ঘোষনা:
শিরোনাম :
নারায়ণগঞ্জ আমলাপাড়ার প্রেসিডেন্ট রোড এলাকায় গ্যাস লাইন লিকেজ বিস্ফোরণে ২ নৈশ প্রহরী দগ্ধ। গোপালগঞ্জে করোনায় গৃহবধুর মৃত্যু । বিতর্কিত ‘শিশু’ বক্তা রফিকুল ইসলাম মাদানীর নামে আরও একটি মামলা । ঢাকা সিলেট মহাসড়কে ট্রাকের ধাক্কায় মটর সাইকের আরোহী পুলিশের এস আই নিহত। ডোমার উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তার বিদায়, বরণ সংবর্ধনা । রিসোর্টে নারীকে নিয়ে, মামুনুলের ব্যক্তিগত বিষয়, এ নিয়ে হেফাজতের বক্তব্য নেই। নীলফামারী সৈয়দপুরে বৈশাখ আর ঈদের কেনাকাটায় ব্যাস্ত মানুষ। রাষ্ট্রপতির শোক বার্তা দিয়েছেন একুশে পদকপ্রাপ্ত রবীন্দ্রসংগীত শিল্পীর মৃত্যুতে। সাতক্ষীরায় ঘাতক সাগর গ্রেপ্তার, ‘২০০ টাকার জন্য বন্ধুকে খুন ’ ঘাতকের স্বীকারোক্তি। সীতাকুণ্ডে পুকুর থেকে যুবকের মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ।স্ত্রীকে আটক।

‘এ ধরনের অপরাজনীতি চাই না’

 

রাবি প্রতিনিধি ,
‘ছাত্র রাজনীতি চলতে পারে। কিন্তু এ ধরনের অপকর্ম না ঘটুক। আবরার হত্যাকান্ডের ঘটনায় রাজনীতির দোষ না। রাজনীতির নাম দিয়ে এ ঘটনা ঘটেছে। এ ধরনের অপরাজনীতি চাই না। এদেশের ইতিহাসে ছাত্রসমাজের উজ্জ্বল ভূমিকা আমরা জানি। তাদেরকে পড়াশোনা করতে হবে। তারা নিজের স্বার্থে রাজনীতি করবে। রাজনীতির নামে লেজুড়বৃত্তি করবে না।’
সম্প্রতি আবরার ফাহাদ হত্যার ঘটনায় ছাত্র রাজনীতি বন্ধের প্রশ্নে এমন মন্তব্য করেছে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) দুর্নীতিবিরোধী শিক্ষকসমাজ। এদিকে, দুর্নীতিবাজ অ্যাখ্যা দিয়ে রাবি প্রশাসনের অপসারণ দাবি করেছে জাতীয়তাবাদী শিক্ষক ফোরাম। বৃহস্পতিবার বিশ্ববিদ্যালয়ের শহীদ তাজউদ্দিন আহমেদ সিনেট ভবনের সামনে পৃথক পৃথক কর্মসূচিতে এসব মন্তব্য করেন তারা।
জাতীয়তাবাদী শিক্ষক ফোরামের সহ-সভাপতি মামুনুর রশীদের সঞ্চালনায় মানববন্ধনে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতির সাবেক সভাপতি আমজাদ হোসেন বলেন, ‘দুর্নীতি সরকারের সব সেক্টরে। একটা বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসির ছেলে জামাইয়ের সাথে টাকা ভাগাভাগি করে এটা ভাবা যায়। আবার সে ভিসি তার নিজ পদে এখনও বর্তমান। সরকার তার ব্যাপারে এখনও কোন পদক্ষেপ নেয় নি। আবার প্রো-ভিসি তার শিক্ষার্থীর কাছে চাকরী দেয়ার নামে টাকা চায়।এর চেয়ে লজ্জাজনক কাজ পৃথীবিতে আছে কিনা আমার জানা নেই।’
রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতির সভাপতি সাইফুল ইসলাম ফারুকী বলেন, আজকে মানুষের মত প্রকাশের অধিকার নেই। আর যদি থাকত আবরার কে এভাবে নৃশংসভাবে হত্যা করা হত না। সরকারের ক্ষমতাকে কাজে লাগিয়ে সরকারের সন্ত্রাসী সংগঠন ছাত্রলীগ কী না করছে। প্রত্যেক ক্যাম্পাসে ছাত্রলীগ সাধারণ শিক্ষার্থীর কাছে ভয়ের ত্রাস। ক্যাম্পাসে ছাত্রলীগের সিট বাণিজ্য, টেন্ডারবাজি, চাঁদাবাজি, লুটপাট লেগেই আছে। আর এটার মদদ দিচ্ছে সরকার দলীয় বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন।
এছাড়া আবরার হত্যার বিচার, অপরাজনীতি, দুর্নীতি ও সন্ত্রাসমুক্ত শিক্ষাঙ্গন চেয়ে গণস্বাক্ষর কর্মসূচি, লাল কার্ড প্রদর্শন, মৌন মিছিল ও শোক র‌্যালি করেছে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক-শিক্ষার্থী ও বিভিন্ন সংগঠন।
সকাল ১০ টা থেকে কেন্দ্রীয় গ্রন্থাগারের সামনে শিক্ষার্থীরা গণস্বাক্ষর কর্মসূচির আয়োজন করে। এদিকে আবরারের স্মরণে শোক র‌্যালি করেছে বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা। পরে এক সংক্ষিপ্ত সমাবেশ থেকে আবরার হত্যার সুষ্ঠু বিচার দাবি করা হয়।
এদিন বেলা ১২ টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের শহীদ সৈয়দ নজরুল ইসলাম প্রশাসন ভবনের সামনে শিক্ষাঙ্গনে দুর্নীতি ও সন্ত্রাসী কর্মকান্ডের বিরুদ্ধে লাল কার্ড প্রদর্শন কর্মসূচি পালন করে শিক্ষার্থীরা। #





@২০১৯ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত । গ্রামপোস্ট২৪.কম, জিপি টোয়েন্টিফোর মিডিয়া লিমিটেডের একটি প্রতিষ্ঠান।
Design BY MIM HOST