ঘোষনা:
শিরোনাম :
শঙ্কামুক্ত নন অভিনেত্রী শারমিন আওয়ামী লীগ শাসনামলে দেশের ব্যাপক উন্নয়ন বিবেচনায় নিতে দেশবাসীর প্রতি আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর নীলফামারী বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ে শিক্ষার্থীদের ক্লাস প্রমোশন না দেয়ার প্রতিবাদে মানববন্ধন নীলফামারীতে সড়ক দূর্ঘটনায় আহত ৮ জন নীলফামারীতে পুলিশ সার্ভিস এসোসিয়েশনের শীতবস্ত্র বিতরণ কিশোরগঞ্জে বিদায়ী মাঘে শীতের হানা কিশোরগঞ্জে অপহরণের দায়ে পেশ ইমাম আটক-ছাত্রী উদ্ধার বিপদে পুলিশকে পাশে পেয়ে মানুষ যেন স্বস্তি বোধ করে তা নিশ্চিত করতে হবে : প্রধানমন্ত্রী উন্নয়নের বদলে শেখ হাসিনাকে ভোট উপহার দিন: চাঁপাইনবাবগঞ্জে নানক বিএনপির বক্তব্যে মনে হয় আওয়ামী লীগকে রাজপথে দেখে তারা ভীত : তথ্যমন্ত্রী
বিদ্যা বালান বলেন, যতদিন তিনি বেঁচে থাকবেন, ততদিন তার ক্যারিয়ার উত্তরোত্তর সমৃদ্ধ হবে।

বিদ্যা বালান বলেন, যতদিন তিনি বেঁচে থাকবেন, ততদিন তার ক্যারিয়ার উত্তরোত্তর সমৃদ্ধ হবে।

বিনোদন ডেস্ক ,
নিজের অভিনয় প্রতিভা দিয়ে বলিউডে পাকাপোক্ত আসন গেড়ে আছেন বিদ্যা বালান। অভিনয় সাফল্যে আত্মবিশ্বাসী বিদ্যা বিশ্বাস করেন, যতদিন তিনি বেঁচে থাকবেন, ততদিন তার ক্যারিয়ার উত্তরোত্তর সমৃদ্ধ হবে।

সম্প্রতি জগন শক্তি পরিচালিত ‘মিশন মঙ্গল’ সিনেমায় অনবদ্য অভিনয় করে প্রশংসিত হয়েছেন তিনি। সিনেমাটি প্রথম সপ্তাহেই ১০০ কোটি রুপির বেশি আয় করে। ভারতের ঐতিহাসিক মঙ্গল অভিযানকে মানুষ দ্বিতীয়বার প্রত্যক্ষ করেছে অক্ষয় কুমার, বিদ্যা বালান, তাপসী পান্নু, সোনাক্ষী সিনহা, নিত্যা মেনন, কীর্তি কুলহরি ও শারমন জোশীর চোখ দিয়ে। সিনেমায় সবাইকে ছাপিয়ে উজ্জ্বল হয়ে উঠেছেন বিদ্যা বালান।

বিদ্যার ক্যারিয়ার এখন বেশ গুরুত্বপূর্ণ বাঁকে পৌঁছেছে। একের পর এক প্রভাবশালী চরিত্রে অভিনয়ের প্রস্তাব পাচ্ছেন তিনি। ‘মিশন মঙ্গল’র পর তিনি ‘মানব কম্পিউটার’খ্যাত গণিতজ্ঞ শকুন্তলা দেবীর বায়োপিকে অভিনয় শুরু করেছেন চলতি সেপ্টেম্বর মাসেই। জানা গেছে, ভারতের প্রয়াত প্রধানমন্ত্রী ইন্দিরা গান্ধীর চরিত্রে রিতেশ বাত্রার ওয়েব সিরিজে অভিনয় করবেন তিনি।

‘মিশন মঙ্গল’ সিনেমায় বিদ্যার সহ-অভিনেত্রী তাপসী পান্নু বিদ্যাকে তার অনুপ্রেরণা হিসেবে বিবেচনা করেন। এ প্রসঙ্গে বিদ্যা একটি সংবাদমাধ্যমকে বলেন, তিনি বাড়িয়ে বলেছেন। তবে মানুষ যখন স্বীকৃতি দেয়, তখন কিন্তু ভালই লাগে। আমি সঠিক সময়ে সঠিক জায়গাতে ছিলাম। ফলে আমি পরিবর্তনের প্রতিমুখ হয়ে উঠি। আমার সৌভাগ্যকে ধন্যবাদ জানাই। আমার মা-বাবাকেও এজন্য ধন্যবাদ। তারা আমার মধ্যে আত্মবিশ্বাস গড়ে দিয়েছেন।

‘আমি ২৬ বছর বয়সে ইন্ডাস্ট্রিতে প্রবেশ করি। সাধারণত এরকম বয়সে অভিনেত্রীদের বিদায়ের জন্য তল্পিতল্পা গোছানো শুরু করতে হয়। তারা বিয়ে করে সংসারী হয়ে যায়। ধারণা করা হতো, আমার ক্যারিয়ার খুব সংক্ষিপ্ত হবে। কিন্তু আমি চেয়েছিলাম, জীবনের বাকিটা সময় অভিনয় চালিয়ে যাব। আজ আমার বয়স ৪০। ১৪ বছর পার হয়ে গেল। ভালোভাবেই এগোচ্ছি। আমি বিশ্বাস করি, আমি যতদিন বেঁচে আছি ততদিনই আমার ক্যারিয়ার টিকে থাকবে। সব সময়েই আমার জন্য উপযুক্ত চরিত্র থাকবে। যতদিন আমি চাইব, ততদিন,’ যোগ করেন তিনি।





@২০১৯ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত । গ্রামপোস্ট২৪.কম, জিপি টোয়েন্টিফোর মিডিয়া লিমিটেডের একটি প্রতিষ্ঠান।
Design BY MIM HOST