ঘোষনা:
শিরোনাম :
নীলফামারী চৌরঙ্গীতে আগুন, দোকান ভস্মীভূত নীলফামারী উত্তরণ নার্সিং এন্ড মিডওয়াইফারি ইনস্টিটিউটের আন্তর্জাতিক নার্সেস দিবস পালিত সাতক্ষীরায় ২০ মেট্রিক টন অপরিপক্ক আম জব্দের পর তা বিনষ্ট নীলফামারী সদর উপজলোর মনোনয়ন যাচাই শেষ, এক চেয়ারম্যান প্রার্থির মনোনয়ন অবৈধ নীলফামারীতে মহান মে দিবস পালিত নীলফামারীতে গচ্ছিত জামানত ও পি.এফ এর টাকা উদ্ধারের দাবীতে প্রোণ অফিস ঘেরাও। নীলফামারীতে সাংবাদিকের বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা প্রত্যাহারের দাবীতে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ সমাবেশ। নীলফামারী জলঢাকার পৌরসভায় নোভা বিজয়ী নীলফামারীর জলঢাকা উপ-নির্বাচনে বিএনপি প্রার্থির পক্ষে প্রচারণা, এমপির বিরুদ্ধে সংবাদ সম্মেলন। নীলফামারীতে সাংবাদিক নির্যাতনের ঘটনাকে ভিন্নখাতে প্রবাহিত করতে সাংবািদকের নামে থানায় মিথ্যা চাঁদাবাজি মামলা
আদালতকে ভুল বুঝিয়ে জামিন নেয় রুহুল আমিন

আদালতকে ভুল বুঝিয়ে জামিন নেয় রুহুল আমিন

জিপি ডেস্ক ঃ

নোয়াখালীর সুবর্ণচরে গণধর্ষণের আলোচিত সেই ঘটনার নির্দেশদাতা আওয়ামী লীগ নেতা রুহুল আমিনকে দেওয়া জামিন আদেশ প্রত্যাহার করেছেন হাইকোর্ট। আদালতকে ভুল বুঝিয়ে ওই জামিন নেওয়া হয়েছিল। এ কারণে বন্ধের দিনে আদালত বসিয়ে জামিন প্রদানকারী বিচারপতি মামনুন রহমান ও বিচারপতি এসএম কুদ্দুস জামানের বেঞ্চ গতকাল সেই আদেশটি প্রত্যাহার করেন।

একই সঙ্গে আদালত এ বিষয়ে পরবর্তী শুনানির জন্য ২৫ মার্চ দিন রেখেছেন। জামিন আদেশ প্রত্যাহারের পর রাষ্ট্রের প্রধান আইন কর্মকর্তা অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম বলেন, ‘সুবর্ণচরের আলোচিত গণধর্ষণ মামলার আসামি রুহুল আমিনের জামিন করানো আইনজীবী আশেক-ই-রসুল আমাদের অফিসকে জানিয়েছিলেন, তার আবেদনটি বিচারপতি এম ইনায়েতুর রহিমের বেঞ্চে শুনানি হবে। কিন্তু তিনি আবেদনটি বিচারপতি মামনুন রহমানের নেতৃত্বাধীন বেঞ্চে শুনানি করেন।

এ ছাড়া মামলার স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি ও ভিকটিমের জবানবন্দি সন্নিবেশিত না করে আদালতকে ভুল বুঝিয়ে ওই আইনজীবী আসামির জামিন করান।’ অ্যাটর্নি জেনারেল আরও বলেন, ‘তথ্য গোপন করে জামিন নেওয়ার বিষয়টি সংশ্লিষ্ট বিচারপতিদের অবহিত করা হলে শনিবার সকালে তারা চেম্বারে বসে ওই আদেশটি রিকল (প্রত্যাহার) করেছেন। ফলে ওই আসামিকে দেওয়া পূর্বের জামিন আদেশটি বাতিল হয়েছে। যদি আদালতের সামনে সব তথ্যপ্রমাণ সন্নিবেশিত হতো, তবে অবশ্যই আদালত জামিন দিতেন না।

