলমগীরের বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগে মামলা করেছে। আগামীকাল রোববার তাঁকে আদালতে পাঠানো হবে। শিশুটির স্বাস্থ্য পরীক্ষা হবে শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে। এদিকে ঘটনার বিচার চেয়ে আগামীকাল প্রতিবাদ কর্মসূচি পালনের ঘোষণা দিয়েছে ওই মাদ্রাসার শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা। ওই মাদ্রাসার ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ বলেন, একজন দুশ্চরিত্র কর্মচারীর লালসার শিকার হয়েছে শিশু শিক্ষার্থী। তাঁর কারণে গোটা মাদ্রাসার ভাবমূর্তি ও সুনাম প্রশ্নবিদ্ধ হয়েছে। এ কারণে তাঁর দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবিতে শিক্ষার্থীরা মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশ ডেকেছে। শিক্ষার্থীদের এই কর্মসূচির সঙ্গে শিক্ষকেরা একাত্মতা ঘোষণা করেছেন।





@২০১৯ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত । গ্রামপোস্ট২৪.কম, জিপি টোয়েন্টিফোর মিডিয়া লিমিটেডের একটি প্রতিষ্ঠান।
Design BY MIM HOST