ঘোষনা:
শিরোনাম :
পঞ্চগড়ে পুকুরের পানিতে ডুবে এক শিশুর মৃত্যু। ডিমলায় তিস্তার চরে ভুট্টার বাম্পার ফলন। সাতক্ষীরায় করোনায় আক্রান্ত ও উপসর্গ নিয়ে মেডিকেল হাসপাতালে নারীসহ দুই জনের মৃত্যু। বাংলাদেশ রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটির উপজেলা শাখা গঠনের আলোচনা সভা । নীলফামারীতে চাঁদা দিতে না পারায়,ঘরে অগ্নিসংযোগ জোড়পূর্বক মাছ চুরি। সৈয়দপুরের তিন শিক্ষার্থীর ভর্তি অনিশ্চিত মেডিকেল কলেজে । করোনা আক্রান্ত জননেতা বীর মুক্তিযোদ্ধা জয়নাল আবেদীন অনেকটা সুস্থ্য বোধ করছেন। লকডাউনে ১০টা -০১ টা পর্যস্ত খোলা থাকবে ব্যাংক সেবা। চাঁদ দেখা গেছে, বুধবার থেকে পবিত্র রমজান শুরু। শঙ্কিত হওয়ার কোনো কারণ নেই, সরকার সবসময় পাশে থাকবে;প্রধানমন্ত্রী।
রাবিতে ‘বিশ্ব খাদ্য দিবস’ উপলক্ষে র‌্যালি ও ক্যাম্পেইন অনুষ্ঠিত।

রাবিতে ‘বিশ্ব খাদ্য দিবস’ উপলক্ষে র‌্যালি ও ক্যাম্পেইন অনুষ্ঠিত।

 

রাবি প্রতিনিধি,
রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে (রাবি) কনজ্যুমার ইয়ুথ বাংলাদেশের আয়োজনে ‘বিশ্ব খাদ্য দিবস’ উদযাপিত হয়েছে। দিবসটি উপলক্ষে আজ বুধবার বেলা সাড়ে বারোটায় বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় গ্রন্থাগারের সামনে থেকে র‌্যালি বের করে সংগঠনটি।‘নিরাপদ খাদ্য আমাদের অধিকার’ প্রতিপাদ্যে র‌্যালিটি ক্যাম্পাসের বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে শহীদ বুদ্ধিজীবি চত্বরে এসে সংক্ষিপ্ত সমাবেশে মিলিত হয়।সমাবেশে সদস্য দেলোয়ার হোসেনের সঞ্চালনায় কনজ্যুমার ইয়ুথ বাংলাদেশ, রাবি শাখার সাধারণ সম্পাদক নাজমুল হক বলেন, ‘প্রত্যেক নাগরিকের ভোক্তা অধিকার আছে। আমরা নিজেদের অজান্তেই অনেক সময় এ অধিকার থেকে বঞ্চিত হচ্ছি। নিজে জানা এবং অন্যকেও এ ব্যাপারে সচেতন করে তোলার লক্ষ্যে আমরা কাজ করে যাচ্ছি।’সংগঠনটির সভাপতি কাজী জহিরুল ইসলাম বলেন, ‘বর্তমানে খাদ্যের মধ্যে ভেজাল মিশ্রিত করার কারণে তা আমাদের মৃত্যুর কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে। এই প্রেক্ষাপটে দাঁড়িয়ে সারা বিশ্বেই ভোক্তা অধিকার নিয়ে বিভিন্ন্ সংগঠন কাজ করছে। আমাদের ক্যাম্পাসে ভর্তি পরীক্ষার সময় দেখা যায় বিভিন্ন দোকানে খাবারের মান নি¤œ, অথচ দাম অত্যধিক বেশি। এর ফলে ভর্তিচ্ছু পরীক্ষার্থী ও অভিভাবকদের দারুণ ভোগান্তির মধ্যে পড়তে হয়। আমরা এ বিষয়ে সচেতনতা তৈরীর জন্য ক্যাম্পেইন করব।’সমাবেশ শেষে সংগঠনের সদস্যরা ক্যাম্পাসের বিভিন্ন খাবারের দোকানে সচেতনতামূলক ক্যাম্পেইন পরিচালনা করেন। ক্যাম্পেইনে বিভিন্ন দোকানদারদের কাছে গিয়ে ভোক্তাদের অধিকারসমূহ এবং সেসব অধিকার ক্ষুণ  হলে কি পরিণতি হতে পারে সে বিষয়ে সচেতন করা হয়। আসন্ন ভর্তি পরীক্ষার সময় মূল্য তালিকা রাখা, খাবারের মান অক্ষুণ রাখা ও ন্যায্যমূল্য রাখাসহ ভোক্তা অধিকার যেন লঙ্ঘন না হয় সে বিষয়ে পরামর্শ দেওয়া হয়। এছাড়াও ভর্তি পরীক্ষার সময় ক্যাম্পাসে ভোক্তা অধিকার লঙ্ঘন হলে প্রশাসনের হস্তক্ষেপের ব্যপারে দোকানদারদের সতর্ক করে দেওয়া হয়।এ কার্যক্রমের সার্বিক সহযোগিতায় ছিল আমানা বিগ বাজার লিমিটেড।

উল্লেখ্য, ভোক্তা অধিকার নিশ্চিতকরণ ও খাদ্যে ভেজাল প্রতিরোধে কনসাস কনজ্যুমার সোসাইটি (সিসিএস) এর যুব সংগঠন হিসেবে ২৭শে অক্টোবর, ২০১৮ থেকে কনজ্যুমার ইয়ুথ বাংলাদেশ, রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় যাত্রা শুরু করে ।





@২০১৯ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত । গ্রামপোস্ট২৪.কম, জিপি টোয়েন্টিফোর মিডিয়া লিমিটেডের একটি প্রতিষ্ঠান।
Design BY MIM HOST