এখন বিষয়টি সংশ্লিষ্টদের জানিয়ে দেব, সে (রুহুল আমিন) যাতে জেল থেকে বের হতে না পারে।’ তথ্য গোপনের বিষয়টি ঘৃণ্য তৎপরতা উল্লেখ করে অ্যাটর্নি জেনারেল বলেন, ‘এ ঘটনাটি নজিরবিহীন। ওই আইনজীবীর বিরুদ্ধে আদালত অবমাননার রুল জারির আরজি জানাব। ২৫ মার্চ এ আবেদন করব। যেখানে সমগ্র জাতি ধর্ষণ মামলার ব্যাপারে উদ্বিগ্ন ও ভয়ঙ্কর ক্ষুব্ধ, সেখানে আসামির জামিন হয়ে যাওয়াটায় সবাই হতবাক হয়ে গেছেন। তবে আদালতের কাছে আমরা কৃতজ্ঞ। কারণ তারা বিষয়টি অনুধাবন করে বন্ধের দিনেও আদেশটি বাতিল করেছেন।’

তিনি আরও বলেন, ‘আমরা বিষয়টি প্রধান বিচারপতির নজরে আনব যে, কিছু কিছু আইনজীবী এক আদালতের কথা উল্লেখ করে অন্য আদালত থেকে শুনানি করেন। এটি এক ধরনের আদালতের সঙ্গে প্রতারণা ও আদালত অবমাননার শামিল। ওই আইনজীবীর বিষয়টি প্রথমে প্রধান বিচারপতির নজরে আনব, পরে প্রয়োজনে বার কাউন্সিলের নজরে আনা হবে।’

এর আগে গত ১৮ মার্চ এক আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে হাইকোর্ট আসামি রুহুল আমিনকে জামিন দেন। আসামিপক্ষে হাইকোর্টে করা জামিন আবেদনে রুহুল আমিনকে একজন আইন মান্যকারী, শান্তিপ্রিয় এবং পেশাগতভাবে অ্যাডভোকেট ক্লার্ক হিসেবে উল্লেখ করা হয়। আবেদনে বলা হয়, ‘মামলার এফআইআরএ আসামির কোনো নাম নেই এবং তার বিরুদ্ধে সুনির্দিষ্ট কোনো অভিযোগ নেই।

ওই ঘটনার সঙ্গে আসামির বিন্দুমাত্র যোগসাজশও নেই। পুলিশ মিথ্যাভাবে আসামিকে এ মামলায় জড়িয়েছে।’ অথচ এ মামলার স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দিতে আট আসামিই রুহুল আমিনকে মূলহোতা হিসেবে উল্লেখ করেছে। সে বিষয়টি হাইকোর্টের সামনে আনেননি আইনজীবী। ওই গৃহবধূ ও তার স্বজনদের অভিযোগ, গত ৩০ ডিসেম্বর সেই নারী প্রতিপক্ষের প্রার্থীকে ভোট দিয়ে ফেরার পথে তাকে দেখে নেওয়ার হুমকি দেন সুবর্ণচর উপজেলা আওয়ামী লীগের প্রচার সম্পাদক ও চরজুবলী ইউনিয়নের ৪নং ওয়ার্ডের সাবেক ইউপি সদস্য (মেম্বার) রুহুল আমিন। এর পর ওই দিন রাত সাড়ে ১২টার দিকে রুহুল আমিনের নেতৃত্বে ১০ জন মিলে ওই গৃহবধূর বাড়িতে হামলায় চালায়।

এ সময় স্বামী ও সন্তানদের বেঁধে রেখে তাকে বাইরে নিয়ে গণধর্ষণ করা হয়। এ ছাড়া ওই দম্পতি এবং তাদের সন্তানদের পিটিয়ে জখম করে তারা। পর দিন সকালে সেই নারীকে উদ্ধার করে ২৫০ শয্যার নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। তখন হাসপাতালের চিকিৎসকরা গণধর্ষণ ও পিটিয়ে জখম করার আলামত পাওয়ার কথা জানান।





@২০১৯ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত । গ্রামপোস্ট২৪.কম, জিপি টোয়েন্টিফোর মিডিয়া লিমিটেডের একটি প্রতিষ্ঠান।
Design BY MIM HOST