ঘোষনা:
শিরোনাম :
কিশোরগঞ্জে পবিত্র ঈদ-উল ফিতরের আগে সরকারী আর্থিক সহায়তা না পাওয়ার শংকায়  সুবিধাভোগীরা। নীলফামারীর কিশোরগঞ্জে ইফতার কিনতে যাওয়া হলনা শরিফুদ্দিনের । ডোমারে শিক্ষার্থীদের জন্য অভিভাবকদের মাঝে খাবার বিতরণ। যশোরের বেনাপোল কাস্টমস হাউস দেশের প্রথম ডিজিটাল কাস্টমস হাউসে উন্নীত। স্বেচ্ছাসেবক লীগের ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটির সদস্যদের স্বাস্থ্য সুরক্ষা সামগ্রী প্রদান। করোনা কালীন পরিস্থিতি ও পবিত্র মাহে রমজান উপলক্ষে দুই শতাধিক অসহায় পরিবারের মাঝে ত্রাণ বিতরণ। কিশোরগঞ্জে সিটিজেন চার্টার না থাকায় মৎস্য চাষীরা সেবা বঞ্চি। নীলফামারীতে প্রধানমন্ত্রীর শুভেচ্ছা ইফতার উপহার পেলেন অসহায় ও দরিদ্র মানুষ। নীলফামারীতে ভুল চিকিৎসায় পঙ্গু জাহিদুল, পরিবার বাঁচাতে প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনা। চট্টগ্রামে করোনায় আরো ৫ জনের মৃত্যু ।
আমরা কোনো ক্যাসিনোর অনুমোদন দিইনি,আবেদন করলে অনুমোদন দেয়া হবে,স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান ।

আমরা কোনো ক্যাসিনোর অনুমোদন দিইনি,আবেদন করলে অনুমোদন দেয়া হবে,স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান ।

ঢাকা প্রতিবেদক ,
আমরা কোনো ক্যাসিনোর অনুমোদন দিইনি,আবেদন করলে অনুমোদন দেয়া হবে,স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান । যারা এ ব্যবসা করছেন তারা অবৈধভাবে ব্যবসা বসিয়েছিলেন। তিনি বলেন, যদি কেউ ক্যাসিনোর ব্যবসা করতে চান, তাহলে তারা আবেদন করবেন, যদি সম্ভব হয় তাদের অনুমোদন দেয়া হবে। আমরা বারের অনুমোদন দিচ্ছি। তবে যাচাই-বাছাই করে সেসব অনুমোদন দেয়া হচ্ছে।

বৃহস্পতিবার (১৯ সেপ্টেম্বর) জাতীয় প্রেস ক্লাবে ‘নারীর ক্ষমতায়নে শেখ হাসিনা’ শীর্ষক এক সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী এসব কথা বলেন।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন নৌপরিবহন প্রতিমন্ত্রী খালিদ মাহমুদ চৌধুরী। এ ছাড়া অন্যদের মধ্যে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক উপাচার্য আ আ ম স আরেফিন সিদ্দিক ও সাবেক বিচারপতি সামসুদ্দিন চৌধুরী মানিক উপস্থিত ছিলেন।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী সবসময় অন্যায়ের প্রতিবাদকারী। যারা অন্যায় করেন প্রধানমন্ত্রী সর্বদা তাদের বিরুদ্ধে কথা বলেন ও দমন করার পরামর্শ দেন। তিনি কাউকে ছাড় দেন না, অন্যায় করলে তাকে আইনের মুখোমুখি হতে হবে, সে যেই হোক, তার বিরুদ্ধে আমরা ব্যবস্থা নেব।’

অনেক আগে থেকেই ঢাকায় অনেকে লুকিয়ে ক্যাসিনোর ব্যবসা করে আসছিলেন জানিয়ে আসাদুজ্জামান খান বলেন, ‘সে সময় এমন দু-তিনটি অবৈধ প্রতিষ্ঠান গুঁড়িয়ে দেয়া হয়। এরপর আবারো এ বিষয়ে গোয়েন্দা সংস্থার তথ্য পাওয়ার পর নতুন করে অভিযান চালিয়ে সেগুলো বন্ধ করে দেয়া হয়েছে।’

তিনি বলেন, ‘যদি কেউ বৈধভাবে ক্যাসিনোর ব্যবসা করতে চান তবে আমাদের কাছে আবেদন করুক, আমরা যাচাই-বাছাই করে অনুমোদন দেব। বর্তমানে আমরা বারের লাইসেন্স দিচ্ছি, তারা বৈধভাবে ব্যবসা করছে। তেমনিভাবে আমরা ক্যাসিনোর অনুমোদন দিতে রাজি আছি। তবে কেউ যদি অনুমোদন ছাড়া এ ধরনের ব্যবসা করে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে।’

বিশেষ অতিথি প্রতিমন্ত্রী খালিদ মাহমুদ বলেন, ‘একসময় নারীদের প্রধান স্থান ছিল রান্নাঘর। সেখান থেকে বেরিয়ে আজ নারীরা সব স্থানে পুরুষদের সঙ্গে প্রতিযোগিতা করছে। অধিকাংশ ক্ষেত্রে নারীরাই এগিয়ে রয়েছে। বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার জন্য তা সম্ভব হয়েছে। এ কারণে দেশ-বিদেশে প্রধানমন্ত্রী প্রশংসিত হচ্ছেন।‘

আ আ স ম আরেফিন বলেন, ‘নারী উন্নয়নের মূলমন্ত্র হচ্ছে শিক্ষা, সে সুযোগ নিশ্চিত হওয়ায় নারীরা আজ অনেক এগিয়ে গেছে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এ বিষয়ে অধিক গুরুত্ব দিয়েছেন বলে আজ নারীরা অনেক এগিয়ে গেছেন।’





@২০১৯ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত । গ্রামপোস্ট২৪.কম, জিপি টোয়েন্টিফোর মিডিয়া লিমিটেডের একটি প্রতিষ্ঠান।
Design BY MIM HOST