ঘোষনা:
শিরোনাম :
কিশোরগঞ্জে কালবৈশাখী ঝড়ে লন্ডভন্ড কয়েকটি গ্রাম সাতক্ষীরায় শিশু ধর্ষন চেষ্টার অভিযোগ, অভিযুক্ত দুই শিশুসহ এক মা আটক অস্তিত্ব রক্ষা করতে হলে বিএনপিকে নির্বাচনে যেতে হবে,তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রী কিশোরগঞ্জে ১ দোকান আগুনে পুড়ে ছাই মুন্সীগঞ্জে সয়াবিন তেল জব্দ তিনটি দোকানে ৬০ হাজার টাকা জরিমানা এশিয়া কাপ আর্চারির স্টেজ টুয়ের ফাইনালে বাংলাদেশের ৪টা রুপা ও ৪টা ব্রোঞ্জপদক ব্যর্থতার দায়ে মির্জা ফখরুলসহ বিএনপি’র টপ টু বটম নেতাদের পদত্যাগ করা উচিত;সেতু মন্ত্রী ডোমারে ইউপি চেয়ারম্যানদের সন্মননা স্মারক প্রদান নীলফামারীতে সম্পত্তির লোভে ধারালো অস্ত্র দিয়ে গৃহবধুকে গুরুতর জখম, থানায় এজাহার কিশোরগঞ্জে গোডাউনে সয়াবিন তেল মজুদ
নীলফামারীর ডোমার সামাজসেবা কার্যালয়ে প্রতিবন্ধী নয় ,শিক্ষা প্রতিবন্ধীর ভাতা উত্তোলন ।

নীলফামারীর ডোমার সামাজসেবা কার্যালয়ে প্রতিবন্ধী নয় ,শিক্ষা প্রতিবন্ধীর ভাতা উত্তোলন ।

নূর সিদ্দিকী বিশেষ প্রতিবেদক ,
নীলফামারীর ডোমার সামাজসেবা কার্যালয়ের শিক্ষা প্রতিবন্ধী ভাতা ,প্রতিবন্ধী না হয়েও ভাতা উত্তোলনের অভিযোগ উঠেছে।জানা যায় আটিয়াবাড়ী উচ্চ বিদ্যালয় ও আটিয়াবাড়ী সরকারী প্রাঃবিদ্যালয়সহ ডোমার উপজেলায় প্রতিবন্ধী না হয়েও বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে শিক্ষা প্রতিবন্ধী ভাতা উত্তোলন করেছে ৮২ জন।এরা সকলে ইউনিয়ন সমাজ সেবা কর্মী জাহিদ হোসেন,সমাজ সেবা ফিল্ড সুপারভাইজার আবু হোসেনসহ হরিণচড়া ইউনিয়নের ৫ নং ওয়ার্ডের সদস্য আব্দুল ওয়াহেদের যোগসাজসে ভুয়া স্কুলের প্রতিবন্ধী প্রত্যায়ন নিয়ে সমাজসেবা অধিদপ্তর থেকে ভাতার টাকা উত্তোলন করেছে।অনিয়মের মাধ্যমে ১ম শ্রেণী হতে ৫ম শ্রেণী ও ৬ষ্ঠ থেকে অনার্স পর্যন্ত প্রতিবন্ধী না হয়েও প্রতিবন্ধী ভাতার টাকা তুলেছে।এবং কিছু টাকা ওই ছাত্র/ছাত্রীর অভিভাবককে দিয়ে সমুদয় টাকা আত্মসাৎ করেছে ইউপি সদস্য ও সমাজ সেবা অফিসের দুই জন কর্মকর্তা। আটিয়াবাড়ী উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রতিবন্ধী না হয়েও শিক্ষা প্রতিবন্ধী ভাতা উত্তোলন করেছে বেশ কয়েকজন ছাত্র-ছাত্রী তারা হলেন,ইউপি সদস্য ওয়াহেদের ছেলে শাহরিয়ার শাহাদাত বিশাল ক শাখা,মিতু মনি রোল ২ ক শাখার ছাত্রী,ইশরাত জাহান জুথি,রোল ৩,খ-শাখা,সকলে ৭ম শ্রেণীতে পড়ে।এরা ছাড়াও আরও এই এলাকার ১৫ জন শিক্ষার্থী প্রতিবন্ধী না হয়েও টাকা উত্তোলন করেছে।আবার আটিয়াবাড়ী উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রকৃত প্রতিবন্ধী অনুকুল চন্দ্র রায় ৭ম শ্রেণীতে পড়ে শিক্ষা প্রতিবন্ধী ভাতা পায়নি। ডোমার উপজেলায় ৩২৫ জন শিক্ষা প্রতিবন্ধী ভাতা পেয়েছেন।প্রত্যেক ১০/১২ হাজার টাকা উত্তোলন করে।ওই চক্রটি ৩ থেকে ৫ হাজার টাকা নিয়েছে। আটিয়াবাড়ী উচ্চ বিদ্যালয়ের ছাত্র ও ইউপি সদস্য ওয়াহেদের ছেলে শাহরিয়ার শাহাদাত বিশাল বলেন,বাবা ও অফিসের কাকুরা সব করছে আমরা শুধু ব্যাংকে গিয়া টাকা তুলছি।পরে অনেককে ৭/৮ হাজার টাকা দিয়েছে।আমরা স্কুল থেকে অটোভ্যানে করে ডোমার গিয়ে টাকা তুলেছি।বিশালকে বলা হয়েছে তুমি ভাল ছেলে কিভাবে প্রতিবন্ধীর টাকা পেয়েছো।উত্তরে বিশাল বলেছে বাবা আমাদের সকলের সবকিছু ঠিক করছে,আমরা কিছু জানিনা।ইউপি সদস্যর বাড়ীর আশপাশে বেশ কয়েকজন ছাত্র/ছাত্রী ভাতা পেয়েছেন কেউ প্রতিবন্ধী নয় অথচ ভাতার টাকা উত্তোলন করেছে। এ বিষয়ে আটিয়াবাড়ী উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মোঃ হায়াতুল আলম বলেন,এদের আমি কোন প্রতিবন্ধীর প্রত্যায়ন দেই নাই। তারা কিভাবে পেয়েছে আমি জানিনা।

এ বিষয়ে হরিণচড়া ইউপি সদস্য আব্দুল ওয়াহেদকে ফোন দিলে তিনি ফোন তুলেননি।ডোমার সমাজসেবা অফিসে গিয়ে কাউকে পাওয়া যায়নি।এবং ফোন দিলে ফোনও তুলেননি।এ বিষয়ে জেলা সমাজসেবা কার্যালয়ের উপ-পরিচালক মোঃ ইমাম হাসিম বলেন,বিষয়টি গুরুত্বের সহিদ তদন্ত করে জরিতদের বিরুদ্ধে ব্যাবস্থা নেওয়া হবে।





@২০১৯ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত । গ্রামপোস্ট২৪.কম, জিপি টোয়েন্টিফোর মিডিয়া লিমিটেডের একটি প্রতিষ্ঠান।
Design BY MIM HOST