ঘোষনা:
শিরোনাম :
কিশোরগঞ্জে,দু,পা হারানো প্রতিবন্ধীর দুর্বিষহ জীবন- সমাজপতিদের কাছে ট্রাইসাইকেলের আবেদন।

কিশোরগঞ্জে,দু,পা হারানো প্রতিবন্ধীর দুর্বিষহ জীবন- সমাজপতিদের কাছে ট্রাইসাইকেলের আবেদন।

কিশোরগঞ্জ (নীলফামারী) প্রতিনিধি, কিশোরগঞ্জে,দু,পা হারানো প্রতিবন্ধীর দুর্বিষহ জীবন- সমাজপতিদের কাছে ট্রাইসাইকেলের আবেদন।পৃথিবীতে জন্ম যেন কারো কারো জীবনে আজন্ম পাপ হয়ে দাড়ায়। প্রকৃতির মাঝে স্বাভাবিকভাবে জন্মগ্রহণ করলে ও জীবনে চলার পথে যে কোন মুহূর্তে নেমে আসে অনাকাঙ্ক্ষিত অজানা কোন দুর্ঘটনা । আর এ দুর্ঘটনায় হয়তো কারো সারা জীবনের কান্না, আবার কাউকে বরণ করতে হয় পঙ্গুত্ব। এমনই এক নির্মমতা নেমে আসে, নীলফামারীর কিশোরগঞ্জ উপজেলার মাগুড়া ইউনিয়নের পাটোয়ারি পাড়া গ্রামের মৃত্যু আছের মাহমুদের ছেলে নুরুল হক পেনকাটু(৫৫) । অবশ্য সবাই তাকে প্রতিবন্ধী পেনকাটু হিসেবেই চেনেন । এক সময় সড়ক দুর্ঘটনায় ট্রাকের নিচে চাপা পড়ে হারাতে হয় তার দুটো পা, বরণ করতে হয় পঙ্গুত্ব। মৃত্যুর দুয়ার থেকে ফিরে আসলেও চলার অবলম্বন পা হারিয়ে অনেকটাই মৃত্যুর মতো । হাত আর মাথাসহ শারীরিকভাবে তিনি এখন অনেকটাই অচল । সেই সময়, যেটুকু ঘরে রুটি-রুজির ব্যবস্থা ছিল তা চিকিৎসার দুয়ারে শেষ হয়ে গেছে। বৈবাহিক জীবনে তিনি ৩ সন্তানের জনক। ছেলেরা বিয়ে শাদী করে এখন তার খোঁজখবর নেওয়ার সময় নেই। পা হারানো প্রতিবন্ধী দুর্বিষহ জীবনে অন্যের সাহায্য ছাড়া কোনো কাজই করতে পারেন না। কর্ম জীবন নিয়ে অনেকেই যখন হুল্লোড করে তখন নির্বাক চোখে তাকিয়ে থাকে অপলক দৃষ্টিতে। দেহ থাকলে চলার নেই কোন অবলম্বন। তার পরও হাত না গুটি নিজের তৈরি কাঠের পিরোয় ভর করে উপজেলার বিভিন্ন দপ্তরে ঘুরে বেড়ান হয়তো কোনো সাহায্য সহযোগিতার জন্য। এই মুহূর্তে দেখা হয় উপজেলা প্রশাসনিক ভবনের সামনে, হামাগুড়ি দিয়ে সিঁড়ি বেয়ে উঠছে উপরে । তার সাথে কথা হলে তিনি জানান, বয়স বেড়ে যাচ্ছে এ বয়সে দুই হাতের ওপর ভর করে হামাগুড়ি দিয়ে চলাও কষ্টসাধ্য হয়ে পড়েছে।আর শেষ বয়সে বা কি হবে তিনিই ভাল জানন( আল্লাহর) দুই হাতের উপর ভর করে সংসার চালাও কষ্টকর, এমনিতে সংসার চালাতে হিমশিম, অন্যদিকে হুইলচেয়ার কেনাও দুঃস্বপ্ন মাত্র। তিনি আরও বলেন, প্রতিবন্ধী কার্ড ছাড়া অন্য কোনো সহযোগিতা পাই না। আমার সমাজপতি ব্যক্তিদের কাছে উদাত্ত আহবান অন্য কিছু চাইনা একটি ট্রাই সাইকেল চাই, যদি সমাজের হকোন বিত্তশালী, হৃদয়বান ব্যক্তি আমার শেষ বয়সে একটি ট্রাই সাইকেল দিত হয়তো বাকি জীবনের চলাফেরার কষ্ট কিছটা হলেও লাঘব হত।পরিশেষে তিনি জানান, যার অঙ্গহানি হয়েছে সেই বুঝে তার ব্যথা।





@২০১৯ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত । গ্রামপোস্ট২৪.কম, জিপি টোয়েন্টিফোর মিডিয়া লিমিটেডের একটি প্রতিষ্ঠান।
Design BY MIM HOST