ঘোষনা:
শিরোনাম :
নীলফামারীতে ক্লুলেস হত্যা মামলার চার আসামী গ্রেফতার; পুলিশ সুপারের প্রেস ব্রিফিং নীলফামারীতে গর্ভবর্তী মায়েদের কমিউনিটি ক্লিনিকে সেবা নিতে স্বাস্থ্য মন্ত্রীর আহব্বান পাটগ্রামে স্বঘোষিত মুক্তিযোদ্ধা গবেষক মিঠু’র বিরুদ্ধে সংবাদ সম্মেলন লালমনিরহাটের হাতিবান্ধায় ফেন্সিডিলসহ মাদক ব্যবসায়ীকে গ্রেফতার করেছে র‍্যাব-১৩ নদীতে মাছ ধরতে গিয়ে, লাশ হয়ে ফিরতে হলো চট্টগ্রামে এইচএসসি পরীক্ষার্থীকে ধর্ষণ, আটক পিয়ন নীলফামারীতে বিরল আ’কৃতির শি’শুর জ’ন্ম, নেই হাত-পা ও মাথা পাটগ্রামে বিভিন্ন  স্থানে অভিযান, বোমা মেশিন বিনষ্ট ও জরিমানা চট্টগ্রামে মহামারী আকারে ক্ষুরা ও লাম্পি রোগে আক্রান্ত গরু চট্টগ্রামে আমন চারা তৈরিতে ব্যাস্ত সময় পার করছে কৃষক
ইরান রাশিয়াকে ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র দিয়েছে

ইরান রাশিয়াকে ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র দিয়েছে

ফাইল ছবি।

আন্তর্জাতিক ডেস্ক,

ইরান রাশিয়াকে ভূমি থেকে ভূমিতে নিক্ষেপযোগ্য কয়েকশ ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র দিয়েছে। বেশ কিছু সূত্র সংবাদমাধ্যম রয়টার্সকে এই তথ্য নিশ্চিত করেছে। সম্প্রতি মার্কিন নিষেধাজ্ঞায় থাকা দেশ দুইটির মধ্যে সম্পর্ক গভীর হয়েছে।

ইরানের তিনটি সূত্র জানিয়েছে, রাশিয়ার কাছে সরবরাহ করা ক্ষেপণাস্ত্রের মধ্যে অধিকাংশই ফাত্তাহ-১১০ সিরিজের স্বল্প-পাল্লার ক্ষেপণাস্ত্র। বিশ্লেষকরা জানিয়েছেন, এসব ক্ষেপণাস্ত্র ৩০০ থেকে ৭০০ কিলোমিটারের মধ্যে থাকা লক্ষ্যবস্তুতে আঘাত হানতে পারে।

ইরানের ক্ষেপণাস্ত্র ব্যবস্থার নিয়ন্ত্রক বিপ্লবী গার্ড যদিও এ ব্যাপারে কোনো মন্তব্য করতে রাজি হয়নি। রাশিয়ার প্রতিরক্ষামন্ত্রণালয়ও এ ব্যাপারে গোপনীয়তা রক্ষা করছে।

ইরানের সূত্রের বরাত দিয়ে প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ক্ষেপণাস্ত্রের প্রথমচালান রাশিয়ায় যায় জানুয়ারিতে। এর আগে দেশ দুইটির মধ্যে নিরাপত্তা চুক্তি সই হয়।

অন্যদের মতো নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক ইরানের এক সামরিক কর্মকর্তা জানিয়েছেন এখন পর্যন্ত চারটি চালন সম্পন্ন হয়েছে। বাকি চালান শিগগির রাশিয়ায় পৌঁছাবে বলেও নিশ্চিত করেছেন তিনি।

এর আগে রাশিয়াকে ড্রোন সরবরাহের অভিযোগ ওঠে ইরানের বিরুদ্ধে, যা মস্কো ইউক্রেন যুদ্ধে ব্যবহার করছে। তবে সেই অভিযোগ অস্বীকার করে ইরান জানায় যুদ্ধ শুরু হওয়ার আগে মস্কোকে কিছু ড্রোন সরবরাহ করা হয়েছিল।

সূত্র: রয়টার্স





@২০১৯ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত । গ্রামপোস্ট২৪.কম, জিপি টোয়েন্টিফোর মিডিয়া লিমিটেডের একটি প্রতিষ্ঠান।
Design BY MIM HOST