ঘোষনা:
শিরোনাম :
নীলফামারীতে পুড়ে ছাই পাঁচটি দোকান তিস্তার চরে গম চাষে আগ্রহ বেড়েছে কৃষকদের নীলফামারীতে উগ্রবাদ, জঙ্গি বাদ দমনে পাঁচ দিন ব্যাপী সচেতনতামূলক সেমিনার শুরু সক্ষম সকলকে কর প্রদানের আহবান প্রধানমন্ত্রীর রংপুর বিভাগীয় গন সমাবেশে নীলফামারী উপজেলা বিএনপি স্বতঃস্ফূর্ত অংশগ্রহণ  নীলফামারীর জলঢাকায় স্কুল বন্ধে নিমিসেই নিয়োগ শেষ, সভাপতির বিরুদ্ধে বাণিজ্যের অভিযোগ দেশ পাকিস্তান হবে নাকি মালয়েশিয়া- সিঙ্গাপুর, তথ্য ও সম্প্রচারমন্ত্রী সত্য বলার সৎ সাহসেই গঠিত হবে স্মার্ট বাংলাদেশ: অ্যাড. মমতাজুল শঙ্কামুক্ত নন অভিনেত্রী শারমিন আওয়ামী লীগ শাসনামলে দেশের ব্যাপক উন্নয়ন বিবেচনায় নিতে দেশবাসীর প্রতি আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর
ভ্যাকসিন নিয়ে আশাবাদী “ফাউসি”, ব্যাপক লকডাউনে যাওয়ার প্রয়োজন নেই।

ভ্যাকসিন নিয়ে আশাবাদী “ফাউসি”, ব্যাপক লকডাউনে যাওয়ার প্রয়োজন নেই।

আন্তর্জাতিক ডেস্ক,
প্রতিদিন বিশ্বে করোনা সংক্রমণের হার সমানতালে এগিয়ে চলছে।কিন্তু যুক্তরাষ্ট্রে আর ব্যাপক লকডাউনে যাওয়ার প্রয়োজন নেই বলে জানিয়েছেন দেশটির জ্যেষ্ঠ সরকারি স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞ ও বিজ্ঞানী অ্যান্থনি ফাউসি।
স্থানীয় সময় বৃহস্পতিবার (১৮ জুন) আন্তর্জাতিক সংবাদ সংস্থা এএফপিকে জানান, শিগগিরই বিশ্ব করোনার একটি কার্যকর ভ্যাকসিন পেতে পারে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করছি। কাজেই ব্যাপক লকডাউনে যাওয়ার প্রয়োজন নেই ।

শিগগিরই করোনার কার্যকর একটি ভ্যাকসিন আসবে, এ ব্যাপারে আশাবাদ জানিয়ে এই স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞ বলেন, যুক্তরাষ্ট্রের ফার্মাসিউটিক্যালস ‘মডার্না’ যে ভ্যাকসিন তৈরির কাজ করছে, প্রাথমিক ফলাফলে এটি উত্সাহব্যাঞ্জক। এরই মাঝে এটি পশুর ওপর ভালো ফল দেখিয়েছে। মানবদেহেও এর প্রাথমিক ফলাফল আশাবাদী হওয়ার মতো।

বর্তমানে যুক্তরাষ্ট্রের ক্যালিফোর্নিয়া ও টেক্সাস অঙ্গরাজ্যসহ বেশ কিছু এলাকায় করোনা সংক্রমণ বেড়ে চলেছে, এসব অঞ্চলে কঠোর লকডাউন দেওয়া প্রয়োজন কিনা জানতে চাইলে ফাউসি বলেন, আমার মনে হয় না যে, আমাদের আবারও লকডাউন ব্যবস্থায় ফিরে যাওয়ার ব্যাপারে কথা বলতে হবে।

তিনি আরও বলেন, করোনাকে প্রতিহত করা সম্ভব, প্রকৃতিই এর প্রমাণ দিচ্ছে। যেহেতু আক্রান্ত ব্যক্তিরা সেরে ওঠার পর তাদের অ্যান্টিবডি তৈরি হয়, ফলে এর ভ্যাকসিন উদ্ভাবন সম্ভব এ ব্যাপারে আত্মবিশ্বাসী হওয়া যায়।

যুক্তরাষ্ট্রে কবে নাগাদ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে দেওয়া সম্ভব জানতে চাইলে ফাউসি বলেন, যেখানে করোনা সংক্রমণের ঘটনা নেই, সেসব অঞ্চলে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খুলে দেওয়া যেতে পারে। কিন্তু, যেসব অঞ্চলে সংক্রমণ চলমান, সেগুলোর ক্ষেত্রে আরও অপেক্ষা করতে হবে। এছাড়া কিছু এলাকায় ভিন্ন পদক্ষেপ নেওয়া যেতে পারে। এক দিন পরপর স্কুল চালু রাখা বা মাস্ক পরে যথাযথ সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে বসা, এ ধরনের পদক্ষেপ নেওয়া যায়।





@২০১৯ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত । গ্রামপোস্ট২৪.কম, জিপি টোয়েন্টিফোর মিডিয়া লিমিটেডের একটি প্রতিষ্ঠান।
Design BY MIM HOST